সংবাদ শিরোনাম
কুলাউড়ায় কিশোরীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ-প্রেমিক জেলহাজতে  » «   কমলগঞ্জে পানিতে পড়ে প্রতিবন্ধী যুবকের মৃত্যু  » «   সিলেটে ডিবি পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ!  » «   কমলগঞ্জে ইয়াবা ট্যাবলেটসহ দুইজন আটক  » «   আজ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর জন্মদিন সিলেটে আসছেন তিনি  » «   বিশ্বনাথে দেয়াল নির্মাণকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষে প্রবাসীসহ আহত ১১  » «   নগরীর মহাজনপট্টিতে ডিবির অভিযানে ইয়াবাসহ আটক ১  » «   মাছ ধরার জেরে মামা-ভাগ্নের ঝগড়ায় প্রাণ গেলো অনিকের  » «   হবিগঞ্জের বাহুবলে দুই অটোরিক্সার মুখোমুখি সংঘর্ষে নারী নিহত  » «   বিশ্ববাসীকে জেগে উঠার আহ্বান ইমরানের  » «   সৌদি আরবে চালু তাৎক্ষণিক লেবার ভিসা সার্ভিস  » «   যাত্রা শুরু হলো ড্রিমলাইনার উড়োজাহাজ গাঙচিলের  » «   মাধবপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১  » «   ‘একজন রোহিঙ্গাও ফেরত যেতে রাজি হয়নি’  » «   মোদির বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রে বিক্ষোভ করবে পিটিআই  » «  

স্ত্রীকে টুকরো টুকরো করে প্রতিশোধ

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::নোয়াখালী সদর উপজেলার ধর্মপুর ইউনিয়নের পূর্ব শুল্লাকিয়া গ্রামের পারভীন আক্তার ফাহিমা (১৭) নামের এক পোশাক শ্রমিককে হত্যার ঘটনায় স্বামী মো. শেখ সেলিম গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার রাত ১টার দিকে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) একটি দল চট্টগ্রামের চাটগাঁও থানার মৌলভী পুকুরপাড় এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারের পর স্ত্রী হত্যার দায় স্বীকার করেছেন সেলিম।

গ্রেফতারকৃত শেখ সেলিম (৩০) নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার ডিগ্রির চর গ্রামের শুক্কুর আলী শেখের ছেলে। স্ত্রীকে হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী ছিলেন সেলিম।

শনিবার দুপুরে নোয়াখালী পিবিআই কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিং করে এসব তথ্য জানায় পিবিআই। পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) চট্টগ্রামের পুলিশ সুপার মো. ইকবাল এ বিষয়ে ব্রিফিং করেন।

তিনি বলেন, নিহত পারভীন আক্তার ফাহিমা ও শেখ সেলিম চট্টগ্রামের একটি পোশাক কারখানায় কাজ করতেন। গত রমজান মাসে বিয়ে করেন তারা। শেখ সেলিম এর আগেও একটি বিয়ে করেন। ওই ঘরে তার একটি সন্তান রয়েছে। বিষয়টি জানার পর ফাহিমা তাকে ছেড়ে নিজ বাড়িতে চলে আসেন।

এতে ক্ষিপ্ত হয়ে প্রতিশোধ নিতে গত বুধবার (৯ জানুয়ারি) সেলিম নোয়াখালীতে আসেন। পরে মোবাইলে কল দিয়ে বাড়ির পাশে ঝোপের মধ্যে ফাহিমাকে ডেকে নেন।

এরপর ধারালো ছুরি দিয়ে গলা কেটে ফাহিমাকে হত্যা করেন সেলিম। ফাহিমাকে হত্যার পর লাশ বিভিন্ন অঙ্গ কেটে টুকরো টুকরো করে পালিয়ে যান সেলিম। পরে ফাহিমার ক্ষতবিক্ষত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ সময় তার পেটে বিদ্ধ একটি ছুরি উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ সুপার মো. ইকবাল আরও বলেন, ঘটনার পর মোবাইল নম্বর ট্র্যাকিং করে সেলিমের অবস্থান সম্পর্কে নিশ্চিত হয় পিবিআই। পরে চট্টগ্রামের চাটগাঁও থানার মৌলভী পুকুরপাড় এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। সেখানে রাজমিস্ত্রির কাজ করতেন সেলিম।

পারভীন আক্তার ফাহিমা হত্যার ঘটনায় তার বাবা জহিরুল ইসলাম মামলা করেছেন। ওই মামলায় সেলিমকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে হাজির করা হবে বলেও জানান পিবিআইয়ের চট্টগ্রামের পুলিশ সুপার মো. ইকবাল।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.