সংবাদ শিরোনাম
ওসমানীনগরের উমরপুর ইউনিয়নে ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্ঠার ঘটনায় মামলা  » «   শ্রীমঙ্গলে তিনটি দোকানে অভিযান চালিয়ে ৭ টন নিষিদ্ধ পলিথিন জব্দ  » «   সাংবাদিক পীর হাবিবের বিরুদ্ধে অপপ্রচারকারীদের শাস্তি দাবি  » «   জগন্নাথপুরের মিরপুর ইউপি নির্বাচনে আ.লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী শেরীন বিজয়ী  » «   প্রধান শিক্ষককের কাছ থেকে চাঁদা দাবী ও প্রান নাশের হুমকি  » «   জগন্নাথপুরের মিরপুর ইউনিয়নে নৌকা প্রার্থী কাদিরের নির্বাচন বয়কট  » «   জগন্নাথপুরের মিরপুর ইউনিয়ন নির্বাচনে উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট গ্রহণ শুরু  » «   দিরাইয়ে ৫ বছরের এক শিশুকে নির্মমভাবে হত্যা  » «   সিলেট জেলায় শ্রেষ্ঠ হলেন গোয়াইনঘাট সার্কেলের এএসপিসহ ৪ পুলিশ কর্মকর্তা  » «   ক্রসফায়ারে হত্যার চেষ্টা.এতে ব্যর্থ হয়ে ডাকাতির মামলায় ঢুকান জকিগঞ্জের ওসি  » «   সুইসাইড নোট থেকেই জানা গেলো আত্মহত্যা করা পপি গণধর্ষণের শিকার  » «   সাংবাদিক মনোয়ারা মনু আর নেই  » «   আবরার ইস্যুতে বিবৃতি দেয়ায় জাতিসংঘ দূতকে তলব  » «   ২২ দিন কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার নির্দেশ-ডা. দীপু মনি  » «   বৃটেনে প্রতারণার আশ্রয় নিতে গিয়ে ফেঁসে গেলেন নাসরিন  » «  

পদত্যাগের সিদ্ধান্ত বদলাবেন না রাহুল গান্ধী

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::কংগ্রেস নেতাদের আহ্বান সত্ত্বেও পদত্যাগের সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করবেন না বলে স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। তিনি জানান, নিজের অবস্থানে থেকেই নরেন্দ্র মোদির বিজেপির বিপক্ষে লড়ে যাবেন তিনি। দলের মধ্যে কোন্দলের কারণেই রাহুল গান্ধী তার পদ ছেড়েছেন বলে খবর প্রকাশিত হয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যমে। আর ক্ষমতাসীন বিজেপির দাবি, রাহুল সভাপতির দায়িত্ব ছাড়লেও পরিবারতন্ত্র থেকে বের হতে পারবে না ভারতীয় কংগ্রেস।
বৃহস্পতিবার মানহানির মামলায় হাজিরা দিতে মুম্বাইয়ের আদালতে উপস্থিত হন কংগ্রেসের পদত্যাগী সভাপতি রাহুল গান্ধী। জামিন পেয়ে কথা বলেন সাংবাদিকদের সঙ্গে। এ সময় তিনি বলেন, নেতারা আহ্বান জানালেও পদত্যাগের সিদ্ধান্ত বদলাবেন না তিনি। তবে ক্ষমতাসীন বিজেপির বিরুদ্ধে ঠিকই লড়ে যাওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী।
রাহুল গান্ধীর পদত্যাগ নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যম বলছে- দলের মধ্যে ঐক্য না থাকায় দায়িত্ব ছেড়েছেন তিনি।
ভারতীয় একজন সাংবাদিক বলেন, ‘রাহুল গান্ধী যা করতে চান, দলের সিনিয়র নেতারা তার উল্টোটা করেন। যা নিয়ে রাহুল বিপাকে ছিলেন। তিনি তার ইস্তেফাপত্রে উল্লেখ করেছেন, লোকসভায় পরাজয়ের জন্য দলের অন্য নেতাদেরও সমান দায় রয়েছে। এর মাধ্যমে তিনি স্পষ্ট বুঝিয়েছেন গাফিলতি ছিলো গোড়াতেই।’
একাধিক বিশ্লেষণধর্মী প্রতিবেদনে উঠে এসেছে, লোকসভা নির্বাচনে মাত্র ৫২টি আসন পাওয়া, পার্লামেন্টে বিরোধীদলের মর্যাদা অর্জন করতে না পারার ব্যর্থতা দলের অন্য কোনো নেতা নিতে নারাজ। তাই সব ব্যর্থতা নিজ কাঁধে নিয়েছেন রাহুল।
এদিকে ক্ষমতাসীন বিজেপি’র দাবি, রাহুল দায়িত্ব ছাড়লেও পরিবারতন্ত্র থেকে বের হতে পারবে না কংগ্রেস। নতুন সভাপতি নির্বাচনে নেহেরু-গান্ধী পরিবারের প্রধান্য থাকবে।
বিজেপি নেতা বলেন, ‘আমরা দেখেছি এতোদিন নেহেরু-গান্ধী পরিবার থেকেই দলের শীর্ষ পদে গিয়েছেন সবাই। কখনও যদি এর ব্যতিক্রম হয়, তাহলে ওই পরিবারের আশীর্বাদপুষ্ট কেউ সভাপতি হয়েছেন। এবারও তাই হবে।’
রাহুলের পদত্যাগ একটা কৌশল মাত্র। যা দিয়ে তিনি দেখাতে চাচ্ছেন পার্টিতে গণতন্ত্র আছে।
গত বুধবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে খোলা চিঠি দিয়ে কংগ্রেস সভাপতির পদ ছাড়েন রাহুল গান্ধী। তার এ সিদ্ধান্তকে সাসহী উদ্যোগ বলে আখ্যা দিয়েছেন বোন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.