সংবাদ শিরোনাম
আরো ২৭২ ব্রিটিশ নাগরিক সিলেট ত্যাগ করলেন  » «   সিলেটে নতুন করোনা রোগী শনাক্ত ২৫ সারা বিভাগে আক্রান্ত ৬৬৫  » «   করোনায় আক্রান্ত ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী  » «   মিস ইউনিভার্স নিউজিল্যান্ড ফাইনালিস্টের রহস্যময় মৃত্যু  » «   সিলেটের মসজিদে মসজিদে পবিত্র ঈদুল ফিতরের জামায়াত অনুষ্ঠিত  » «   ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সিলেট বিভাগীয় অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি লুৎফুর  » «   চৌকিদেখী হেল্পিং হ্যান্ডস চ্যারিটির ঈদ উপহার ও নগদ অর্থ বিতরণ  » «   নবীগঞ্জের আউশকান্দিতে ভাতিজার হাতে চাচা খুন  » «   করোনা স্পট হয়ে উঠেছে ওসমানীনগর ৪৮ ঘন্টায় আক্রান্ত ৬: ইউএনও এসিল্যান্ড সাংবাদিক সহ ৩০ জনের নমুনা সংগ্রহ   » «   আজ চাঁদ দেখা যায়নি, সোমবার ঈদ  » «   জগন্নাথপুরের পাইলগাঁও ইউনিয়ন বিএনপির ত্রাণ বিতরণ  » «   জগন্নাথপুরে সরকারি ভূমি দখল:হামলায় মহিলা সহ আহত-৭  » «   বিশ্বম্ভরপুরের ধনপুর ইউপি চেয়ারম্যান কর্তৃক কার্ডধারীদের মাঝে ভিজিডি’র চাল ওজনে কম দেয়ার অভিযোগ  » «   সিলেটে বিএসএফের গুলিতে বাংলাদেশি নিহত  » «   সিলেটে করোনা উপসর্গ নিয়ে এক চিকিৎসকের মৃত্যু:স্বাস্থ্যবিধি মেনে দাফন সম্পন্ন  » «  

ইয়াহিয়া ট্রাভেল এজেন্সির মাধ্যমে ইতালি যাবার পথে ভূমধ্যসাগরে নৌকাডুবি: নিহতদের বাড়িতে শোকের ছায়া

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::তিউনিসিয়া উপকূলে নৌকাডুবিতে নিহত বাংলাদেশিদের বাড়িতে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। বৃহস্পতিবার ইতালি যাবার পথে ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিতে গিয়ে মারা যান অন্তত ৩৭ জন। এদের মধ্যে ৫ জনের বাড়ি সিলেট এবং একজনের বাড়ি মৌলভীবাজারে। প্রতারণার অভিযোগে ইয়াহিয়া ট্রাভেল এজেন্সির মালিক এনাম আহমেদের বিচার দাবি করেছেন স্বজনরা।
একটু ভালো থাকার আশায় ঋণ করে সেজো সন্তান আহমদ হোসেনকে ইতালি পাঠানোর ব্যবস্থা করেন এক বাবা। কিন্তু দালাল চক্রের খপ্পরে পড়ে ভূমধ্যসাগরের তিউনিশিয়া উপকূলে নৌকাডুবিতে প্রাণ হারান হোসেন। সন্তানের শোকে বারবার মূর্ছা যাচ্ছেন বাবা।
একই অবস্থা লিবিয়া থেকে সাগরপথে ইতালি যাওয়ার পথে নৌকা ডুবেতে নিহত বাংলাদেশি সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জের লিটন আহমদ, আবদুল আজিজ, আফজাল মাহমুদ ও কামরান আহমদের বাড়িতে। একসঙ্গে এলাকার এতগুলো তরুণকে হারিয়ে শোকার্ত এলাকাবাসীও।
স্বজনরা জানান, গত ৭ ডিসেম্বর সিলেটের রাজা ম্যানসনে ইয়াহিয়া ট্রাভেলসের মাধ্যমে প্রত্যেকে ৭ লাখ টাকা চুক্তিতে ইতালিতে যাওয়ার উদ্দেশে দেশ ত্যাগ করেন। ওইসময় নৌকা দিয়ে নেয়ার কথা তাদের বলা হয়নি। বেশ কয়েকটি দেশ ঘুরানোর পর প্রায় চারমাস লিবিয়াতে তাদের বন্দি রাখা হয়। এ ঘটনায় ওই ট্রাভেল এজেন্সির মালিক এনাম আহমেদের বিচার দাবি করেন তারা।
কাজের সন্ধানে বিদেশ পাঠানোর ক্ষেত্রে স্বজনদের আরো সতর্ক হবার পরামর্শ দিয়ে, সরকারিভাবে ট্রাভেল এজেন্সিগুলোকে নিয়মিত নজরদারি করার দাবি স্থানীয় জনপ্রতিনিধির।
গত বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নৌকায় চড়ে লিবিয়া থেকে অবৈধভাবে ইতালি যাওয়ার পথে ভূমধ্যসাগরের তিউনিসিয়া উপকূলে নৌকাডুবিতে ৩৭ জন বাংলাদেশি মারা যান।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.