সংবাদ শিরোনাম
কেরানীগঞ্জে আগুন ॥ নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৯  » «   ফেক নিউজ ঠেকাতে লড়াইয়ের ঘোষণা দিল ফেসবুক  » «   চবির ৫ হল থেকে দেশিয় অস্ত্র উদ্ধার  » «   এসএ গেমসে প্রত্যাশার থেকেও বেশি সফল বাংলাদেশ  » «   নিখোঁজ বিমানের ধ্বংসাবশেষ খুঁজে পাওয়ার দাবি চিলির  » «   ব্রিটেনে নির্বাচন আজ, জয়ের আশায় লেবার পার্টি  » «   ভারতে নাগরিকত্ব বিল বাতিলের দাবি ৬ শতাধিক বিশিষ্ট ব্যক্তির  » «   নিউজিল্যান্ডে অগ্ন্যুৎপাতের ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৮  » «   বিশ্বের সর্বকনিষ্ঠ প্রধানমন্ত্রীর কিছু চমকপ্রদ তথ্য  » «   সিসি ক্যামেরার আওতায় এলো বিচারকাজ  » «   আমরা শান্তি চাই: খালেদা জিয়ার আইনজীবী  » «   খালেদার জামিন শুনানিতে আইনজীবীদের প্রবেশে কড়াকড়ি  » «   এখন থেকে ‘ইউ ক্যাশ’র মাধ্যমে ঘরে বসেই জরিমানার টাকা পরিশোধ করা যাবে  » «   সুবিদবাজার থেকে চোলাই মদসহ র‍্যাবের হাতে আটক ১  » «   যুক্তরাষ্ট্রে ভয়াবহ বন্দুকযুদ্ধ, পুলিশসহ নিহত ৬  » «  

স্বামীর কাছে ৩০ রুপি চেয়ে পেলেন তিন তালাক

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::স্বামী সাবিরের কাছে তার স্ত্রী জয়নব (৩০) চেয়েছিলেন ৩০ রুপি। বিনিময়ে তিনি পেলেন তিন তালাক। সঙ্গে প্রহারও। জয়নবকে উদ্ধার করে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। এ অভিযোগে দাদ্রি’তে পুলিশ স্টেশনে একটি মামলা করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের নয়ডায়। এ খবর দিয়েছে অনলাইন টাইমস অব ইন্ডিয়া।

জয়নবের অপরাধ শনিবার তিনি স্বামী সাবিরে কাছে সবজি কেনার জন্য ৩০ রুপি চেয়েছিলেন। তা নিয়ে তাদের কথা কাটাকাটি হয়।

তিনি আরো জানান, সাবির বিভিন্ন মিলে তেলের কন্টেইনার বিক্রি করতো। তার সঙ্গে জয়নবের বিয়ে হয় ৯ বছর। তাদের দাম্পত্য সম্পর্ক খুব একটা ভাল ছিল না। তাদের রয়েছে চারটি সন্তান। দুই বছর আগে একটি লাঠি দিয়ে জয়নবের মাথায় আঘাত করেছিল সাবির। তা ছাড়া তার শ্বশুর-শাশুড়ি তার সঙ্গে খারাপ আচরণ করতেন। কয়েকদিন আগে জয়নব অসুস্থ হয়ে পড়ে। তাই তিনি তাকে নিজের বাড়ি নিয়ে যান। মুরসালিম বলেন, জয়নব আমাদের সঙ্গে ৫ দিন ছিল। শুক্রবার সে দাদ্রি এলাকায় তার শ্বশুরবাড়ি ফিরে যায়। এ সময় সাবির বলে, সে তাকে তালাক দিতে চায়।
এ সব নিয়ে সাবির, নাজ্জো, সাবিরের বোন শামার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। সাবিরকে আদালতে তোলার পর সে সেখান থেকে জামিনে মুক্তি পেয়েছে। মুরসালিম বলেন, তাকে সুরাজপুর কোর্টে চালান দেযা উচিত ছিল। এ মামলায় অভিযুক্ত অন্য দুজনকে এখনও ধরতে পারে নি পুলিশ। পুলিশ বলেছে, তারা এ বিষয়টি পারিবারিক আদালতে পাঠাবে। কারণ, এখন তিন তালাক ইস্যুতে গেজেট নোটিফিকেশন দেয়ার মতো কোনো কর্মকর্তা নেই। তবে পুলিশ তিন তালাকের অভিযোগ তদন্ত করছে। উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের আগস্টে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট তিন তালাকের বিরুদ্ধে রায় দেন। এমন তালাককে তারা বাতিল, অবৈধ ও অসাংবিধানিক বলে রায়ে বলেন।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.