সংবাদ শিরোনাম
চুনারুঘাটের অপকর্মের হোতা দুলন গ্রেপ্তার  » «   তিনতলা থেকে নিচে পড়েও বেঁচে গেলো শিশু  » «   ব্রাজিলে ভবন ধস, নিহত ৯  » «   আবারো চালু হলো ‘পাবজি’ গেম  » «   ঢাবির ‘ক’ ইউনিটের ফল স্থগিত  » «   ওমর ফারুককে যুবলীগ চেয়ারম্যান পদ থেকে অব্যাহতি  » «   আওয়ামী লীগ নেতার বাড়ি থেকে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার  » «   ফেসবুকে মহানবী (সা.)-কে কটূক্তি :ভোলায় পুলিশ-জনতা সংঘর্ষে নিহত ৪, গুলিবিদ্ধ ৯  » «   জুড়ীতে বৈদ্যুতিক অগ্নিকাণ্ডে ব্যবসায়ীর মৃত্যু  » «   কমলগঞ্জে পুকুরে ডুবে শিশুর মৃত্যু  » «   মাধবপুরে ১৯ কেজি গাঁজা উদ্ধার  » «   দক্ষিণ সুরমায় ৪শ গ্রাম গাঁজাসহ নারী মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার  » «   কুলাউড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১  » «   জুড়ীতে কবর থেকে লাশ উত্তোলন  » «   কোম্পানীগঞ্জে মহিষের আঘাতে যুবকের মৃত্যু  » «  

শাহপরাণে আফছর ও জাহাঙ্গীর অনুসারীদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া-পুরো এলাকা জুড়ে আতংক

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::সিলেট-তামাবিল সড়কের শাহপরাণে যুবলীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। খাদিমপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান যুবলীগ নেতা অ্যাডভোকেট আফছর আহমদ ও জাহাঙ্গীর আলমের অনুসারীদের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে। বর্তমানে এ সড়কে যান চলাচল স্তব্ধ হয়ে পড়েছে।

জানা গেছে, গত ৩০ জুন সিলেট জেলা যুবলীগের বর্ধিত সভায় যোগ দেয়া নিয়ে অ্যাডভোকেট আফছরের অনুসারী এক কর্মীর উপর হামলা চালায় জাহাঙ্গীর আলমের অনুসারীরা। এর প্রতিবাদে আজ মঙ্গলবার (২ জুলাই) বিকেলে শাহপরাণ বাজার এলাকায় প্রতিবাদ মিছিল করে অ্যাডভোকেট আফছর বলয়ের নেতাকর্মীরা। মিছিল শেষে সেখানেই সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়।

উভয়পক্ষের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ায় পুরো এলাকা জুড়ে আতংকের সৃষ্টি হয়। সিলেট-তামাবিল সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। ঘটনাস্থলে পৌঁছালেও একসময় শাহপরাণ (র.) থানা পুলিশ অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে। এসময় খাদিমপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ অফিসে হামলা-ভাংচুর করা হয়।

ঘন্টাব্যাপী চলা এ সংঘর্ষে পুলিশসহ তিনজন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এছাড়াও তিনটি মোটরসাইকেল আগুনে পুড়িয়ে দেয়া হয়। এছাড়াও কয়েকটি দোকানপাট ভাংচুর হয়েছে। ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়েছে বলে জানা যায়।

সংঘর্ষের ঘটনায় অ্যাডভোকেট আফছর আহমদের ভাতিজা তাজির গুরুতর আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

রাত আটটায় শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত জাহাঙ্গীর আলমের গ্রেফতারের দাবিতে রাস্তা অবরোধ করে রেখেছিল অ্যাডভোকেট আফছর অনুসারীরা।

সিলেট মেট্রোপলিটন ও জেলা পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা সেখানে অবস্থান করছেন।

শাহপরাণ (র.) থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী সংঘর্ষের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, পরিস্থিতি বর্তমানে পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। ওই সড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক করতে পুলিশ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.