সংবাদ শিরোনাম
জগন্নাথপুরে হাওর থেকে এক অঞ্জাতনামা ব্যক্তির অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার  » «   জগন্নাথপুরে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত ১ ব্যক্তি: মোট ১০, সুস্থ ৬, আইসোলেশনে ৪  » «   দোয়ারাবাজারে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১ আহত ১০  » «   সিলেটে দক্ষিণ সুরমায় দু’দল বাস শ্রমিকের মধ্যে দেড় ঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষ  » «   করোন:এক দিনে ৯৩ জন আক্রান্ত সিলেট বিভাগে:মোট ১০৪০ জন  » «   ভূমধ্যসাগরে ট্রলার ডুবিতে নিহত ৩৬: এ মামলার প্রধান আসামি রফিকুল গ্রেফতার  » «   সিলেট থেকে বাস চলাচল শুরু  » «   ছাতকে করোনায় আক্রান্ত হয়ে এক ঔষধ ব্যবসায়ীর মৃত্যু  » «   সুনামগঞ্জে চেয়ারম্যানের অপসারনের দাবীতে অভিযোগ দায়ের  » «   সুনামগঞ্জে র‍্যাব ক্যাম্পের ১৬ জন সদস্যসহ মোট ২১ জন করোনায় আক্রান্ত  » «   জগন্নাথপুরে মানসিক রোগী দীর্ঘ এক বছর পর থানা পুলিশের সহযোগিতায় ফিরে পেল পরিবার  » «   রানীগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের ১৯-২০ বছরের উন্মুক্ত বাজেট পেশ  » «   জগন্নাথপুরে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে আরেক জন  » «   জগন্নাথপুরে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা জরিমানা আদায়  » «   গোয়াইনঘাটে এসএসসিতে পাশের হার ৭৯.২৭ জিপিএ ৪৫ জন  » «  

৭ম শ্রেণির ছাত্রীর অনশন, অতঃপর

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::উপজেলার বেতুয়ান গ্রামে বিয়ের দাবিতে প্রেমিক জাব্বার হোসেনের (১৮) বাড়িতে আমরণ অনশনে বসেছিল ৭ম শ্রেণির এক ছাত্রী। জাব্বার গ্রামের জাহাঙ্গীর হোসেনের পুত্র। অনশনে বসা ৭ম শ্রেণির ছাত্রী মুন্নি (১৪) পার্শ্ববর্তী আদর্শগ্রামের মুকুল হোসেনের মেয়ে ও বিএলবাড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণির ছাত্রী। জাব্বারের পরিবারের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, জাব্বার ও মুন্নির দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। সম্প্রতি জাব্বার মুন্নিকে এড়িয়ে চলার চেষ্টা করলে মুন্নি শনিবার সকাল ১০টায় বিয়ের দাবিতে জাব্বারের বাড়ির উঠোনে অবস্থান নেয়। বিভিন্ন ভাবে তাকে বোঝানোর চেষ্টা করে সবাই ব্যর্থ হয়। এদিকে সন্ধ্যা ঘনিয়ে আসলে জাব্বারের মা বাধ্য হয়ে মুন্নিকে তার ঘরে নিয়ে তুলেন এবং রাতে তার কাছে রেখে মুন্নির পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। পরে দুই পরিবারের সম্মতিতে ছেলেমেয়ে উভয়ের বয়স কম থাকায় গতকাল সকালে তাদের বিয়ে করানোর জন্য পাবনা কোর্টে নিয়ে যাওয়া হয়।

সর্বশেষ অবস্থা জানতে তাদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করলে তাদের মুঠোফোন বন্ধ পাওয়া যায়। জাব্বার বিএলবাড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ে ৯ম শ্রেণি পর্যন্ত পড়াশোনা করেছে ও বর্তমানে রাজশাহীতে একটি বেসরকারি ফার্মে চাকরি করে। এ বিষয়ে ইউপি সদস্য মো. আক্কাস আলি বলেন, আমি এ বিষয়ে কিছু জানি না। কেউ আমাকে কিছু জানায়নি।  উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা হাসনাত জাহান বলেন, এই সম্পর্কে আমি কোনো অভিযোগ পাইনি।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.