সংবাদ শিরোনাম
দরগাহ গেইটে ডিভাইডারের ওপর উঠে গেল মাইক্রোবাস!  » «   সিলেটে দিনব্যাপী পিঠা উৎসব  » «   ২৫ বছরের মধ্যে বিয়ে না করলেই শাস্তি!  » «   কুয়েতে বাংলাদেশ দূতাবাসে হামলা, সিসিটিভি দেখে ব্যবস্থার আশ্বাস  » «   ১৭ ঘণ্টা পর খুলনার সঙ্গে সারাদেশের রেল যোগাযোগ চালু  » «   বেনাপোলে ৪০৫ বোতল ফেন্সিডিল জব্দ  » «   জিয়ার জন্মদিনে ফখরুলদের তিন শপথ  » «   নির্বাচনে দেশের মানুষ আওয়ামী লীগকে চিরদিনের জন্য তাদের হৃদয় থেকে দূরে ঠেলে দিয়েছে: ফখরুল  » «   ডাক্তার দেখাতে রোববার সিঙ্গাপুর যাচ্ছেন এরশাদ  » «   মুহিতের সঙ্গে মেয়র আরিফসহ সর্বস্তরের মানুষের সাক্ষাৎ  » «   সিলেট-ঢাকা মহাসড়কে বাসের-ট্রাকের সংঘর্ষে নিহত ২  » «   বিল গেটসের এই কাণ্ডে লজ্জা পাবেন আপনিও!  » «   অগ্নিকাণ্ড থেকে রক্ষা পেল কুমারগাও বিদ্যুৎকেন্দ্র  » «   ফেব্রুয়ারির শেষে দ্বিতীয়বার বসবেন ট্রাম্প-কিম  » «   মেক্সিকোয় পাইপলাইনে অগ্নিকাণ্ড, নিহত ২০  » «  

সিলেটে নতুন কারাগারে ২৩০০ বন্দি স্থানান্তর

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::সিলেটের বাদাঘাটে নবনির্মিত নতুন কারাগারে বন্দি স্থানান্তর করা হয়েছে। শুক্রবার বিকাল পর্যন্ত পুরাতন কারাগারে থাকা বন্দিদের কঠোর নিরাপত্তার মধ্যে নতুন কারাগারে স্থানান্তর করা হয়। সকাল ৬টা থেকে গাড়িযোগে বন্দিদের নতুন কারাগারে স্থানান্তর করা হয় বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার মো. আব্দুল আজিজ গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন- পুরাতন কারাগারে থাকা ২৩০০ বন্দিকে নতুন কারাগারে নেয়া হয়েছে। এদের মধ্যে কয়েদি ৭৮৮ ও হাজতি বন্দি ১৫২২ জন। এদের মধ্যে ৫৬ জন মহিলা বন্দি রয়েছেন। কারা সূত্র জানায়- বন্দি স্থানান্তরকে কেন্দ্র করে নেয়া হয় কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা। পুরাতন ও নবনির্মিত কারাগার এবং বিভিন্ন পয়েন্টে মোতায়েন ছিল শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

এ বন্দি স্থানান্তরের মাধ্যমে প্রায় ২২৯ বছর পর নতুন ঠিকানায় যাত্রা করলো সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগার। নতুন কারাগারে বন্দি ধারণ ক্ষমতা দুই হাজার। ২০১৮ সালের ১লা নভেম্বর এটির উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কারাগারটি নির্মাণ করতে ব্যয় হয়েছে ২৭০ কোটি টাকা। উদ্বোধনের পরপরই নতুন কারাগারের নিয়ন্ত্রণ নেন কারা কর্তৃপক্ষ। সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারের পুরাতন থেকে নতুন ভবনে বন্দি স্থানান্তরের কারণে ৩ দিন বন্দিদের সঙ্গে স্বজনরা সাক্ষাৎ করতে পারবেন না। এ নিয়ে নোটিশ জারি করেছে কারা কর্তৃপক্ষ। আগামী ১৩ই জানুয়ারি রোববার থেকে আবারো বন্দিদের সঙ্গে দেখা করতে পারবেন স্বজনরা। নগরীর ধোপাদিঘীরপাড়ে ১৭৮৯ সালে বৃটিশ ঔপনিবেশিক শাসনামলে ২৪ দশমিক ৬৭ একর জমির ওপর নির্মাণ করা হয়েছিল সিলেট জেলা কারাগার। ১৯৯৭ সালে এটি সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারের মর্যাদা পায়। তখন এর ধারণ ক্ষমতা দাঁড়ায় ১ হাজার ২১০ জনে।
শহরতলির বাদাঘাটে নতুন কারাগার নির্মাণের প্রকল্প জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদে (একনেক) পাস হয়েছিল ২০১০ সালে। এটি নির্মাণের দায়িত্বে ছিল সিলেট গণপূর্ত বিভাগ।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.