সংবাদ শিরোনাম
ভোলাগঞ্জের খাগাইল নামক স্থানে ট্রাক-অটোরিকশা সংঘর্ষে নিহত ২  » «   নিজের মামলায় ফেসে কারাগারে শামীমা স্বাদীন  » «   টাকার ভাগ-বাঁটোয়ারা নিয়ে রাব্বানীর ফোনালাপ ফাঁস  » «   পুলিশকে জনবান্ধব হিসেবে গড়ে তুলতে হবে: প্রধানমন্ত্রী  » «   দ্রুত উইকেট পতনে কঠিন চাপে বাংলাদেশ  » «   ছাত্রলীগকে কলঙ্কমুক্ত করতে কাজ করবে জয়-লেখক  » «   মন্ত্রিত্ব গেলে আবার সাংবাদিকতায় আসব: ওবায়দুল কাদের  » «   ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জয়-সা. সম্পাদক লেখক  » «   ছাত্রলীগ থেকে সরিয়ে দেয়া হলো শোভন-রাব্বানীকে  » «   ছাত্রদলের নেতারা নিজেরাই মামলা করে সম্মেলন বন্ধ করেছে  » «   শোভন-রাব্বানীর ভাগ্য নির্ধারণ আজ  » «   সংবাদপত্রকর্মীদের জন্য নবম ওয়েজবোর্ড ঘোষণা  » «   আদালতে ফয়সালা করেই ছাত্রদলের কাউন্সিল : দুদু  » «   জনগণের আস্থা, বিশ্বাস ধরে রাখার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর  » «   স্বামীকে তালাক দিয়ে প্রেমিকের বাড়িতে তরুণীর অনশন  » «  

অমুসলিমকে বিয়ে॥ নুসরাতের পাশে তসলিমা

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::  মুসলিমহয়েও বিয়ে করেছেন একজন অমুসলিমকে। সিঁদুর পরে সংসদে দাঁড়িয়ে শপথবাক্য পাঠ করেছেন, বক্তব্য রেখেছেন। তার গলায় শোনা গেছে জয় হিন্দ, বন্দে মাতেরাম। আর এতেই বেজায় চটেছেন আলেমরা। নুসরাতের বিরুদ্ধে জারি করা হয়েছে ফতোয়া।

এ বিষয়ে গেরুয়া শিবিরের একাধিক নারী সাংসদ তৃণমূলের নবনির্বাচিত সাংসদ নুসরাত জাহানের পাশে দাঁড়িয়েছেন। প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন, নুসরাত নিজেও। এবার নুসরাতের বিরুদ্ধে ফতোয়া জারি করার তীব্র প্রতিবাদ জানালেন ভারতে নির্বাসিত বাংলাদেশি লেখিকা তসলিমা নাসরিন। নুসরাতের বিরুদ্ধে মন্তব্য করা আলেম-উলামাদের সমালোচনা করে সামাজিক মাধ্যমে একটি পোস্ট করেছেন তসলিমা।

তসলিমা বলেন, নুসরত জাহান, একজন মুসলিম, তিনি বিয়ে করেছেন অমুসলিম নিখিল জৈনকে। হিন্দু প্রথা মেনে সাত পাকে বাঁধা পড়েছেন। দু’জনের কেউই তো ধর্মান্তরিত হননি! কিন্তু দেওবন্দের মৌলবীরা এতে বেজায় চটলেন। তারা চান অমুসলিমরা বিয়ের আগে ইসলাম ধর্মে ধর্মান্তরিত হয়ে যাক। চুলোয় যাক। দু’জন ভিনধর্মে বিশ্বাসী মানুষ বিয়ে করলেন। বেশ করেছেন।

নিখিল জৈনকে বিয়ে করার পর নুসরাতের নতুন নাম নুসরাত জাহান রুহি জৈন। হিন্দু নারীর মতোই তার সিঁথি রাঙিয়েছেন সিঁদুরে। হাতে চূড়া, মেহেদি, গলায় মঙ্গলসূত্র, এভাবেই নববধূর বেশে গত ২৫ জুন সংসদে উপস্থিত হয়েছিলেন বসিরহাট কেন্দ্রের নবনির্বাচিত তৃণমূল সাংসদ নুসরাত।

নববধূর বেশে সংসদে হাজির হওয়ায় নুসরাতকে নিয়ে সমালোচনা শুরু হয়। শনিবারই এই ঘটনার প্রতিবাদ করে তীব্র ধিক্কার জানিয়েছিলেন রূপা গঙ্গোপাধ্যায়, দেবশ্রী চৌধুরি এবং হিন্দুত্ববাদী নেত্রী সাধ্বী প্রাচীর মতো একাধিক ব্যক্তিত্বরা। কিন্তু এই তৃণমূল সাংসদের পাশে দাঁড়ালেন লেখিকা তথা সমালোচক তসলিমা নাসরিন।

অন্যদিকে, সতীর্থ নুসরাতকে সমর্থন জানিয়েছেন যাদবপুরের সাংসদ মিমি চক্রবর্তীও। প্রথমে সামাজিক মাধ্যমে নুসরাতের পোস্ট শেয়ার করে প্রতিবাদ জানান। তারপর এক বক্তব্য রাখতে গিয়েও নুসরাতের প্রসঙ্গ এনে রীতিমতো ক্ষোভে ফেটে পড়েন মিমি।

তিনি বলেন, প্রথমদিন থেকেই তো আমরা খবরের শিরোনামে। তা সংসদে জিন্স পরা নিয়ে হোক কিংবা অন্য পোশাক। এখন নতুন আপত্তি উঠেছে সিঁদুর পরা নিয়ে। তার ব্যক্তিগত জীবনে সে সিঁদুর পরবে কি পরবে না, এটা তো তার একান্ত নিজস্ব ব্যাপার। যারা সমালোচনা করছেন তাদের একটা কথাই বলব, নিজের মা-বোনদের যে রকম সম্মান দেন, সেইটুকু সম্মান অন্য নারীদেরও দিন দয়া করে। হাজার হোক, আমরা তো দেশের প্রতিনিধিত্বই করছি। কাজেই সেই সম্মানটুকু তো আমাদেরও প্রাপ্য।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.