সংবাদ শিরোনাম
সিলেট চেম্বার নির্বাচন: বিজয়ী হলেন যারা  » «   বিভাগীয় মহাসমাবেশকে ঘিরে সিলেট বিএনপিতে ব্যাপক তোড়জোড় চলছে  » «   ভোলাগঞ্জ সাদাপাথর বেড়াতে গিয়ে লাশ হলেন আরেকজন  » «   দক্ষিন সুরমায় গাঁজাসহ মহিলা মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   সুরমা মার্কেট থেকে কিশোর নিখোঁজ  » «   জৈন্তাপুরে পুলিশের পৃথক অভিযানে আটক ৪  » «   বিশ্বনাথে প্রতিপক্ষের হামলায় এক বৃদ্ধ আহত  » «   কোম্পানীগঞ্জের কলাবাড়ি এলাকা থেকে মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   বিশ্বনাথে মোবাইল গার্ডেনে চুরির ঘটনায় সিলেট থেকে এক নারী গ্রেপ্তার  » «   জালালপুরে বাকপ্রতিবন্ধি নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে ইউপি সদস্য গ্রেপ্তার  » «   যুবলীগ নেতা জি কে শামীম ১০ দিনের রিমান্ডে  » «   ‘তথ্য-প্রমাণ পেলে সম্রাটের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা’  » «   কুষ্টিয়ায় চাঁদাবাজির অভিযোগে দুই যুবলীগ নেতা গ্রেপ্তার  » «   মা হলেন নুসরাত হত্যার আসামি কারাবন্দি মনি  » «   কিশোরগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় কটিয়াদী উপজেলার যুবদল সভাপতি নিহত  » «  

কোথাও বাঁধ ভাঙলে ফোন করুন এই নম্বরে

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::ঘূর্ণিঝড় ফণি’র প্রভাবে সারাদেশে কোথাও বেড়িবাঁধ ভাঙলে বা ভাঙার উপক্রম হলে জরুরি ভিত্তিতে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের কন্ট্রোল রুমে অবহিত করার অনুরোধ করা  হয়েছে। এজন্য ফোন করার আহ্বান জানানো হয়েছে কন্ট্রোল রুমে। কন্ট্রোল রুমের টেলিফোন নং- ০২৯৫৪০৭০১।
এদিকে শনিবার (৪ মে) সকাল ৬টায় প্রবেশে করে ফণী। আজ ভোর থেকেই সাতক্ষীরা, খুলনা, যশোর অঞ্চল দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে ঘূর্ণিঝড় ফণী।  এরপর দেশের উত্তর ও উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হচ্ছে। ‘ফণী’র প্রভাবে আজ শনিবার (৪ মে) সারাদিনই দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি হতে পারে। আবহাওয়া অধিদফতরের পরিচালক শামছুদ্দীন আহমেদ এই তথ্য জানিয়েছেন।
ফণীর প্রভাবে শুক্রবার সকাল থেকেই সারা দেশে থেমে থেকে বৃষ্টি ও দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি হচ্ছে। একইসঙ্গে ঝড়ের প্রভাবে উপকূলীয় এলাকা স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ২-৪ ফুট অধিক উচ্চতার জলোচ্ছ্বাসে প্লাবিত হতে পারে বলেও সতর্ক করা হয়েছে।
ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের ৫৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৬২ কিলোমিটার যা দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়ার আকারে ৮৮ কিলোমিটারে পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। সাগর খুবই উত্তাল রয়েছে।
মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ৭ নম্বর বিপদসংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। উপকূলীয় জেলা ভোলা, বরগুনা, পটুয়াখালী, বরিশাল, পিরোজপুর, ঝালকাঠি, বাগেরহাট, খুলনা, সাতক্ষীরা এবং তাদের অদূরবর্তী দ্বীপ ও চরসমূহ ৭ নম্বর বিপদসংকেতের আওতায় থাকবে।
চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দরকে ৬ নম্বর বিপদসংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। উপকূলীয় জেলা চট্টগ্রাম, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, ফেনী, চাঁদপুর এবং তাদের অদূরবর্তী দ্বীপ ও চরসমূহ ৬ নম্বর বিপদসংকেতের আওতায় থাকবে।
কক্সবাজার সমূদ্রবন্দরকে ৪ নম্বর হুঁশিয়ারি সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.