সংবাদ শিরোনাম
জীবন বাজি রেখে নগরবাসীকে দেওয়া ওয়াদা পূর্ণ করবো-উচ্ছেদ অভিযান শেষে মেয়র আরিফ  » «   জৈন্তাপুরে কলেজছাত্রীর উপর স্প্রে নিক্ষেপ, আটক ১  » «   ফাঁসির মঞ্চে জহ্লাদকে চমকে দিয়েছিল ক্ষুদিরামের কথা! কি এমন কথা বলেছিলেন ক্ষুদিরাম?  » «   ধর্ষণের শিকার বিদেশ ফেরত দুই সন্তানের জননীর করুণ কাহিনী  » «   লুকিয়ে বিয়ে করতে গিয়ে…  » «   তীব্র গরমে একদিনে ৪০ জনের মৃত্যু  » «   সংসদে যাওয়ার ব্যাখ্যা দিলেন তারেক রহমান  » «   নুসরাতের কবরে গিয়ে শপথ নিয়েছিলাম ন্যায়বিচারে লড়বো: ব্যারিস্টার সুমন  » «   রাজনীতিতে সক্রিয় হচ্ছেন এরশাদের সাবেক স্ত্রী বিদিশা!  » «   ডিআইজি মিজান কি দুদকের চেয়েও শক্তিশালী : আপিল বিভাগ  » «   ওসি মোয়াজ্জেম গ্রেফতার  » «   সোহেল তাজের ভাগ্নেকে প্রেমের জেরে অপহরণের অভিযোগ  » «   ১৩ বছর বয়সে আটক মুর্তজার মৃত্যুদণ্ড বাতিল করছে সৌদি আরব!  » «   বাসায় আটকে দেহব্যবসা, কান্না শুনে ২ নারীকে উদ্ধার  » «   এখনও অনেক কিছু বাকি :মেসি  » «  

ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ফেলে যাওয়া সেই নবজাতককে নিলেন পুলিশ দম্পতি

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ফেলে যাওয়া সেই নবজাতককে দত্তক নিল পুলিশ দম্পতি।

নবজাতকটিকে দত্তক নেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিলেট মহানগর পুলিশের কোতোয়ালি থানার ওসি মোহাম্মদ সেলিম মিঞা।

ওসি মোহাম্মদ সেলিম মিঞা বলেন, নবজাতকটিকে হাসপাতালে ফেলে যাওয়ায় তার বাবা- মায়ের খোঁজ না পেয়ে থানায় খবর দেয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। পরে এ বিষয়ে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়। পরে মঙ্গলবার শিশুটিকে আদালতে হাজির করা।

এর আগে ওই নবজাতককে দত্তক নেয়ার জন্য আদালতে আবেদন করে পুলিশ কনস্টেবল রবিউল। পরে কোর্টের আদেশে ওই নবজাতককে পুলিশ দম্পত্তির কাছে জিম্মায় দেয়া হয়।

আদালতের কর্মকর্তা আব্দুল ওয়াদুদ জানান, নবজাতক শিশুটিকে নিতে আদালতে আবেদন করেন পুলিশ কনস্টেবল রবিউল হোসেন। তিনি আদালতে কর্মরত। আদালত আবেদন বিবেচনা করে শিশুটিকে রবিউলের জিম্মায় দেন।

গত ১৭ মে সকালে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শিশু বিভাগে নবজাতক ওই শিশুটিকে নিয়ে ভর্তি হন এক দম্পতি। হাসপাতালের রেজিস্ট্রারে শিশুটির বাবার নাম শিমুল আহমদ ও মায়ের নাম আয়শা বেগম এবং ঠিকানা শিবগঞ্জ সোনারপাড়া লিখানো হয়। ওইদিন সন্ধ্যায় শিশুটিকে রেখে উধাও হয়ে যান ওই বাবা-মা।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.