সংবাদ শিরোনাম
ফিলিপাইনে শক্তিশালী ভূমিকম্প, নিহত ৫  » «   স্ত্রী ও ৩ সন্তানকে হত্যা করে ভিডিও করলো যুবক  » «   আরব আমিরাতকে হারিয়ে শুভসূচনা বাংলাদেশের  » «   সুদান-আলজেরিয়ায় আরব বিপ্লবের নতুন ঢেউ  » «   ‘হামলায় ন্যাশনাল তাওহিদ জামাত জড়িত  » «   লাখাইয়ে নিখোঁজের ২ মাস পর মিলল কলেজ ছাত্রের লাশ  » «   হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে অজ্ঞাত মৃতদেহ উদ্ধার  » «   বালাগঞ্জের কাজীপুর গ্রামে তরুণের আত্মহত্যা  » «   শ্রীমঙ্গলে স্কুলছাত্রী ধর্ষণ: এসআই ক্লোজড, ওসি শোকজ  » «   বুধবার আসছে জায়ানের মরদেহ  » «   শেয়ারবাজার পতনে জড়িতদের খুঁজে বের করা হবে: অর্থমন্ত্রী  » «   শ্রীলঙ্কার সব স্কুল দুই দিন বেশি বন্ধের ঘোষণা  » «   শ্রীলঙ্কায় সিরিজ হামলায় নিহত বেড়ে ১৩৮  » «   ব্যারিস্টার আমিনুলের মৃত্যুতে ফখরুলের শোক  » «   বিএনপি নেতা আমিনুল হক আর নেই  » «  

কমলগঞ্জের শমশেরনগর বৃদ্ধা হত্যায় মেয়ের জামাইসহ আটক ৫

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগর ইউনিয়নের উত্তর সতিঝিরগাঁও গ্রামে নির্জন একা বসত বাড়িতে গফুরুন বেগম (৫৫) নামে এক মহিলাকে গলা টিপে হত্যার ঘটনায় নিহত ওই মহিলার মেয়ের জামাইসহ ৫ জনকে আটক করেছে পুলিশ। এর আগে সোমবার (২৮ জানুয়ারি) সকাল ১০ টায় নিহত বসত ঘর থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

সোমবার দিবাগত রাতে মহিলার নিজ বাড়িতে শ্বাসরুদ্ধ করে তাকে হত্যা করা হয় বলে অভিযোগ উঠেছে। প্রাথমিক ভাবে গফুরুন বেগম হত্যায় মেয়ের জামাই মাহমুদ মিয়া (৩৫) জড়িত বলে স্থানীয়ভাবে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনার পর থেকে মাহমুদ মিয়া পলাতক ছিলেন।

কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আরিফুর রহমান আটকের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পাঁচজনকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে। পুলিশি তদন্ত শেষে প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে।

এদিকে স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, নিহত গফুরুন বেগমের ২ মেয়ে ও ১ ছেলে রয়েছেন। এর মধ্যে মেয়ে সালমা বেগম ও ছেলে জুনেদ আলী প্রবাসে থাকেন। কমলগঞ্জ উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ কানাইদাশী গ্রামের মাহমুদ মিয়া (৩৫) এর সাথে গফুরুন বেগম এর মেয়ে সালমা বেগমকে বিয়ে দেয়া হয়। বিয়ের পর তাদের এক পুত্র সন্তান জন্ম হয়। গফুরুন বেগম তার নাতি সানিকে নিজের কাছে রেখে প্রায় দুই বছর পূর্বে মেয়ে সালমা বেগমকে বিদেশে পাঠিয়ে দেন। এরপর মাহমুদ আলী নিজের স্ত্রীকে বিদেশে পাঠানো নিয়ে বিভিন্ন সময়ে শাশুড়ির সাথে দেন দরবার হতো। পারিবারিক কলহের জের ধরে মাহমুদ মিয়া (৩৫) গত সোমবার দিবাগত রাতে তার শাশুড়িকে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যার পর পালিয়ে গেছে বলে স্থানীয়রা ধারণা করছেন। নিহতের ভাই আব্দুল আলী মঙ্গলবার সকালে সানিকে মক্তবে পাঠানোর জন্য ডাকতে গেলে ঘটনাটি দেখতে পান। পরে খবর পেয়ে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (কমলগঞ্জ-শ্রীমঙ্গল সার্কেল) আশফাকুজ্জামান, কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আরিফুর রহমান, শমশেরনগর ফাঁড়ির ইনচার্জ (তদন্ত) অরুপ কুমার চৌধুরী, কমলগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক ফরিদ মিয়াসহ পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থল তদন্ত করেন।

এদিকে অভিযুক্ত জামাতা মাহমুদ মিয়ার ৭ বছর বয়সের ছেলে সানি জানায়, তার নানী (গফুরুন বেগম)-কে তার পিতা মাহমুদ আলী মারধোর করার পর তার কাছে বিশ টাকা দিয়ে চলে যান।

নিহত বৃদ্ধার ভাই আব্দুল আলী বলেন, মেয়ের জামাই পরিকল্পিতভাবে তার শাশুড়িকে হত্যা করেছে।

এ ঘটনায় মেয়ের জামাই মাহমুদ মিয়াসহ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পাঁচজনকে আটক করা হয়েছে। তবে পুলিশ তদন্তের স্বার্থে সবকিছু বলতে অপারগতা প্রকাশ করেছে।

এ ব্যাপারে শমশেরনগর ইউনিয়নের স্থানীয় ওয়ার্ড সদস্য সতিঝিরগাঁও গ্রামে রুহেল আহমদ চৌধুরী বলেন, এটা একটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড। এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবী করে প্রকৃত অপরাধীদের খুঁজে বের করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানান তিনি।

কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আরিফুর রহমান ও শমশেরনগর ফাঁড়ির ইনচার্জ (তদন্ত) অরুপ কুমার চৌধুরী বলেন, লাশের গলায় আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। ময়না তদন্তের জন্য লাশ মৌলভীবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.