সংবাদ শিরোনাম
এক প্রেমিককে পেতে দুই যুবতীর জোট, একজনের স্বামীকে হত্যা  » «   ‘গুজব ছড়ালে কঠোর ব্যবস্থা’  » «   রওশনের বিবৃতি বিশ্বাসযোগ্য নয় বললেন কাদের  » «   প্রস্তুতি ম্যাচে সহজ জয় বাংলাদেশের  » «   বৃটেনের নতুন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন  » «   মৌলভীবাজারের জুড়ীতে স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা  » «   নবীগঞ্জে দুই বখাটের দণ্ড  » «   সন্দেহে কাউকে গণপিটুনী না দিয়ে পুলিশের কাছে দিন-বালাগঞ্জ থানা পুলিশ  » «   গোলাপগঞ্জে যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার  » «   হযরত শাহজালাল (রহ.) এর ৭০০তম ওরস শুরু  » «   ইয়াবা সেবনের দায়ে সুনামগঞ্জে এপিপিসহ দুইজনকে তিন মাসের কারাদণ্ড  » «   ফাহাদের বাবা নেই”মায়ের অন্যত্র বিয়ে”মামার খোঁজে বড়লেখায়,তিনি ও তার আপন মামা নন ,অতপর….  » «   কাউন্সিলর রেবেকা আক্তার লাকির উপর সন্ত্রাসী হামলা  » «   বিমানবন্দর সড়ক থেকে গরুসহ মাইক্রোবাস আটক  » «   দক্ষিণ সুরমায় চাচাতো ভাইকে খুন  » «  

৮১ বছর পর মায়ের দেখা পেলেন মেয়ে

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::মা ছাড়াই কেটে গেছে জীবনের ৮১ বছর। এর চেয়ে বড় দুঃখ আর কী হতে পারে? চেয়েছেন, মৃত্যুর আগে যেন মাকে একবারের জন্য হলেও দেখতে পান। অবশেষে ৮১ বছর বয়সে প্রথমবারের মত নিজের মায়ের দেখা পেয়েছেন এইলিন ম্যাকেন।
এইলিন ম্যাকেন বড় হয়েছেন আয়ারল্যান্ডের রাজধানী ডাবলিনের একটি অনাথ আশ্রমে। ১৯ বছর বয়স থেকে নিজের মাকে খোঁজা শুরু করেন তিনি।
শুক্রবার (১০ মে) বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এইলিন ম্যাককেনের মায়ের বয়স এখন ১০৩ বছর। তিনি থাকেন স্কটল্যান্ডে।
২০১৮ সালে আইরিশ রেডিও চ্যানেল আরটিইর একটি অনুষ্ঠানে মায়ের সংবাদ পাওয়ার জন্য আবেদন জানিয়েছিলেন এইলিন। চলতি বছরের শুরুর দিকে একজন চিকিৎসক জানান, তার মাকে স্কটল্যান্ডে দেখেছেন তিনি।
এ খবর জানতে পেরে এইলিন এপ্রিল মাসেই স্কটল্যান্ডে ছুটে যান। আর এভাবেই ৮১ বছর পর প্রথমবারের মতো নিজের মাকে দেখেন তিনি। সেখানে মায়ের সঙ্গে তিন দিন কাটান এইলিন। মায়ের সঙ্গে কাটানো এই তিনটি দিনকে জীবনের সেরা তিন দিন বলে অভিহিত করেছেন তিনি।
এইলিন জানান, স্কটল্যান্ডে গিয়ে তিনি যখন প্রথম তার মা এলিজাবেথকে দেখেন, তখন তিনি (এলিজাবেথ) খবরের কাগজ পড়ছিলেন।
এইলিন বলেন, আমি তাকে বলি যে আমরা আয়ারল্যান্ড থেকে এসেছি এবং তখন মা বলেন, আমার জন্ম হয়েছিল আয়ারল্যান্ডে। তখন আমি বলি, তুমি কি জান আমি তোমার মেয়ে? এ কথা শুনে মা আমার দিকে তাকায় এবং হাত ধরে।
তিন সন্তানের জননী এইলিন জানান, নিজের মাকে খুঁজে পাওয়ার পাশাপাশি তিনি জানতে পেরেছেন তার দু’জন সৎ ভাইও আছে।
এইলিন বলেন, আপনি ধারণাও করতে পারবেন না যে আমার জীবন কতটা বদলে গেছে। আমি অনেক অনেক খুশি।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.