সংবাদ শিরোনাম
এক প্রেমিককে পেতে দুই যুবতীর জোট, একজনের স্বামীকে হত্যা  » «   ‘গুজব ছড়ালে কঠোর ব্যবস্থা’  » «   রওশনের বিবৃতি বিশ্বাসযোগ্য নয় বললেন কাদের  » «   প্রস্তুতি ম্যাচে সহজ জয় বাংলাদেশের  » «   বৃটেনের নতুন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন  » «   মৌলভীবাজারের জুড়ীতে স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা  » «   নবীগঞ্জে দুই বখাটের দণ্ড  » «   সন্দেহে কাউকে গণপিটুনী না দিয়ে পুলিশের কাছে দিন-বালাগঞ্জ থানা পুলিশ  » «   গোলাপগঞ্জে যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার  » «   হযরত শাহজালাল (রহ.) এর ৭০০তম ওরস শুরু  » «   ইয়াবা সেবনের দায়ে সুনামগঞ্জে এপিপিসহ দুইজনকে তিন মাসের কারাদণ্ড  » «   ফাহাদের বাবা নেই”মায়ের অন্যত্র বিয়ে”মামার খোঁজে বড়লেখায়,তিনি ও তার আপন মামা নন ,অতপর….  » «   কাউন্সিলর রেবেকা আক্তার লাকির উপর সন্ত্রাসী হামলা  » «   বিমানবন্দর সড়ক থেকে গরুসহ মাইক্রোবাস আটক  » «   দক্ষিণ সুরমায় চাচাতো ভাইকে খুন  » «  

‘নিখোঁজ’ ৩৯ বাংলাদেশির ২২ জনই সিলেটের!২৩টি প্রতারক ট্রাভেল এজেন্টকে চিহ্নিত করা গেছে

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::দূতাবাসের পাঠানো রিপোর্টের উদ্বৃতি দিয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রী জানিয়েছেন দুর্ভ্যগ্যজনক হলেও সত্য যে সাগরে হারিয়ে যাওয়া ৩৯ বাংলাদেশির ২২ জনের বাড়িই বৃহত্তর সিলেটে। সিলেট-১ আসনের নির্বাচিত সংসদ সদস্য হওয়ার পর পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পাওয়া মোমেন বলেন, দুষ্ট দালাল চক্রের কুবুদ্ধিতে ওই সম্ভাবনাময় তরুণরা প্রাণ হারিয়েছেন। তারা যে টাকা দালালকে দিয়েছেন। ৪ জনের টাকা একত্র করলে ৩২ লাখ টাকা হয়। এই টাকা দিয়ে দেশে ভাল দোকান করা যায়। যৌথ ওই বিনিয়োগে তারা দেশেই ভালভাবে বাঁচতে পারতেন- আফসোস করেন মন্ত্রী। তার দেয়া তথ্য মতে, নিহত সিলেটের ২২ হতভাগা হলেন- আবদুল আজিজ, ফেঞ্চুগঞ্জ, সিলেট; আহমদ ফেঞ্চুগঞ্জ, সিলেট; লিটন আহমেদ, ফেঞ্চুগঞ্জ, সিলেট; খোকন, বিশ্বনাথ, সিলেট; আফজাল হোসেন, গোলাপগঞ্জ, সিলেট; মমিন আহমেদ, বিশ্বনাথ, সিলেট; দিলাল আহমেদ, বিশ্বনাথ, সিলেট; কাশেম, গোলাপগঞ্জ, সিলেট; মৌলানা মাহবুবুর রহমান, সুনামগঞ্জ; জিল্লুর রহমান, বাংলাবাজার, সিলেট; কামরান আহমেদ মারুফ, সিলেট; রুকন আহমেদ, বিশ্বনাথ, সিলেট; নাজির আহমেদ, সুনামগঞ্জ; হাফিজ শামিম আহমেদ, মৌলভীবাজার; আয়াজ আহমেদ, ফেঞ্চুগঞ্জ, সিলেট; ফাহাদ আহমেদ, বড়লেখা, মৌলভীবাজার, সুজন আহমেদ, বিয়ানীবাজার, সিলেট; ইন্দ্রজিত, সিলেট; জুয়েল, বড়লেখা সিলেট (মৌলভীবাজার হওয়ার কথা); মুক্তাদির, হবিগঞ্জ; শোয়েব, বিয়ানীবাজার, সিলেট এবং সাজু, সিলেট।

দালাল চক্রের বিষয়ে জীবিতদের কাছ থেকে দূতাবাস যে তথ্য পেয়েছে তার সূত্র ধরে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন বলেন, নোয়াখালীর তিন ভাইয়ের একটি চক্র এবং সিলেটের বিভিন্ন ফ্রড (প্রতারক) ট্রাভেল এজেন্সিগুলোর প্রতারণার তথ্য পেয়েছেন তারা। ওই দালাল প্রতারক চক্রের সদস্যদের আইনের আওতায় নিয়ে আসা এবং তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার অঙ্গীকার করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সিলেটে ২৩টি প্রতারক ট্রাভেল এজেন্টকে চিহ্নিত করা গেছে। পুলিশ অনেকটাই সিলগালা করে দিয়েছে। প্রতারকদের ধরতে অভিযান চলছে। মন্ত্রী বলেন, ‘উদ্ধার হওয়া বাংলাদেশিদের কাছ থেকে জানা গেছে, ওই ভিকটিমদের চার থেকে ছয় মাস আগে দুবাই হয়ে মিশরের আলেকজান্দ্রিয়া নিয়ে যাওয়া হয়। এতে মোটা অংকের অর্থ হাতিয়ে নেয় দালালরা। একেক জনের কাছ থেকে প্রায় ৮ লাখ টাকা করে নেয়া হয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, লিবিয়ায় দালালদের  বন্দি শিবিরে রেখেও বর্বর নির্যাতন চালিয়ে অনেকের কাছ থেকে অতিরিক্ত অর্থ আদায় করা হয়েছে।

মন্ত্রী আরও জানান, নির্যাতন সইতে না পেরে অনেকে প্রদেয় অর্থের মায়া ছেড়ে দেশে ফিরতে চাইতো। কিন্তু দালালরা সেই পথও বন্ধ করে দিয়েছিল। পালাক্রমে ওই বন্দি শিবির পাহারা দিতো। এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, দালাল এবং ট্রাভেল এজেন্টদের প্রতারণার বিষয়টি তিনি আগেও শুনেছেন। কিন্তু বিমান কোম্পানী এবং ইমিগ্রেশন পুলিশের সম্পৃক্ততার বিষয়টি তার কাছে নতুন লাগছে। ১ কোটি ২০ লাখ বাংলাদেশি বিদেশে থাকেন। কত লোক আসা যাওয়া করেন। ইমিগ্রেশন পুলিশকেই সব সামলাতে হয়। ফলে এতে তাদের দায় কতটা সেটি বিশ্লেষণের বিষয়-এমনটাই মনে করেন মন্ত্রী। তবে তিনি বলেন, দায় সবার। তিনি নিজেও এ দায় থেকে মুক্ত নন। মন্ত্রী জোর দেন সবার সচেতনতার ওপর। গণমাধ্যমকে এ নিয়ে আরও সচেতনতা তৈরির পরামর্শ দেন। জীবিত বা মৃত উদ্ধার হওয়া বাংলাদেশিদের দেশে ফেরত আনার বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, একজনের মরদেহ বাংলাদেশি বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। তার নাম উত্তম কুমার দাস। শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার ভূমকাড়া (পোস্ট অফিস চকদা বাজার) গ্রামের গৌতম দাসের ছেলে তিনি। তার ভাইকে ছবি পাঠানোর পর তিনি শনাক্ত করেছেন। তার লাশ দেশে ফেরানোর প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। জীবিতরা চাইলে তাদের বিষয়ে আরও খোজ খবর নিয়ে ফেরানো হবে।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.