সংবাদ শিরোনাম
ভোলাগঞ্জের খাগাইল নামক স্থানে ট্রাক-অটোরিকশা সংঘর্ষে নিহত ২  » «   নিজের মামলায় ফেসে কারাগারে শামীমা স্বাদীন  » «   টাকার ভাগ-বাঁটোয়ারা নিয়ে রাব্বানীর ফোনালাপ ফাঁস  » «   পুলিশকে জনবান্ধব হিসেবে গড়ে তুলতে হবে: প্রধানমন্ত্রী  » «   দ্রুত উইকেট পতনে কঠিন চাপে বাংলাদেশ  » «   ছাত্রলীগকে কলঙ্কমুক্ত করতে কাজ করবে জয়-লেখক  » «   মন্ত্রিত্ব গেলে আবার সাংবাদিকতায় আসব: ওবায়দুল কাদের  » «   ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জয়-সা. সম্পাদক লেখক  » «   ছাত্রলীগ থেকে সরিয়ে দেয়া হলো শোভন-রাব্বানীকে  » «   ছাত্রদলের নেতারা নিজেরাই মামলা করে সম্মেলন বন্ধ করেছে  » «   শোভন-রাব্বানীর ভাগ্য নির্ধারণ আজ  » «   সংবাদপত্রকর্মীদের জন্য নবম ওয়েজবোর্ড ঘোষণা  » «   আদালতে ফয়সালা করেই ছাত্রদলের কাউন্সিল : দুদু  » «   জনগণের আস্থা, বিশ্বাস ধরে রাখার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর  » «   স্বামীকে তালাক দিয়ে প্রেমিকের বাড়িতে তরুণীর অনশন  » «  

স্বামীর সামনে অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে পালাক্রমে গণধর্ষণ

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::নোয়াখালীর সুধারাম মডেল থানার দক্ষিণ শুল্লকিয়ায় সিঁদ কেটে ঘরে ঢুকে স্বামীকে বেঁধে অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে গণধর্ষণ করেছে সন্ত্রাসীরা। স্বামীকে মারধর করে ঘর থেকে নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার লুট করে যাওয়ার সময় স্বামীর দায়ের কোপে এক ধর্ষক আহত হয়। নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের ৩নং ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন এক কন্যা সন্তানের জননী (৩০) ও তার স্বামী আবদুর রহিম জানান, প্রতিদিনের মতো বুধবার রাতেও তারা খাওয়া ধাওয়া শেষে মেয়েকে নিয়ে ঘুমিয়ে পড়ে। রাত ৩টার দিকে খুব বৃষ্টি হচ্ছিল এ সময় তাদের ঘরের পূর্ব পার্শ্ব দিয়ে সিঁদ কেটে ৭-৮ জন সন্ত্রাসী প্রবেশ করে তাদের আটক করে ভিকটিমের নিকট থাকা গলার স্বর্ণের হার ও কানের দুল এবং ঘরে থাকা নগদ ৯০ হাজার টাকা ও ১টি মোবাইলফোন সেট নিয়ে ৩ জন স্বামী আবদুর রহিমকে অস্ত্রের মুখে পাশের রুমে আটক করে রাখে। পরে ৪ জন পালাক্রমে তার অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে গণধর্ষণ করে এবং যাওয়ার পূর্বে স্বামীকে বেদম প্রহার করে। এ সময় আবদুর রহিম উপায় না দেখে খাটের নিচে থেকে দা নিয়ে এক ধর্ষককে কুপিয়ে আহত করে। এরপর অন্য ৩ ধর্ষক আহতকে নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে তাদের শোর চিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে এসে তাদের উদ্ধার করে।

প্রতিবেশী সুলতান আহমদ জানান, সন্ত্রাসীরা পালানোর সময় তারা পশ্চিম শুল্লকিয়ার হদি মিয়ার ছেলে সুলতান আহমদকে আহত ও রক্তাক্ত অবস্থায় এবং একই গ্রামের আবদুল মালেকের ছেলে কামাল হোসেনকে পালিয়ে যেতে দেখেছে।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.