সংবাদ শিরোনাম
সিলেটে বন্যা:নগরীর উপশহরসহ অনেক এলাকা বাসাবাড়ি পানিতে নিমজ্জিত  » «   সূচকে আরো দুই ধাপ পেছালো বাংলাদেশি পাসপোর্টের মান  » «   সিলেটে ঘণ্টায় ৪৫-৬০ কিলোমিটার বেগে অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝড়ো হাওয়া বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে  » «   ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীকে মিথ্যাবাদী বললেন রাহুল গান্ধী  » «   অবশেষে মাস্ক পরলেন ট্রাম্প  » «   অবৈধ ভারতীয় বিড়ি নিয়ে সমঝোতা বিড়িসহ ইউপি সদস্য আটক  » «   সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে এক শিশুর মৃত্যু  » «   সুনামগঞ্জের তাহিরপুরের শনির হাওর থেকে এক নিখোঁজ শ্রমিকের লাশ উদ্ধার  » «   জগন্নাথপুরে আরো ২জন মহিলা করোনায় পজেটিভ, মোট আক্রান্ত ৯৮: সুস্থ ৮৩  » «   জগন্নাথপুর ২য় দফা বন্যা,পানিবন্দী হাজার হাজার মানুষ  » «   সিলেটে ট্যাঙ্ক লরি শ্রমিক নেতা খুন  » «   সিলেটে বন্যা:দ্বিতীয় দফায় পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন অর্ধলক্ষাধিক মানুষ  » «   সুনামগঞ্জে সুরমা নদীর পানি বিপদ সীমার ৫৪ সেঃ মিটার ও ছাতকে ১৬৬ সেন্টিঃ উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে  » «   ইতালিফেরত ১৪৭ জন হজক্যাম্পে কোয়ারেন্টিনে  » «   করোনা নিয়ে বাংলাদেশ থেকে আসা ব্যক্তি জ্বর-কাশি নিয়ে ইতালি ঘুরে বেড়ান!  » «  

পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে পরপারে পাড়ি দিলেন অভিনেত্রী মায়া ঘোষ

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে পরপারে পাড়ি দিলেন অভিনেত্রী মায়া ঘোষ। রোববার (১৯ মে) সকাল ৮টা ৪৫ মিনিটে তিনি মারা গেছেন বলে নিশ্চিত করেছেন তার পুত্র দীপক ঘোষ। যশোর কুইন্স হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন তিনি।
তিনি দুরারোগ্য ব্যাধি ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই করছিলেন দীর্ঘদিন ধরে। তিনি একাধারে মঞ্চ, নাটক ও চলচ্চিত্রের অভিনেত্রী ছিলেন। তার দুই পুত্র দীপক ঘোষ ও প্রদ্যুত ঘোষ জানান, ২০০০ সালে তাদের মায়ের শরীরে প্রথম ক্যানসার ধরে পড়ে।
২০০১ সালের ফেব্রুয়ারিতে কলকাতার সরোজগুপ্ত ক্যানসার হাসপাতালে চিকিৎসা শুরু হয়। ধারাবাহিকভাবে চলে চিকিৎসা। ২০০৯ সালের দিকে অনেকটা সুস্থ হয়ে ওঠেন। এরপর কিডনি, লিভার ও হাঁটুর সমস্যা দেখা দেয়। তারও চিকিৎসা চলছিল।
২০১৮ সালের অক্টোবর মাসে আবারও ক্যানসার ধরা পড়ে। পুনরায় কলকাতার সরোজগুপ্ত ক্যানসার হসপিটালে নেয়া হয় চলতি বছরের জানুয়ারিতে। সেখান থেকে ফিরে পুনরায় মার্চে যাওয়ার কথা বলা হয়। ১৩ মার্চ শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। এরপর ২২ মার্চ কলকাতায় নেয়া হয়। শারীরিক অবস্থার খুব বেশি উন্নতি হয়নি।
মায়া ঘোষও দেশে ফেরার জন্য ব্যাকুল ছিলেন। একপর্যায়ে গত ১৫ এপ্রিল তাকে দেশে ফিরিয়ে আনা হয়। শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে যশোর কুইন্স হসপিটালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন মায়া ঘোষ।
 ১৯৪৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর যশোরের মণিরামপুর উপজেলার প্রতাপকাটি গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন মায়া ঘোষ। তার বাবার নাম শংকর প্রসাদ গাঙ্গুলি। পরবর্তীতে একই উপজেলার মাছনা-খানপুর গ্রামের দিলীপ ঘোষের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন।
১৯৮৪ সালে তারা ঢাকায় স্থায়ীভাবে বসবাস শুরু করেন। এর আগে ১৯৮১ সালে ‘পাতাল বিজয়’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে অভিনয় শুরু করেন মায়া ঘোষ। সর্বশেষ ২০১৬ সালে এটিএন বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘ডিবি’-তে অভিনয় করেছেন।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.