সংবাদ শিরোনাম
বিশ্বনাথে দেয়াল নির্মাণকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষে প্রবাসীসহ আহত ১১  » «   নগরীর মহাজনপট্টিতে ডিবির অভিযানে ইয়াবাসহ আটক ১  » «   মাছ ধরার জেরে মামা-ভাগ্নের ঝগড়ায় প্রাণ গেলো অনিকের  » «   হবিগঞ্জের বাহুবলে দুই অটোরিক্সার মুখোমুখি সংঘর্ষে নারী নিহত  » «   বিশ্ববাসীকে জেগে উঠার আহ্বান ইমরানের  » «   সৌদি আরবে চালু তাৎক্ষণিক লেবার ভিসা সার্ভিস  » «   যাত্রা শুরু হলো ড্রিমলাইনার উড়োজাহাজ গাঙচিলের  » «   মাধবপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১  » «   ‘একজন রোহিঙ্গাও ফেরত যেতে রাজি হয়নি’  » «   মোদির বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রে বিক্ষোভ করবে পিটিআই  » «   বিএনপিকে ধ্বংসের চক্রান্ত করছে সরকার: রিজভী  » «   ‘২১শে আগস্ট হত্যাকাণ্ডের মাস্টারমাইন্ড তারেক রহমান’  » «   ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুন  » «   প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ দিয়ে ঢাকা ছাড়লেন জয়শঙ্কর  » «   ট্রেনের বগিতে ছাত্রীর লাশ ! ধর্ষণের পর হত্যা  » «  

খুলনার হারে কপাল পুড়ল রাজশাহীর, প্লে-অফে ঢাকা

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::আজ নিশ্চিত করেই মেহেদী হাসান মিরাজ চাইছিলেন খুলনা জিতুক। তাহলে দলবল নিয়ে শেষ চারে চলে যেতে পারতেন তিনি। কিন্তু রাজশাহী কিংসের এই অধিনায়ককে হতাশ করে শেষ হাসিটা হাসলেন সাকিব আল হাসানই। শনিবার বিপিএলের লিগ পর্বের শেষ ম্যাচে খুলনাকে ৬ উইকেটে হারিয়ে চতুর্থ দল হিসেবে প্লে-অফে নাম লেখাল ঢাকা ডায়নামাইটস।

চলতি আসরে শুরুর দিকে বেশ দাপট নিয়েই খেলছিল ঢাকা। ঢাকা ও সিলেট পর্বে টেবিলের শীর্ষে ছিল তারকা সমৃদ্ধ দলটি। কিন্তু চট্টগ্রাম পর্বের আগ থেকে নিজেদের হারিয়ে ফেলে তারা। চট্টগ্রাম পর্বে একটি ম্যাচ জিততে পারলেই চলতো তাদের। কিন্তু ওই পর্বে একটিও জয় নেই তাদের। ঢাকা পর্বেও এসে প্রথম ম্যাচে সিলেট সিক্সার্সের কাছে হার। ফলে আসর থেকে ছিটকে পড়ার সম্ভাবনা দেখা দিচ্ছিল। আর অন্য দিকে মিরাজের হাসি চওড়া হচ্ছিল।

এদিন টস ভাগ্যটা ছিল খুলনার অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের। টস জিতে ব্যাট করারর সিদ্ধান্ত নেন তিনি। কিন্তু ব্যাট করতে নেমে খুব বেশি দূর যেতে পারেনি তার দল। ঢাকার বোলারদের তোপের মুখে ১২৩ রানেই থেমে যায় খুলনার ইনিংস।

এদিকে সহজ লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৩১ বল হাতে রেখেই কাঙ্ক্ষিত জয় তুলে নেয় ঢাকা। দুই ওপেনার উপল থারাঙ্গা ও সুনিল নারিন ভালো শুরু এনে দেন দলকে। ১৬ বলে ৪৩ রান আসে এই উদ্বোধনী জুটি থেকে। এরপর ব্যক্তিগত ৩৫ (১৩ বলে) রানে আউট হয়ে যান নারিন। তার বিস্ফোরক ইনিংসটিতে ছিল ৪টি ছক্কা ও ২টি চারের মার।

এদিন তিন নম্বরে নেমে অবশ্য সাকিব ব্যর্থই হলেন। ব্যক্তিগত ১ রানে আউট হয়ে যান তিনি। আর চার নম্বরে নামা মিজানুর রহমান রানের খাতাই খুলতে পারেননি। তবে নুরুল হাসান সোহান এসে ২৬ বলে অপরাজিত ২৭ রান করে দলের জয়ে ভূমিকা রাখেন।

দলীয় ৮৮ রানে আউট হয়ে যান থারাঙ্গা। ২ ছক্কা ও ৪ চারে সাজিয়ে ৩০ বলে ৪২ রান করেছেন এই লঙ্কান। এরপর অবশ্য কিয়েরন পোলার্ডকে নিয়ে বাকি কাজটা সারে সোহান। ১৪.৫ ওভারে ১২৪ রান তুলে দলকে বহু কাঙ্ক্ষিত জয় এনে দেয় এই জুটি। পোলার্ড অপরাজিত থাকেন ৯* রানে। ম্যান অব দ্য ম্যাচ হয়েছে থারাঙ্গা।

খুলনার হয়ে ১৪ রানে ২ উইকেট নিয়েছেন মাহমুদউল্লাহ নিজে। এছাড়া একটি করে উইকেট পেয়েছেন মোহাম্মদ সাদ্দাম ও তাইজুল ইসলাম।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.