সংবাদ শিরোনাম
কুলাউড়ায় কিশোরীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ-প্রেমিক জেলহাজতে  » «   কমলগঞ্জে পানিতে পড়ে প্রতিবন্ধী যুবকের মৃত্যু  » «   সিলেটে ডিবি পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ!  » «   কমলগঞ্জে ইয়াবা ট্যাবলেটসহ দুইজন আটক  » «   আজ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর জন্মদিন সিলেটে আসছেন তিনি  » «   বিশ্বনাথে দেয়াল নির্মাণকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষে প্রবাসীসহ আহত ১১  » «   নগরীর মহাজনপট্টিতে ডিবির অভিযানে ইয়াবাসহ আটক ১  » «   মাছ ধরার জেরে মামা-ভাগ্নের ঝগড়ায় প্রাণ গেলো অনিকের  » «   হবিগঞ্জের বাহুবলে দুই অটোরিক্সার মুখোমুখি সংঘর্ষে নারী নিহত  » «   বিশ্ববাসীকে জেগে উঠার আহ্বান ইমরানের  » «   সৌদি আরবে চালু তাৎক্ষণিক লেবার ভিসা সার্ভিস  » «   যাত্রা শুরু হলো ড্রিমলাইনার উড়োজাহাজ গাঙচিলের  » «   মাধবপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১  » «   ‘একজন রোহিঙ্গাও ফেরত যেতে রাজি হয়নি’  » «   মোদির বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রে বিক্ষোভ করবে পিটিআই  » «  

শ্রীমঙ্গলের বিখ্যাত সাত রঙের চা এখন গৌরীপুরে

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::চায়ের রাজধানী বলে পরিচিত সিলেটের শ্রীমঙ্গল। আর উন্নতমানের চা উৎপন্ন হয় এ শ্রীমঙ্গলেই। এখানে ঘুরতে আসা পর্যটকদের কাছে প্রিয় হচ্ছে সাত রঙের চা। এ সাত রঙের চায়ের হাতেখড়ি শ্রীমঙ্গলের নীলকণ্ঠ চা কেবিন।

সাত রঙের চা এমটি আশ্চর্যের বিষয় যে, এক গ্লাসে চায়ে সাতটি রঙের স্তরে আলাদা স্বাদ। সেই সাত রঙের চা পান করতে এখন আর শ্রীমঙ্গল যেতে হবে না। ময়মনসিংহের গৌরীপুর পৌর শহরে প্রিয়া সিনেমা হল সংলগ্ন স্থানীয় মোহনা গৌড়ের চায়ের দোকানে বিক্রি করা হচ্ছে এ চা।

নীলকণ্ঠ চা কেবিনের প্রতিষ্ঠাতা রমেশ রাম গৌড়ের ছেলে দীপ্ত রাম গৌড় গৌরীপুরে সাত রঙের চা তৈরির কারিগর। শ্বশুর মোহনা গৌড়ের দোকানে প্রায় একমাস ধরে তিনি চায়ের ব্যবসা শুরু করেছেন। এর আগে পিতার নীলকণ্ঠ চা কেবিনে তিনি ওই চা তৈরি করতেন।

চা পানের ফাঁকে কথা হয় দীপ্ত রাম গৌড়ের সাথে। এ সময় তিনি বলেন, তাদের পরিবারের সকলেই প্রায় বিশ বছর ধরে শ্রীমঙ্গলে এ ব্যবসার সাথে জড়িত। শ্রীমঙ্গলে তাদের ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান নীলকণ্ঠ চা কেবিনের দুটি শাখা রয়েছে। একটি হচ্ছে বিডিআর ক্যাম্প সংলগ্ন ও অন্যটি চা বাগানের ভেতরে।

গৌরীপুরে শ্বশুরের দোকানে তিনি প্রায় এক মাস ধরে সাত রঙের চায়ের ব্যবসা শুরু করেন। এখানে প্রতি কাপ সাত রঙের চা বিক্রি করছেন মাত্র ৫০ টাকায়। এছাড়া দুই থেকে ছয় রঙের চা ও মাল্টোবা চা, তেঁতুল চা, স্পেশাল দুধ চা, সাদা চা, গ্রিন চা, আদা চা, লেবু চা, পাতি চাসহ কপি সুলভ মূল্যে বিক্রি করছেন তিনি। প্রচারের অভাবে প্রথম অবস্থায় দোকানে কাস্টমারের উপস্থিতি কম হলেও আস্তে আস্তে তা বৃদ্ধি পাচ্ছে।

এ প্রতিবেদকের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সাত রঙের চা তৈরির ফর্মূলা তাদের পরিবারের সদস্য ছাড়া অন্য কাউকে শেখানো হয় না। আলাদা কক্ষে অত্যন্ত গোপনীয়ভাবে তিনি এ চা তৈরি করেন থাকেন। চা তৈরির চাপাতিসহ সকল উপকরণ তিনি শ্রীমঙ্গল থেকে আনেন।

এ দোকানে চা পান করতে আসা স্থানীয় জাহাঙ্গীর আলম রিপন জানান, তিনি প্রতিদিন এখানে সাত রঙের চা পান করেন। শ্রীমঙ্গলের নীলকণ্ঠ চা কেবিনের সাত রঙের চায়ের মতই স্বাদ ও তৃপ্তি এ দোকানের চা-তেও। তার মত আরো অনেকেই প্রতিদিন ভীড় করেন গৌরীপুরে এই সাত রঙের চায়ের দোকানে চা পান করতে।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.