সংবাদ শিরোনাম
গোয়াইনঘাটে চালককে হত্যা করে মোটর সাইকেল ছিনতাই  » «   জৈন্তাপুরে ২ কেজি গাঁজাসহ আটক ১  » «   কোম্পানীগঞ্জে বজ্রপাতে স্কুল ছাত্রের মৃত্যু, বাবা আহত  » «   গোলাপগঞ্জের ঢাকা দক্ষিণে ট্রাক-সিএনজির সংঘর্ষে নিহত ১  » «   সুনামগঞ্জে হাওরে মাছ ধর‌তে গিয়ে বজ্রপাতে বাবা-ছে‌লের মৃত্যু  » «   ৫ দিনের রিমান্ডে রিশান ফরাজী  » «   লন্ডনের পথে প্রধানমন্ত্রী  » «   আসামে বন্যায় মৃত ২৭, বিপদসীমার ওপরে ব্রহ্মপুত্র ও শাখা নদী  » «   জাপানে আগুনে নিহত কমপক্ষে ২৩, বহু মানুষ নিখোঁজ  » «   সাবেক পাক প্রধানমন্ত্রী শহিদ আব্বাসিকে গ্রেপ্তার  » «   সিঙ্গাপুরে নেয়া হল রফিকুল ইসলাম মিয়াকে  » «   অশ্লীল ভিডিওচিত্র ধারন,ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে টাকা আদায় ! নারীসহ গ্রেপ্তার ৬  » «   রিফাতকে শিক্ষা দিতে চেয়েছিলেন বহুরূপী মিন্নি  » «   খাদ্য ঘাটতি পূরণ করেছি-প্রধানমন্ত্রী  » «   জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের  » «  

ইফহার ও সেহরিতে খাবেন যেসব খাবার

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::শুরু হয়ে গেছে পবিত্র মাহে রমজান। আজ মঙ্গলবার (৭ মে) প্রথম রোজা। সিয়াম সাধনার এই দিনগুলি যেমন আল্লাহর কাজ করতে হবে সেই সঙ্গে নিজেকে সুস্থ রাখতে হবে। সেজন্য আমাদের খাবারের তালিকায় অবশ্যই স্বাস্থ্যসম্মত খাবার রাখতে হবে।
রোজাদারের খাবার হিসেবে তালিকায় পানি, ফল, চিড়া, রুটি, ভাত, সবজি, ডাল, ডিম, হালকা খিচুড়ি রাখতে পারেন। মানসম্পন্ন হালিম শরীরের জন্য উপকারী হবে। এটি শক্তি বাড়ায়। বিরিয়ানি, তেহারির মতো খাবার রোজায় এড়িয়ে যাওয়া ভালো। তবে মাঝেমাঝে ইফতারির পর কম তেলযুক্ত তেহারি খাওয়া যেতে পারে।
সেহরিতে যে খাবার রাখতে পারেন
সেহরিতে শাক কম খেয়ে মুরগি মাংস, ডাল খাওয়া ভালো। সেহরির সময় না খেলে আমাদের দেহের বিপাকক্রিয়ায় বেশ পরিবর্তন আসতে পারে। এতে গ্লুকোজ ক্ষয় বেশি হয় বলে ক্লান্তি আসে। অল্প হলেও কিছু খাওয়া ভালো।
সেহরিতে মাংস ও ডিম খাওয়া সুবিধাজনক। এই সময়টাতে ঘন ডাল খাওয়া যেতে পারে। এছাড়া ছোট-বড় সবার জন্যই এক কাপ দুধ খাওয়া উচিত। কারণ, খাবারে চাহিদামতো প্রোটিন বা আমিষ না থাকলে শক্তির ঘাটতি দেখা দেবে। সেহরিতে পেট ভরে না খাওয়াই ভালো।
ইফতারে যেসব খাবার রাখতে পারেন
ইফতারের তাজা ফল বেশি খেতে হবে। শরবত বা ডাবের পানি, কাঁচা ছোলা, কম তেলে ভাজা ছোলা, পেঁয়াজু, বেগুনি অথবা আলুর চপ বা যে কোনো একটি, ভাজা মুড়ি অথবা চিড়া এবং ফল খাওয়া যেতে পারে। তবে যেদিন হালিম অথবা খিচুড়ি খাওয়া হবে সেদিন বেসনের বা ডালের তৈরি ভাজা খাবার এবং মুড়ি বা চিড়া বাদ দেওয়া ভালো। আবার নুডলস অথবা ফ্রায়েড রাইস খেলেও মুড়ি অথবা চিড়া বাদ দেওয়া উচিত।
সারাদিন না খাওয়ার ফলে স্বাভাবিকভাবেই শরীরে পানিশূণ্যতার সৃষ্টি হবে। তাই ইফতারিতে অবশ্যই বেশি করে পানি খেতে হবে। অনেকেই শরবত খেয়ে থাকেন। এক্ষেত্রে কম চিনি দিয়ে লেবুর রস মিশ্রিত শরবত শরীরের জন্য ভালো।
বেশি গরম পড়লে সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে। যেসব খাবার হজমে সমস্যা করে সেগুলো না খাওয়াই ভালো। কারণ রোজার সময় শরীরের এনজাইম যা হজম প্রক্রিয়ার মাধ্যমে তৈরি হয় সেটি বন্ধ থাকে।
রোজায় খেয়াল রাখুন খাদ্যাভ্যাসের প্রতি। স্বাস্থ্যকর খাবার খান, সুস্থ থাকুন। একটু বেখেয়ালে অস্বাস্থ্যকর খাবার খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়লে ইবাদত ও নিত্যদিনের কাজে মনোনিবেশ করতে সমস্যা হবে।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.