সংবাদ শিরোনাম
হজ নিবন্ধন শেষ হলেও কোটা পূরণ হয়নি  » «   পরীক্ষা কেন্দ্রে ছাত্রীকে যৌন হয়রানীর অভিযোগ  » «   পুলিশের বাড়িতে বিষের শিশি নিয়ে তরুণীর অবস্থান  » «   অস্বাভাবিক কিছু দেখলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে জানান: প্রধানমন্ত্রী  » «   দক্ষিণ সুরমার বদিকোনা মাঠে ইজতেমা হচ্ছে না আজ  » «   সিলেট জেলা বিএনপির আলোচনা সভা সোমবার  » «   আসামে ৮ বাংলাদেশি তরুণ আটক  » «   দেশবাসীকে সজাগ ও সতর্ক থাকার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর  » «   ঐক্যফ্রন্টের বৈঠকে খালেদার মুক্তির দাবী  » «   মানুষের সঙ্গে গরিলার সেলফি!  » «   দুর্ঘটনায় জ্ঞান হারানোর ২৭ বছর পর কোমা থেকে জেগে উঠলেন নারী!  » «   ১১ বছর ধরে সাঁতরে অফিসে যান তিনি!  » «   মোবাইল চুরির অভিযোগে সাংবাদিকদের আটকে রাখলেন শমী কায়সার  » «   বিয়ানীবাজারে যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার  » «   সিলেটে চাঁদাবাজ চক্রের চার সদস্য গ্রেপ্তার  » «  

খোকন নাম ঠিক থাকলেও পরিচয়পত্রে যে এক নারীর ছবি

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::দীর্ঘদিনের অপেক্ষা শেষে প্রথমবারের মতো জাতীয় পরিচয়পত্রের স্মার্টকার্ড হাতে পান মৌলভীবাজারের কুলাউড়ার বাসিন্দা মো. খোকন। কিন্তু একি! নামধাম ঠিক থাকলেও তার পরিচয়পত্রে যে এক নারীর ছবি। আবার স্বাক্ষরের জায়গায় তার বদলে ‘দিলারা বেগম’ নামে এক নারীর! বিষয়টি যারপরনাই হতবাক করেছে খোকনকে।

শুধু খোকন নন, ওইদিন কুলাউড়ার যেসব বাসিন্দা তাদের স্মার্টকার্ড হাতে পেয়েছেন তাদের অনেকেই এমন ভুলের শিকার হয়েছেন। কারো কারো তো জন্মস্থান এক জেলা থেকে অন্য জেলায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

ভুক্তভোগীরা জানান, একজনের জন্মস্থান মৌলভীবাজার হলেও স্মার্টকার্ডে লেখা হয়েছে মানিকগঞ্জ। এ ছাড়া, কারও কারও ক্ষেত্রে জন্ম তারিখে ভুল, তো কারও বাবার নামের শেষে যুক্ত হয়েছে ‘বেগম’।

জানা গেছে, গত ৯ এপ্রিল থেকে কুলাউড়ায় জাতীয় পরিচয়পত্রের স্মার্টকার্ড বিতরণ কার্যক্রম শুরু হয়।

পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা ব্যবসায়ী মো. খোকনের পুরোনো জাতীয় পরিচয়পত্রে সবকিছুই ঠিকঠাক ছিল। কিন্তু নতুন পাওয়া স্মার্টকার্ডে নাম-ঠিকানা ঠিক থাকলেও নিজের ছবির জায়গায় ‘দিলারা বেগম’ নামে এক নারীর ছবি ও স্বাক্ষর দেওয়া আছে।

খোকনের কার্ডের ছবি ও স্বাক্ষরের ওই নারী একই ওয়ার্ডের বাসিন্দা দিলারা বেগম। ত‌বে দিলারা বেগমও তার কার্ড পেয়েছেন এবং সেখানে কোনো ভুল নেই।

পৌর শহরের ১নং ওয়ার্ডে বাসিন্দা ও প্রবীণ মুরুব্বি মো. আবদুল আউয়ালের বাংলা নাম সঠিক হলেও ইংরেজি নামে ভুল।

পৌর এলাকার ৩নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা আবির আহমদের স্মার্টকার্ডে জন্মস্থান মৌলভীবাজারের স্থলে মানিকগঞ্জ লেখা হয়েছে।

এ ছাড়াও পৌরশহরের আরেক বাসিন্দা শামছুন্নাহার বেগমের স্মার্টকার্ডে বাবার নাম ‘আবদুল মতিন বেগম’ দেওয়া হয়েছে। পৌর এলাকার ৩নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা আবির আহমদের স্মার্টকার্ডে জন্মস্থান মৌলভীবাজারের স্থলে মানিকগঞ্জ লেখা হয়েছে।

৫নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা তাসলিমা সুলতানা নামে একজনের জন্ম তারিখের সাল ১৯৯৪ সালের বদলে ১৯৩৫ লেখা হয়েছে। আবার নিবন্ধন করা সত্ত্বেও পুরোনো জাতীয় পরিচয়পত্র থাকা অনেকেই নতুন স্মার্টকার্ড পাননি।

এ ব্যাপারে কুলাউড়া উপজেলা নির্বাচন অফিসার মো. ইকবাল আহসান জানান, ভুল নিয়ে উদ্বিগ্ন হবার কিছু নেই। কেননা প্রথমদফা স্মার্টকার্ড উপজেলাব্যাপী বিতরণ শেষ হলেই সংশোধনের কাজ শুরু হবে। কেন্দ্রীয় সার্ভার কেন্দ্রের মাধ্যমে সব ভুলের সংশোধন করা হবে।

এদিকে প্রবাসী-অধ্যুষিত কুলাউড়া উপজেলায় দেশের বাইরে অবস্থানরতদের জন্য থাকছে বিশেষ ব্যবস্থা। বিদেশ থেকে দেশে আসার পর যাদের জাতীয় পরিচয়পত্র আছে তারা সেটি জমা দিয়ে উপজেলা নির্বাচন অফিস থেকে স্মার্ট কার্ড গ্রহণ করতে পারবে বলে উপজেলা নির্বাচন অফিস সুত্রে জানা যায়। যারা অসুস্থ নির্দিষ্ট তারিখে নিতে পারেননি, তারাও পরবর্তীতে উপজেলা নির্বাচন অফিস থেকে কার্ড গ্রহণ করতে পারবেন।

জানা গেছে, কুলাউড়ায় উপজেলায় জাতীয় পরিচয়পত্রের স্মার্টকার্ড বিতরণ কার্যক্রম শুরু হয়েছে গত ৯ এপ্রিল থেকে। প্রথমে কুলাউড়া পৌরসভায় এবং পরবর্তীতে আগামী ১৫ এপ্রিল থে‌কে ধারাবাহিকভাবে উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নে স্মার্টকার্ড বিতরণ করা হবে। চলতি বছরের ১ জুলাই পর্যন্ত প্রথম পর্যায়ে স্মার্টকার্ড বিতরণ চল‌বে। কুলাউড়া উপজেলায় প্রথম পর্যায়ে ২ লাখ ২৪ হাজার ৫৯৪টি স্মার্টকার্ড বিতরণ করা হবে।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.