সংবাদ শিরোনাম
সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলার হাওর থেকে নিখোঁজ এক যুবকের লাশ উদ্ধার  » «   জগন্নাথপুরে হাওর থেকে বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার  » «   জগন্নাথপুরে আরো ১জন স্বাস্থ্যকর্মী সহ ২জন করোনায় আক্রান্ত: মোট আক্রান্ত ৯১  » «   সুনামগঞ্জে একদল তরুণদের উদ্যোগে মানসিক ও প্রতিবন্ধীদের মধ্যে খাবার বিতরণ জেলা প্রশাসকের    » «   কানাইঘাটে নিখোজের ১৪ দিন পর জামাল উদ্ধার  » «   এম. এ. হক যে কোন দুর্যোগ মুহুর্তে জাতির সেবায় নিয়োজিত ছিলেন: এড. আব্দুর রকিব  » «   এম এ হকের প্রথম জানাযা সম্পন্ন  » «   এম. এ. হকের মৃত্যুতে সিলেট মহানগর যুবলীগের শোক  » «   এম. এ. হকের মৃত্যুতে সিলেট জেলা ও মহানগর যুবদলের শোক  » «   এম. এ. হকের মৃত্যুতে সিলেট মহানগর বিএনপির শোক  » «   এম এ হকের মৃত্যুতে মিজান চৌধুরীর শোক  » «   মারা গেলেন সিলেট মহানগর বিএনপি’র সাবেক সভাপতি এম এ হক  » «   সমালোচনার মুখে ফেয়ার এন্ড লাভলীর নাম পরিবর্তন করা হলো  » «   ফিরলো কফি হাউসের সেই আড্ডা  » «   করোনা:বাসা ভাড়া না দেওয়াতে ১৩৮ শিক্ষার্থীর সার্টিফিকেট, ল্যাপটপ, ট্রাঙ্ক ডাস্টবিনে  » «  

আপত্তিকর অবস্থায় ধরা পড়লেন শিক্ষক-শিক্ষিকা

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::আপত্তিকর অবস্থায় এই সপ্তাহে শিক্ষক-শিক্ষিকারা যেন হ্যাটট্রিক করবেন। একের পর এক ধর্ষণ, হোটেল, বিনোদনের নামে নোংরামিতে পুলিশ, জনগণ, আইনের বিভিন্ন প্রশাসনের কাছে ধরা পড়ছে মহান পেশার “জাতি গঠণের কারখানা” খ্যাত শিক্ষক-শিক্ষিকারা।

চাঁদপুরের কচুয়ায় প্রাইমারি স্কুলের প্রধান শিক্ষকের সঙ্গে তার সহকর্মী এক শিক্ষিকার অন্তরঙ্গ ছবি ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে পড়েছে। সম্প্রতি কচুয়া শিক্ষক সমিতির মার্কেটের স্টুডিও মিনতির পরিচালক সুমন রায়ের ফেসবুক আইডি থেকে স্ট্যাটাস দেয়ারসঙ্গে সঙ্গে ছবিটি ভাইরাল হয় সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, কচুয়া উপজেলার শ্রীরামপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. জাহাঙ্গীর ও তালতলী সপ্রাবির এক সহকারী শিক্ষিকার অন্তরঙ্গ ও আপত্তিকর একটি ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। এ নিয়ে এলাকায় নানা গুঞ্জনসহ আলোচনার ঝড় উঠে।

স্থানীয়া জানান, এক সন্তানের জননী ওই শিক্ষিকা বর্তমানে আলীগঞ্জ পিটিআই’তে প্রশিক্ষণে রয়েছেন। শিক্ষক জাহাঙ্গীর বিভিন্ন সময় তাকে ফোন করে ডেকে নিয়ে বিভিন্ন কাজের দায়িত্ব দিলে তিনি তা করে দিতেন। এভাবেই তাদের মধ্যে অন্তরঙ্গ সম্পর্ক গড়ে উঠে। ওই শিক্ষিকা বলেন, গত ৬ই মে শিক্ষক জাহাঙ্গীর আমাকে মুঠোফোনে হাজীগঞ্জের একটি বাসায় যেতে বলে। পিটিআই’র ছুটি হওয়ার পর আমি সেখানে যাই। ওই বাসায় গেলে ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া ছবিটি তোলা হয়।

এদিকে এক সন্তানের জনক কচুয়া পৌরসভাধীন ধামালুয়া গ্রামের অধিবাসী মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, তার সাথে আমার কর্মক্ষেত্রে সাধারণ পরিচয় ছাড়া অন্য কোনো সম্পর্ক নেই। ভাইরাল হওয়া ছবি সম্পর্কে তিনি কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.