সংবাদ শিরোনাম
সংসদে যাওয়ার ব্যাখ্যা দিলেন তারেক রহমান  » «   নুসরাতের কবরে গিয়ে শপথ নিয়েছিলাম ন্যায়বিচারে লড়বো: ব্যারিস্টার সুমন  » «   রাজনীতিতে সক্রিয় হচ্ছেন এরশাদের সাবেক স্ত্রী বিদিশা!  » «   ডিআইজি মিজান কি দুদকের চেয়েও শক্তিশালী : আপিল বিভাগ  » «   ওসি মোয়াজ্জেম গ্রেফতার  » «   সোহেল তাজের ভাগ্নেকে প্রেমের জেরে অপহরণের অভিযোগ  » «   ১৩ বছর বয়সে আটক মুর্তজার মৃত্যুদণ্ড বাতিল করছে সৌদি আরব!  » «   বাসায় আটকে দেহব্যবসা, কান্না শুনে ২ নারীকে উদ্ধার  » «   এখনও অনেক কিছু বাকি :মেসি  » «   স্ত্রীকে বোন বানিয়ে একাধিক বিয়ে, অতঃপর…  » «   বাবা দিবস আজ  » «   জগন্নাথপুরে পালাক্রমে দুই শিক্ষক ধর্ষণ করে ছাত্রীকে এখন সে অন্তঃসত্ত্বা-পিতার দায়িত্ব কে নেবে  » «   শুরুতে বেকায়দায় মুমিন চৌধুরী  » «   দুই কোটি টাকার গাড়ির তেল কিনতে হাঁস-মুরগি চুরি  » «   খালেদার মুক্তি বিষয়ে করণীয় নির্ধারণে স্থায়ী কমিটির জরুরী বৈঠক  » «  

প্রথম সন্তানের জন্ম দিলেই মায়েরা পাবেন নগদ টাকা

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::প্রথম সন্তান সম্ভব্য হলেই মায়েরা পাবেন হাজার টাকা। আধার কার্ডসহ নিজস্ব ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থাকলেই তিন কিস্তিতে পাবেন মোট পাঁচ হাজার টাকা। নবাগত সন্তানদের রক্ষার্থে ‘বাংলা মাতৃপ্রকল্প’-এ চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে এই প্রকল্পের আওতায় এসেছেন প্রসূতিরা। নতুন বছরের প্রথম দিন থেকেই প্রথম সন্তান সম্ভব্য মায়েদের নাম এই প্রকল্পে নথিভুক্তকরণের কাজ শুরু করেছে মুর্শিদাবাদ জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর। ইতিমধ্যে কয়েক হাজার নাম নথিভুক্তও করা হয়েছে।
মুর্শিদাবাদ জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য কর্মকর্তা নিরুপম বিশ্বাস জানান, প্রথম সন্তান সম্ভব্য মায়েদের সরকারি প্রকল্পের সুযোগ দিতে প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর। চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে যে মায়েরা প্রথম সন্তান জন্ম দিতে চলেছেন বা গর্ভবতী হয়েছেন তারা এই প্রকল্পের আওতায় পড়বেন। আর তারা যেন অবিলম্বে কাছের স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিজেদের নাম লেখান। এজন্য দপ্তর থেকে জেলাজুড়ে প্রচারও শুরু করা হয়েছে।
টাকা পাওয়ার নিয়ম প্রসঙ্গে মুর্শিদাবাদ জেলা স্বাস্থ্য আধিকারিক (ডেপুটি-থ্রি) অসীম প্রামানিক জানান, ‘নতুন সন্তান জন্মানোর ক্ষেত্রে মায়েরা গর্ভবতী অবস্থায় স্থানীয় স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নাম নথিভুক্ত করবেন। নাম নথিভুক্ত করার কয়েক সপ্তাহ পরই প্রথম কিস্তিতে এক হাজার টাকা পাবেন। এর পর শিশু জন্মানোর ১৪ সপ্তাহ পর নবজাতকের চেক আপের পর নথিপত্র দাখিলের ভিত্তিতে দ্বিতীয় কিস্তির দু’হাজার টাকা পাবেন। এই টাকার জন্য শিশু জন্মানোর ছয় মাস পর্যন্ত ক্লেম বা আদায়ের দাবি করতে পারবেন মায়েরা। আর শিশুর জন্মের এক বছর পর্যন্ত সমস্ত টিকাসহ সরকারি সেবা পাওয়ার পর শেষ কিস্তিতে দু’হাজার টাকা পাবেন প্রথম সন্তানের মায়েরা। শুধুমাত্র তাদের আধার কার্ড ও মায়ের নিজের নামে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থাকা বাধ্যতামূলক।’
জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, জেলায় সমস্ত উপস্বাস্থ্য কেন্দ্র, সরকারি হাসপাতালে এজন্য নাম নথিভুক্ত করতে পারবেন মায়েরা। সরকারি হাসপাতাল ছাড়াও সরকার অনুমোদিত যেকোন স্বাস্থ্য কেন্দ্র শিশু জন্মালে এই সুযোগ মিলবে। উন্নয়নের নিরিখে রাজ্যের জেলাগুলির মধ্যে পিছিয়ে পড়া মুর্শিদাবাদ জেলায় এই মুহূর্তে জনসংখ্যা প্রায় ৮০ লক্ষ। জেলার বিভিন্ন হাসপাতালে প্রতি বছর গড়ে দেড় লক্ষ শিশু জন্মায়। এর মধ্যে প্রায় ৬০ শতাংশ অর্থাৎ প্রায় ৮৫ হাজারই প্রথম সন্তান। দেশের অন্য রাজ্যের মতো পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদেও এই বিপুল পরিমাণ প্রথম সন্তান জন্মানোর আগেই তাদের পুষ্টি চাহিদা সরবরাহে কেন্দ্র সরকার এ উদ্যোগ নিয়েছে। কেন্দ্রের ‘মাতৃ বন্দনা যোজনা’ খাতে এই প্রকল্পে রাজ্যেরও শেয়ার থাকছে। সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.