সংবাদ শিরোনাম
১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারির ফল প্রকাশ  » «   চার মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব রদবদল  » «   কৃষক বাঁচাতে চাল আমদানি বন্ধ হচ্ছে  » «   জঙ্গী-সন্ত্রাস ও মাদকের হাত থেকে দেশকে রক্ষা করতে দেশবাসীর দোয়া চাইলেন প্রধানমন্ত্রী  » «   আগামী ২৮ মে সরকারি চাকুরেদের বেতন-ভাতা  » «   যৌনহয়রানি রোধে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ‘অভিযোগ বক্স’ বসানোর নির্দেশ  » «   চুরি করে অন্য দেশের অধিবাসী,দায় পরে বাংলাদেশি প্রবাসীদের ঘাড়ে  » «   মেয়েকে বাঁচাতে দিনমজুর বাবার আবেদন  » «   প্রথম সন্তানের জন্ম দিলেই মায়েরা পাবেন নগদ টাকা  » «   মানুষের চোখে ৫৭৬ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা শক্তি!  » «   মৃত্যুর কথা আগাম টের পান যে তরুণী!  » «   আবারও প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন মোদি, বুথফেরত জরিপ  » «   পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে পরপারে পাড়ি দিলেন অভিনেত্রী মায়া ঘোষ  » «   কুলাউড়ায় প্রতিপক্ষের ওপর হামলা,দুই নারীসহ আহত ৩  » «   সিলেট জেলা ও দায়রা জজ আদালত চত্বর থেকে ভূয়া আইনজীবী আটক  » «  

ছোট্ট রুমীকে বাঁচাতে অসহায় বাবার আকুতি

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::চার বছরের শিশু আরজিনা আক্তার রুমি। এই বয়সেই তার হার্টে ব্লক ধরা পড়েছে। ১০ মাস আগে তার এই রোগ ধরা পড়ে। ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পর রাজধানীর মিরপুর হার্ট ফাউন্ডেশনে পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে প্রথমিক চিকিৎসার পর বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক পরামর্শ দেন, রুমীকে ভারতের চেন্নাইয়ে নিয়ে চিকিৎসা করাতে।
রুমীর বাবা আনার মিয়া পেশায় রংমিস্ত্রী। তিনি জানান, ভারতের চেন্নাই নিয়ে অপারেশন করাতে ২ লাখ টাকা লাগবে বলে অনেকেই তাকে জানান। পরে তিনি অনেককে ধরে সেই দুই লাখ টাকা সংগ্রহ করে গত ২১ নভেম্বর সড়কপথে রুমীকে নিয়ে চেন্নাই খ্রীষ্টিয়ান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যান। সঙ্গে ছিলেন তার স্ত্রী রোকসানাও।
আনার মিয়া জানান, হাসপাতালে ভর্তির পর বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক অনুপ জর্জ অ্যালেক্স পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার পর অপারেশন করার কথা বলেন। বিপত্তি বাধে অপারেশনের বিল দেওয়ার সময়।  হাসপাতাল থেকে জানানো হয়, অপারেশন করতে ৪ লাখ খরচ হবে। পরে রোগীর অভিভাবকের অর্থ সংকটের কথা জানতে পেরে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ থেকে কিছু টাকা ছাড় দেওয়া হয়। সেই ছাড় দিয়েও সাড়ে ৩ লাখ টাকার কমে অপারেশন হবে না বলে জানানো হয়। পরে শিশু রুমীকে নিয়ে দেশে ফিরে আসতে বাধ্য হন তিনি।
আনার মিয়ার আরও জানান, ভারতে যাতায়াত করতে এরই মধ্যে তার ৮০ হাজার টাকা খরচ হয়ে গেছে। নতুন করে চার-পাঁচ লাখ টাকা সংগ্রহ করা তার পক্ষে কোনোভাবেই সম্ভব নয়। তাই শিশুর জীবন বাঁচাতে হৃদয়বান ব্যক্তিদের কাছে সহায়তা কামনা করেছেন তিনি। মাত্র ৫ লাখ টাকা হলেই শিশুকে ভারতে নিয়ে চিকিৎসা করাতে পারবেন বলে জানান তিনি।
যোগাযোগ ও সহায়তা পাঠানোর ঠিকানা:
আনার মিয়া (বিকাশ নম্বর) : ০১৮৬০৫০০১৫১ ও ০১৯৯৬০৬৪৯৩০
হিসাব নম্বর : ০২০০০১৩২৫০১১০, অগ্রণী ব্যাংক, ছোট বাজার (প্রধান শাখা) ময়মনসিংহ।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.