সংবাদ শিরোনাম
দরগাহ গেইটে ডিভাইডারের ওপর উঠে গেল মাইক্রোবাস!  » «   সিলেটে দিনব্যাপী পিঠা উৎসব  » «   ২৫ বছরের মধ্যে বিয়ে না করলেই শাস্তি!  » «   কুয়েতে বাংলাদেশ দূতাবাসে হামলা, সিসিটিভি দেখে ব্যবস্থার আশ্বাস  » «   ১৭ ঘণ্টা পর খুলনার সঙ্গে সারাদেশের রেল যোগাযোগ চালু  » «   বেনাপোলে ৪০৫ বোতল ফেন্সিডিল জব্দ  » «   জিয়ার জন্মদিনে ফখরুলদের তিন শপথ  » «   নির্বাচনে দেশের মানুষ আওয়ামী লীগকে চিরদিনের জন্য তাদের হৃদয় থেকে দূরে ঠেলে দিয়েছে: ফখরুল  » «   ডাক্তার দেখাতে রোববার সিঙ্গাপুর যাচ্ছেন এরশাদ  » «   মুহিতের সঙ্গে মেয়র আরিফসহ সর্বস্তরের মানুষের সাক্ষাৎ  » «   সিলেট-ঢাকা মহাসড়কে বাসের-ট্রাকের সংঘর্ষে নিহত ২  » «   বিল গেটসের এই কাণ্ডে লজ্জা পাবেন আপনিও!  » «   অগ্নিকাণ্ড থেকে রক্ষা পেল কুমারগাও বিদ্যুৎকেন্দ্র  » «   ফেব্রুয়ারির শেষে দ্বিতীয়বার বসবেন ট্রাম্প-কিম  » «   মেক্সিকোয় পাইপলাইনে অগ্নিকাণ্ড, নিহত ২০  » «  

মোবাইল গেমস খেলে মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে হাসপাতালে

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::ভারতের যুবসমাজে ক্রমেই বাড়ছে PUBG নামে একটি মোবাইল গেমেসের জনপ্রিয়তা। আর সব গেমেসের মতো এই গেমটির নেশাতেও ডুবে যাচ্ছেন অনেকেই। বহুক্ষেত্রেই যার ফল হচ্ছে মারাত্মক।

যেমন হয়েছে জম্মুর এক ফিটনেস ট্রেনারের ক্ষেত্রে। শুধু তিনিই নন, গত কয়েকদিনে আরো ৫ জন একই কারণে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

ভারতীয় গণমাধ্যম জিনিউজের খবরে বলা হয়, জম্মুর এক ফিটনেস ট্রেনার ১০ দিন আগে PUBG খেলতে শুরু করে। তবে গণমাধ্যমে তার নাম প্রকাশ করা হয়নি।

সম্প্রতি তিনি অস্বাভাবিক আচরণ করতে শুরু করেন। শেষে ওই যুবক নিজেকেই নানাভাবে আঘাত করতে শুরু করেন। পরিস্থিতি বেগতিক বুঝে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করেন আত্মীয়রা।

হাসপাতাল সূত্রে জানিয়েছে, যুবকের অবস্থা স্থিতিশীল নয়। PUBG গেমেসের প্রভাবে আংশিক মানসিক ভারসাম্য হারিয়েছেন তিনি। তাকে কড়া পর্যবেক্ষণে রেখেছেন চিকিত্সকরা।

তার চিকিত্সার জন্য একজন স্নায়ু চিকিৎককে নিয়োগ করা হয়েছে।

তিনি জানিয়েছেন, ওই যুবক এখনো PUBG’র ঘোর থেকে বের হতে পারেননি। তবে যুবক দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবেন বলে আশাবাদী ওই চিকিৎসক।

হাসপাতাল সূত্রের খবর, এই নিয়ে গত কয়েকদিনে PUBG খেলতে খেলতে মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ৬ জন ভর্তি হয়েছেন।

বিশেষজ্ঞদের ধারণা, এই ৬ জন ছাড়াও আরো অনেকেই এই ধরনের সমস্যায় ভুগছেন। তবে তাদের পরিবার সমস্যার গুরুত্ব বুঝতে না পারায় হাসপাতালে আনেননি।

সেক্ষেত্রে সেই সব যুবকরা আরও বড় ঝুঁকির সামনে দাঁড়িয়ে আছেন বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.