সংবাদ শিরোনাম
১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারির ফল প্রকাশ  » «   চার মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব রদবদল  » «   কৃষক বাঁচাতে চাল আমদানি বন্ধ হচ্ছে  » «   জঙ্গী-সন্ত্রাস ও মাদকের হাত থেকে দেশকে রক্ষা করতে দেশবাসীর দোয়া চাইলেন প্রধানমন্ত্রী  » «   আগামী ২৮ মে সরকারি চাকুরেদের বেতন-ভাতা  » «   যৌনহয়রানি রোধে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ‘অভিযোগ বক্স’ বসানোর নির্দেশ  » «   চুরি করে অন্য দেশের অধিবাসী,দায় পরে বাংলাদেশি প্রবাসীদের ঘাড়ে  » «   মেয়েকে বাঁচাতে দিনমজুর বাবার আবেদন  » «   প্রথম সন্তানের জন্ম দিলেই মায়েরা পাবেন নগদ টাকা  » «   মানুষের চোখে ৫৭৬ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা শক্তি!  » «   মৃত্যুর কথা আগাম টের পান যে তরুণী!  » «   আবারও প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন মোদি, বুথফেরত জরিপ  » «   পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে পরপারে পাড়ি দিলেন অভিনেত্রী মায়া ঘোষ  » «   কুলাউড়ায় প্রতিপক্ষের ওপর হামলা,দুই নারীসহ আহত ৩  » «   সিলেট জেলা ও দায়রা জজ আদালত চত্বর থেকে ভূয়া আইনজীবী আটক  » «  

পাকিস্তানের পাশে আইএমএফ, দৈন দশা হটাতে দিচ্ছে ৬০০ কোটি ডলার ঋণ

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::মৌলবাদীদের উত্থানের সঙ্গে সঙ্গে ধ্বংস হয়ে গেছে পাকিস্তানের অর্থনীতি। বর্তমানে খাদের কিনারায় রয়েছে দেশটি। ভক্সগুর অর্থনীতি ক্রমশ আরও ভক্সগুর হয়ে উঠছে। এমন অবস্থায় দেশটির পাশে এসে দাঁড়িয়েছে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ)। ঘোষণা দিয়েছে খাঁদের কিনারা থেকে পাকিস্তানের অর্থনীতিকে রক্ষা করতে দেশটিকে ৬০০ কোটি ডলার সাহায্য দেবে তারা। বহুদিন ধরেই পাকিস্তান এ অর্থের জন্য আবেদন করে আসছিল। দেউলিয়া হওয়া থেকে বাঁচাতে তাই দেশটিকে এবার বিশাল অর্থের এই বেইলআউট দেয়া হচ্ছে। যদিও এখনো এ সহায়তা পাকিস্তান পাবে কিনা সে বিষয়ে আইএমএফের ব্যবস্থাপকদের অনুমতি লাগবে। এ খবর দিয়েছে আল-জাজিরা।

চরম অর্থনৈতিক সংকটের মধ্যে রয়েছে পাকিস্তান। বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ একেবারেই কম। এছারা, চরম মৌলবাদের কারণে কমে গেছে দেশটির প্রবৃদ্ধিও। ফলে অর্থনৈতিক যে সংকট দেশটিতে সৃষ্টি হয়েছে তা সামলাতে এখন আইএমএফের সাহায্য চায় পাকিস্তান। এক বিবৃতিতে আইএমএফ জানিয়েছে, নিস্প্রভ প্রবৃদ্ধি, উচ্চ মূল্যস্ফীতি, ঋণে জর্জরিত নাজুক পাকিস্তান অর্থনৈতিকভাবে ভীষণ চ্যালেঞ্জিং অবস্থায় রয়েছে।  তবে বরাবরের মত এবারও কঠিন শর্ত দিয়েছে আইএমএফ। বিশ্লেষকরা বলছেন, এর ফলে পাকিস্তানকে কল্যানরাষ্ট্র গঠনের মত চিন্তা কখনোই বাস্তবায়িত হবে না। ক্ষমতায় বসেই বন্ধুরাষ্ট্রগুলোর কাছে হাত পাততে হয়েছে ইমরান খানকে। কিন্তু তাতেও অবস্থার অবনতি হওয়ায় এবার বাধ্য হয়েই আইএমএফের কঠিন ঋণ নিতে হচ্ছে দেশটিকে।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.