সংবাদ শিরোনাম
গোয়াইনঘাটে চালককে হত্যা করে মোটর সাইকেল ছিনতাই  » «   জৈন্তাপুরে ২ কেজি গাঁজাসহ আটক ১  » «   কোম্পানীগঞ্জে বজ্রপাতে স্কুল ছাত্রের মৃত্যু, বাবা আহত  » «   গোলাপগঞ্জের ঢাকা দক্ষিণে ট্রাক-সিএনজির সংঘর্ষে নিহত ১  » «   সুনামগঞ্জে হাওরে মাছ ধর‌তে গিয়ে বজ্রপাতে বাবা-ছে‌লের মৃত্যু  » «   ৫ দিনের রিমান্ডে রিশান ফরাজী  » «   লন্ডনের পথে প্রধানমন্ত্রী  » «   আসামে বন্যায় মৃত ২৭, বিপদসীমার ওপরে ব্রহ্মপুত্র ও শাখা নদী  » «   জাপানে আগুনে নিহত কমপক্ষে ২৩, বহু মানুষ নিখোঁজ  » «   সাবেক পাক প্রধানমন্ত্রী শহিদ আব্বাসিকে গ্রেপ্তার  » «   সিঙ্গাপুরে নেয়া হল রফিকুল ইসলাম মিয়াকে  » «   অশ্লীল ভিডিওচিত্র ধারন,ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে টাকা আদায় ! নারীসহ গ্রেপ্তার ৬  » «   রিফাতকে শিক্ষা দিতে চেয়েছিলেন বহুরূপী মিন্নি  » «   খাদ্য ঘাটতি পূরণ করেছি-প্রধানমন্ত্রী  » «   জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের  » «  

কানাইঘাটে স্ত্রীর পরকীয়ায় বাঁধা দেয়ায় স্বামীকে জবাই করে হত্যা

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::কানাইঘাটে পরকীয়া প্রেমের জেরে স্বামীকে জবাই করে নির্মম ভাবে হত্যা করেছে স্ত্রী ও তার পরকীয়া প্রেমিক। পুলিশ স্ত্রীকে আটকের পর তার স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দীর সূত্র ধরে হত্যাকান্ডের দু’দিন পর বুধবার ভোরে সেফটিক ট্যাংকির ভিতর থেকে স্বামী ফারুক আহমদ (৩০) এর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। 
এ হত্যাকান্ডটি ঘটেছে রবিবার দিবাগত রাত ২টার দিকে উপজেলার লক্ষীপ্রসাদ পশ্চিম ইউপির বাউরভাগ ২য় খন্ড গ্রামে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ফারুক আহমদের স্ত্রী ৪ সন্তানের জননী হোসনা বেগম (২৮) এর সাথে তার স্বামীর চাচাতো ভাই প্রতিবেশি মোস্তফা (২৭) এর পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক ছিল। স্ত্রীর হোসনা বেগমের পরকীয়ায় বাঁধা দেন স্বামী ফারুক আহমদ। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে স্ত্রী হোসনা ও তার পরকীয়া প্রেমিক মোস্তফা, ফারুককে খুন করার পরিকল্পনা করে। গত রবিবার গভীর রাথে ফারুক আহমদ যখন তার নিজ বসত ঘরে ঘুমিয়ে পড়েন। তখন স্ত্রী হোসনা বেগম, প্রেমিক মোস্তফা ও তাদের সহযোগীরা মিলে বসত ঘরের একটি কক্ষে ঘুমন্ত অবস্থায় গলা কেটে হত্যা করে ফারুককে। হত্যা করার পর তার রক্তাক্ত লাশ পার্শ্ববর্তী গোরকপুর গ্রামের প্রবাসী মাসুক আহমদের সেফটিক ট্যাংকিতে ফেলে দিয়ে মুখ ঢেকে রাখে। ফারুক আহমদের কোন সন্ধান না পেয়ে তার স্বজনরা স্ত্রী হোসনা বেগমকে ফারুক কোথায় রয়েছে জানতে চাইলে সে বলে গত রবিবার ভোরে উঠে তিনি কাজের উদ্দেশ্যে গেছেন, তারপর আর বাড়ী ফেরেনি।

ফারুককে খোঁজাখুজি করে কোথাও না পেয়ে গত মঙ্গলবার রাতে ফারুক আহমদের চাচা সমছুল হক কানাইঘাট থানায় একটি সাধারণ ডায়রী করতে আসলে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আব্দুল আহাদ ঘটনাটি গুরুত্ব দিয়ে তাৎক্ষণিক ফারুক আহমদের বাড়ীতে পুলিশ পাঠান।

থানার এসআই সুরঞ্জিত ঘটনাস্থলে গিয়ে ফারুক আহমদের বসত ঘরে ঢুকে দেখতে পান তার বিছানার খাঁটের উপর রক্তের দাগ ছড়িয়ে-ছিটিয়ে রয়েছে, ঘরের মেঝেতেও রক্তের দাগ ও পায়ের চিহ্ন পেয়ে তিনি তার স্ত্রী হোসনা বেগমকে আটক করে থানায় নিয়ে আসেন। থানায় নিয়ে আসার পর হোসনার জবানবন্দীর প্রেক্ষিতে থানার ওসি আব্দুল আহাদ সহ একদল পুলিশ আজ বুধবার ভোরে জবাইকৃত ফারুক আহমদের লাশ সেফটিক ট্যাংকির ভিতর থেকে উদ্ধার করেন।

থানার ওসি আব্দুল আহাদ জানিয়েছেন, ফারুক আহমদকে তার স্ত্রী হোসনা বেগম ও তার পরকীয়া প্রেমিক মোস্তফা মিলে জবাই করে হত্যা করেছে। স্ত্রী হোসনা বেগমকে গ্রেফতার করা হয়েছে। হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত মোস্তফা সহ তার সহযোগীদের গ্রেফতার করতে পুলিশি অভিযান চলছে। স্ত্রীর পরকীয়ায় বাঁধা দেওয়ায় এ হত্যাকান্ড সংঘটিত হয়েছে বলে তিনি জানান।

থানায় হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে এবং নিহতের লাশ ময়না তদন্তের জন্য সিলেট মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.