সংবাদ শিরোনাম
নগরীর সোবহানীঘাট এলাকা থেকে গাড়ী ভর্তি ভারতীয় সুপারীসহ আটক ১  » «   লন্ডনে সাংবাদিক শফিকুলকে ফার্মল্যান্ড ফুড এন্ড এগ্রো ইন্ড্রাস্ট্রিজ লিমিটেডের সংবর্ধনা  » «   দক্ষিণ সুরমা থেকে ইয়াবাসহ ব্যবসায়ী আটক  » «   নগরীর ঘাসিটুলা সবুজ সেনা থেকে ৪ জুয়াড়ি গ্রেফতার  » «   মোগলাবাজারে বৈদ্যুতিক পোল চুরিকালে সাত জন আটক  » «   পপি আত্মহত্যা: প্ররোচরনা আইনে মামলায় দুলাভাই গ্রেপ্তার  » «   সুনামগঞ্জে ইয়াবাসহ আটক এক  » «   সিলেটে আদালতে বিচারাধীন ৭২ মামলার অবশিষ্ট মালামাল ধ্বংস  » «   নগরীর মহাজনপট্টি থেকে সাজাপ্রাপ্ত আসামি গ্রেপ্তার  » «   আজ হেমন্ত: খুব নীরবে শুরু হলো ফসলের ঋতু  » «   বুয়েট ছাত্র আবরার হত্যা: মাঠ পর্যায়ের আন্দোলনের ইতি  » «   হাগিবিসে বিধ্বস্ত জাপান, নিহত বেড়ে ৭৪  » «   পাবিপ্রবি’তে বিক্ষোভ, ডীনসহ ৩ শিক্ষক অবরুদ্ধ  » «   নিউজিল্যান্ডে বাংলাদেশী ২ বিধবার মানবিক আবেদন  » «   কূটনীতিকরা শিষ্টাচার লঙ্ঘন করেছেন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী  » «  

চীনের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে টর্নেডোয় ৬ জনের মৃত্যু

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::চীনের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে ভয়াবহ টর্নেডোর আঘাতে অন্তত ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন আরও অন্তত দুইশ। এতে, বেশ কয়েকটি বহুতল ভবন ধসে পড়ার খবর পাওয়া গেছে।
এদিকে, জাপানের দক্ষিণাঞ্চলে অব্যাহত ভারী বৃষ্টিতে একজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। আহত হয়েছেন আরও অন্তত ৫ জন। প্রবল বৃষ্টিতে ভূমিধসের আশঙ্কায় কিউশু দ্বীপ অঞ্চলের প্রায় ১০ লাখ বাসিন্দাকে নিরাপদ স্থানে সরে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।
এছাড়াও, রাশিয়ার দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় সাইবেরিয়া অঞ্চলে চলমান বন্যায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২০ জনে।
বুধবার স্থানীয় সময় দুপুরে চীনের লিয়াওনিং প্রদেশের কাই-ইউয়ান শহরে আঘাত হানে শক্তিশালী টর্নেডো। এতে, মুহূর্তের মধ্যে লণ্ডভণ্ড হয়ে যায় আশপাশের বহু এলাকা। ধসে পড়ে বেশ কয়েকটি বহুতল ভবন। এতে, বেশ কয়েকজনের প্রাণহানির পাশপাশি দুই শতাধিক আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এছাড়াও, নিকটবর্তী শিল্প এলাকার বহু কারখানাও এতে ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। টর্নেডোয় দুই শতাধিক বাসিন্দাকে উদ্ধার করা হলেও, অন্তত ১৬শ’ জনকে অন্যত্র সরিয়ে নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় গণমাধ্যম।
একদিকে যখন টর্নেডো এবং প্রবল ঝড়বৃষ্টির আঘাতে লণ্ডভণ্ড চীনের উত্তর-পূর্বাঞ্চল, ঠিক তখনই তীব্র দাবদাহে পুড়ছে চীনের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় স্বায়ত্বশাসিত জিনজিয়াং উইঘুর অঞ্চল। এবছর জুলাইয়ের শুরু থেকেই অঞ্চলটিতে বাড়তে শুরু করে তাপমাত্রা। বুধবার, সেখানকার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আগামী কয়েকদিনে তাপমাত্রা ৪৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছাড়িয়ে যেতে পারে বলেও আশঙ্কা আবহাওয়াবিদদের।
এদিকে, জাপানের দক্ষিণাঞ্চলেও গেল কয়েকদিন ধরে চলা প্রবল বৃষ্টিপাতে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে সেখানকার জনজীবন। এতে, কাগুশিমা অঞ্চলের বহু এলাকায় দেখা দিয়েছে ভূমিধস। ভেঙে পড়েছে যোগাযোগ ব্যবস্থা। প্রতিকূল আবহাওয়ায় বেশ কয়েক জনের হতাহতের খবরও জানিয়েছে স্থানীয় গণমাধ্যম। পরিস্থিতি মোকাবিলায় নিকটবর্তী কিউশু দ্বীপাঞ্চলের প্রায় ১০ লাখ বাসিন্দাকে নিরাপদ স্থানে সরে যাওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। সেইসঙ্গে, দুর্যোগ মোকাবিলায় কর্তৃপক্ষকে সর্বোচ্চ চেষ্টা চালিয়ে যাওয়ারও নির্দেশ দিয়েছেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো অ্যাবে।
 তিনি বলেন,  দুর্যোগে মানুষের জীবন রক্ষার্থে আমাদের সবার আগে তাদেরকে সঠিক তথ্যটা সরবরাহ করতে হবে। পুরো পরিস্থিতি দুর্যোগ কবলিতদের মাঝে বিস্তারিতভাবে তুলে ধরতে হবে। সেইসঙ্গে, স্থানীয় সরকার এবং উদ্ধারকারী সংস্থাগুলোকে নিজেদের মধ্যে সমন্বয়ের মাধ্যমে যৌথভাবে উদ্ধার তৎপরতা চালিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছি আমি।
এদিকে, বন্যা অব্যাহত আছে রাশিয়ার দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় সাইবেরিয়া অঞ্চলেও। এতে, এখন পর্যন্ত প্রায় ৫৫টি শহর ও গ্রাম প্লাবিত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে প্রায় ৪ হাজার ঘরবাড়ি। পরিস্থিতি মোকাবিলায় এবং উদ্ধার কার্যক্রম পরিচালনায় যোগ দিতে সেনাবাহিনীকে নির্দেশ দিয়েছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.