সংবাদ শিরোনাম
স্বামী-সন্তান রেখে ৩০ বছরের শিক্ষিকা ১৮ বছরের কাঠমিস্ত্রির কাছে!  » «   শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি জালিয়াতিতে আটক ৬  » «   তিন শীর্ষনেতার পদত্যাগ নিয়ে এখনো নিশ্চুপ বিএনপি, ধীরে চলার পলিসি  » «   শহীদ নূর হোসেন মায়ের কাছে ক্ষমা চেয়ে বক্তব্য প্রত্যাহার রাঙার  » «   প্রথমবারের মত সৌদি আরবে স্থায়ী বসবাসের সুবিধা পেলেন ৭৩ জন, ২০২০ সালের মধ্যে লক্ষ্য ১ হাজার কোটি ডলার আয়  » «   ভারতে বিয়ের অনুষ্ঠানে রাইফেল হাতে নাগা বিদ্রোহী নেতার ছেলে ও তার কনে  » «   ইলেকট্রনিক মিডিয়ার কর্মীদের ওয়েজ বোর্ডের আওতায় আনতে রুল  » «   হৃদয়-শামীম জুটির দুর্দান্ত ইনিংসে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে টাইগার যুবাদের লিড  » «   সরকারের ব্যর্থতার কারণেই দেশে দুর্ঘটনা ঘটছে, বললেন মির্জা ফখরুল  » «   রেলকর্তৃপক্ষকে চালকদের উপযুক্ত প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর  » «   স্নাতক ছাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সভাপতি নয়  » «   ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহতের পরিবারকে ১ লাখ ও আহতদের ১০ হাজার টাকা দেয়ার ঘোষণা রেলমন্ত্রীর  » «   কসবায় ‍দুই ট্রেনের সংঘর্ষে হতাহতের ঘটনায় রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক  » «   ট্রেন দুর্ঘটনায় হবিগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের সহসভাপতি ইউসুফ সহ নিহত ১৬  » «   সিগন্যাল অমান্য করে সংঘর্ষ ঘটায় তুর্ণা নিশীথা ট্রেনটি , অভিযোগ প্রত্যক্ষদর্শীদের  » «  

পরকীয়া ॥ স্বামীকে কাঁধে নিয়ে ঘুরতে হলো নারীর

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::ভিন্ন জাতের এক তরুণের সঙ্গে পরকীয়া সম্পর্ক হয়েছিল ২৭ বছর বয়সী এক নারীর। এই ঘটনায় শাস্তি হিসেবে তাকে তার স্বামীকে কাঁধে করে হাঁটতে হয়েছে। আর আশেপাশের লোকজন তা নিয়ে উল্লাস করেছে।

এমন ঘটনা ঘটেছে ভারতের মধ্যপ্রদেশে ঝাবুয়া জেলায়। এই ঘটনায় দু’জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তীব্র রোদের মধ্যে উল্লসিত জনতার মাঝে এমন শাস্তি দেয়া হয়েছে ওই নারীকে। সেখান থেকে ভেসে আসছিল উল্লাস, আনন্দ ধ্বনি। উপস্থিত জনতা আসলে ওই নারীকে তার স্বামীকে কাঁধে নিয়ে হাঁটতে বাধ্য করছিল।

চড়া রোদে, শুকনো মাটির উপর দিয়ে হাঁটতে গিয়ে থরথরিয়ে কাঁপছিলেন তিনি। মাঝে মধ্যে থেমেও যাচ্ছিলেন। তখনই শুরু হচ্ছিল নাচ-চিৎকার আর উল্লাস। আবার হাঁটতে বাধ্য করা হচ্ছিল তাকে।

ভারতীয় গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, ওই নারীর ‘অপরাধ’ হলো তার প্রেমিক ভিন্ন জাতের। তারা বিয়ে করেছেন এমন অভিযোগও উঠেছে। এই অপরাধের জন্যই তাকে এভাবে শাস্তি দেওয়া হয়েছে। ৩৩ সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে দেখা গেছে, কারো হাতে লাঠি, কারো হাতে পতাকা, কেউ আবার মোবাইল ফোনে এই শাস্তি দেওয়ার দৃশ্য ভিডিও করে রাখছেন।

মধ্যপ্রদেশের রাজধানী ভোপাল থেকে ৩৪০ কিলোমিটার দূরের ঝাবুয়া জেলার দেবীগড় গ্রামে ওই ঘটনা ঘটেছে বলে নিশ্চিত করেছেন ঝাবুয়া জেলার পুলিশ সুপার বিনীত জৈন। সংবাদসংস্থাকে তিনি জানিয়েছেন, ঝাবুয়ার দেবীগড়ে কিছু মানুষ একজন নারীকে অপমান করেছেন। এই ঘটনায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। দু’জনকে ইতোমধ্যেই গ্রেফতার করা হয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.