সংবাদ শিরোনাম
শাবিপ্রবি-তে গভীর রাতে ড.জাফর ইকবাল :অনশন ভাঙলেও আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা  » «   আমরণ অনশন ভাঙতে রাজী হন নি শাবিপ্রবির শিক্ষার্থী-আন্দোলন অব্যাহত  » «   বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্নের পর এবার শাবিপ্রবির ভিসির বাসভবনে খাবার ও ঔষধ পাঠাতে দিচ্ছে না আন্দোলনকারীরা  » «   হবিগঞ্জ আদালতের ২৮ জন বিচারকের মধ্যে ১০জনই করোনা আক্রান্ত!  » «   একদফা দাবিতে অনড় শাবিপ্রবির শিক্ষার্থীরা-ভিসি’র বাসভবনের বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ  » «   শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে মৃত্যুর পথে আন্দোলনরত শিক্ষার্থী”রা  » «   ছাতকে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত-২, গ্রেফতার-১  » «    যারা সন্ত্রাসকে পছন্দ করে তারাই র‌্যাবের বিরুদ্ধে অপপ্রচার করে.সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী  » «   ১৫০ পরিবারের মধ্যে চাউল বিতরণ করল অনুসন্ধান কল্যাণ সোসাইটি  » «   অবৈধ বালু উত্তোলনের দায়ে দোয়ারাবাজারে,৭ শ্রমিককে কারাদণ্ড  » «   সিলেটের পথ শিশুরা ড্যান্ডিতে আশক্ত  » «   আমরণ অনশনে শাবি শিক্ষার্থীরা:সরকারি সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় ভিসি  » «   ভিসি’র পদত্যাগ না হলে আন্দোলন চলবে:শাবিপ্রবির আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা  » «   ওসমানীনগরে সংঘর্ষে আহত ১২,পাল্টাপাল্টি মামলা  » «   আখালিয়ায় ফার্মেসীতে সন্ত্রাসী হামলায় আহত ১, লুট  » «  

সম্পর্ক জোরদারে চীন-উত্তর কোরিয়া একমত

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::কোরীয় উপদ্বীপে আঞ্চলিক স্থিতিশীলতা রক্ষা ও দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক জোরদারে একমত হয়েছেন চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং এবং উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উন। বৃহস্পতিবার (২০ জুন) পিয়ংইয়ংয়ে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে পরমাণু সংকটের রাজনৈতিক সমাধানে আলোচনা অব্যাহত রাখাতেও একমত হন তারা। এরমধ্যেই, মানবপাচারকারী দেশের তালিকায় উত্তর কোরিয়াকে আবারও অন্তর্ভুক্ত করেছে যুক্তরাষ্ট্র।
বৃহস্পতিবার পিয়ংইয়ং বিমানবন্দরে পৌঁছালে চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংকে রাজকীয় সংবর্ধনা দেয়া হয়। এদিন, চীনা গণমাধ্যমে প্রকাশিত ভিডিওতে দেখা যায়, এসময় উপস্থিত ছিলেন উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কি জং উনসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। বিমানবন্দর থেকে রোড’শো কোরে চীনা প্রেসিডেন্টকে সেন্ট্রাল পিংইয়ংয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। রাস্তার দু’পাশে দাঁড়িয়ে শি জিনপিংকে স্বাগত জানান কোরীয় নাগরিকরা।
পরে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে করেন শি-কিম। দু’দেশের কৌশলগত যোগাযোগ বাড়ানোর পাশাপাশি বিভিন্ন ক্ষেত্রে সহযোগিতা জোরদারে একমত হন তারা। চীনা প্রেসিডেন্টের সম্মানে আয়োজন করা হয় রাষ্ট্রীয় ভোজসভার। এসময় দেয়া বক্তব্যে, বৈঠককে ফলপ্রসূ বলে দাবি করেন তারা।
চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং বলেন, রাজনৈতিক উপায়ে কোরীয় উপদ্বীপের পরমাণু সংকট সমাধানে একমত চীন ও উত্তর কোরিয়া। পরমাণু নিরস্ত্রীকরণে উত্তর কোরিয়ার সহযোগিতা প্রশংসনীয়। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় আশা করে, সংকট সমাধানের লক্ষ্যে উত্তর কোরিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র আলোচনা চালিয়ে যাবে এবং কাঙ্ক্ষিত ফলাফল আসবে।
উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উন বলেন, উত্তর কোরিয়া শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখছে। আমরা চাই, সংশ্লিষ্ট পক্ষগুলো ছাড় দেয়ার মানসিকতা নিয়ে উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে আলোচনা করবে। যাতে সংকট সমাধানে গ্রহণযোগ্য একটি পরিকল্পনা নির্ধারণ করা যায়।
কিম জং উন, চীনা প্রেসিডেন্টকে মধ্যস্থতাকারী হিসেবে ব্যবহার করতে চাচ্ছেন বলে মত পক্ষত্যাগী সাবেক এই উত্তর কোরীয় কূটনীতিকের।
পক্ষত্যাগী সাবেক উত্তর কোরীয় কূটনীতিক থায়ে হোং হো বলেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে তৃতীয় দফায় বৈঠক করতে চাইছেন কিম। এ জন্য হ্যানয় সম্মেলনে ওয়াশিংটনের দেয়া ৫টি ইউরেনিয়াম প্রকল্প বন্ধের প্রস্তাব মেনে নিতে পারে পিয়ংইয়ং। আর যদি ট্রাম্পকে বুঝিয়ে চলমান প্রকল্পগুলো চালু রাখতে পারে, তাহলে নতুন পরমাণু শক্তিশালী দেশ হবে উত্তর কোরিয়া। চীনা প্রেসিডেন্টকে দিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্টের কাছে এসব প্রস্তাব রাখতে পারে উত্তর কোরিয়া
এরমধ্যেই, ভয়াবহ মানবপাচারকারী রাষ্ট্রের তালিকায় উত্তর কোরিয়াকে অন্তর্ভুক্ত করেছে যুক্তরাষ্ট্র। এ তালিকায় পিয়ংইয়ংয়ের মিত্র চীন, রাশিয়ার পাশাপাশি ইরানও রয়েছে।
মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও বলেন, উত্তর কোরিয়ার সরকার তার দেশের নাগরিকদেরকে দেশে এবং বিদেশে জোরপূর্বক শ্রমে বাধ্য করছে। নাগরিকদের মাধ্যমে উপার্জিত অর্থ অন্যায় কাজে ব্যবহার করছে দেশটি। অব্যাহতভাবে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আইন লঙ্ঘন করছে তারা। রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় চলমান এসব নির্যাতনের কারণে প্রতিবেশী চীনে পালাতে বাধ্য হচ্ছে ভুক্তভোগীরা।
টানা ১৭ বারের মতো এ তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হলো পিয়ংইয়ংকে। এমন সময় যুক্তরাষ্ট্র এ তালিকা প্রকাশ করলো যখন দু’পক্ষের মধ্যকার, স্থবির হয়ে পড়া পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ আলোচনাকে পুনরায় শুরুর বিষয়ে চেষ্টা চলছে।
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.