সংবাদ শিরোনাম
বাঁচা মরা তো আল্লাহর হাতে:আমার স্ত্রীর অবস্থা খুবই খারাপ-মানবতার ফেরিওয়ালা মাকসুদুল  » «   এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল আজ  » «   কোমা থেকে জাগলেন করোনায় আক্রান্ত ব্রিটিশ পাইলট  » «   করোনা প্রতিরোধে জনপ্রতিনিধিদের আরও সম্পৃক্তির আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর  » «   লিবিয়ায় নিহতদের মরদেহ বাংলাদেশে আনা যাবে না  » «   জগন্নাথপুরে জিয়াউর রহমানের শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে বিভিন্ন মসজিদে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল  » «   সুনামগঞ্জে পূর্ব শত্রুতার জেরে প্রতিপক্ষের হামলা আহত ২-থানায় অভিযোগ  » «   জগন্নাথপুরে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন এক নারী চিকিৎসক  » «   দক্ষিণ সুনামগঞ্জে করোনার নমুনা সংগ্রহের বুথ স্থাপন  » «   সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে ট্রলি চাপায় এক শিশুর মৃত্যু  » «   এবার ছেলের বাবা হলেন আশরাফুল  » «   মেসিকে কাটিয়ে সবচেয়ে বেশি আয় ফেদেরারের  » «   কৃষ্ণাঙ্গ হত্যার জেরে যুক্তরাষ্ট্রে তুলকালাম  » «   কৃষ্ণাঙ্গ হত্যা: অভিযুক্ত সেই পুলিশ কর্মকর্তাকে ডিভোর্স দিচ্ছেন স্ত্রী  » «   ছেলেকে হত্যার পর মায়ের আত্মহত্যা  » «  

মারধরের পর সাংবাদিকের মুখে মূত্রত্যাগ পুলিশের!

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে পুলিশের রোষাণলে পড়ে নির্যাতনের শিকার হয়েছেন ভারতের উত্তর প্রদেশের এক সাংবাদিক। পুলিশ তাকে আটক করে মারধরের পর তার মুখে প্রস্রাব করেছেন বলেও অভিযোগ করেছেন ওই সাংবাদিক। ভারতের উত্তরপ্রদেশের শামলি এলাকায় স্থানীয় একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের কর্মী তিনি।
ভারতীয় সংবাদমাধ্যগুলো জানিয়েছেন, মঙ্গলবার রাতে শামলির ধীমানপুরায় একটি মালগাড়ির লাইনচ্যুত হওয়ার ঘটনার খবর করতে গিয়েছিলেন ওই সাংবাদিক। সেখানে রেলপুলিশের সঙ্গে তর্কে জড়িয়ে পড়েন তিনি। পরবর্তীতে ওই পুলিশ সদস্য তাকে চড়, কিল, ঘুঁষি মারার পাশাপাশি ধাক্কা দিয়ে মাটিতে ফেলে দেন। হাত থেকে কেড়ে নিয়ে তার ভিডিও ক্যামেরা ভেঙে ফেলা হয়। পরে শার্টের কলার ধরে টেনে নিয়ে গিয়ে গারদে রাখা হয় তাকে।
এ ঘটনার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যাওয়ার পর চাপের মুখে তাকে বুধবার ছেড়ে দেয়া হয়। এ ঘটনার পর জিআরপির অভিযুক্ত স্টেশন হাউস অফিসার (এসএইচও) রাকেশ কুমার ও তার সঙ্গী কনস্টেবল সঞ্চয় পওয়ারকে বরখাস্ত করা হয়েছে।
পরে লিখিত অভিযোগে সেই সাংবাদিক বলেছেন, সাদা পোশাকে ছিলেন জিআরপির পুলিশকর্মীরা। গারদে পোরার পর আমার জামাকাপড় খুলে নেয়া হয়। আমার মুখে প্রস্রাব করেন পুলিশকর্মীরা।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.