সংবাদ শিরোনাম
বিশ্বনাথে দেয়াল নির্মাণকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষে প্রবাসীসহ আহত ১১  » «   নগরীর মহাজনপট্টিতে ডিবির অভিযানে ইয়াবাসহ আটক ১  » «   মাছ ধরার জেরে মামা-ভাগ্নের ঝগড়ায় প্রাণ গেলো অনিকের  » «   হবিগঞ্জের বাহুবলে দুই অটোরিক্সার মুখোমুখি সংঘর্ষে নারী নিহত  » «   বিশ্ববাসীকে জেগে উঠার আহ্বান ইমরানের  » «   সৌদি আরবে চালু তাৎক্ষণিক লেবার ভিসা সার্ভিস  » «   যাত্রা শুরু হলো ড্রিমলাইনার উড়োজাহাজ গাঙচিলের  » «   মাধবপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১  » «   ‘একজন রোহিঙ্গাও ফেরত যেতে রাজি হয়নি’  » «   মোদির বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রে বিক্ষোভ করবে পিটিআই  » «   বিএনপিকে ধ্বংসের চক্রান্ত করছে সরকার: রিজভী  » «   ‘২১শে আগস্ট হত্যাকাণ্ডের মাস্টারমাইন্ড তারেক রহমান’  » «   ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুন  » «   প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ দিয়ে ঢাকা ছাড়লেন জয়শঙ্কর  » «   ট্রেনের বগিতে ছাত্রীর লাশ ! ধর্ষণের পর হত্যা  » «  

একই উত্তর ৯৫৯ পরীক্ষার্থীর খাতায়

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::পরীক্ষায় নকল করার ক্ষেত্রে নতুন দৃষ্টান্ত স্থাপন হলো ভারতে। প্রায় এক হাজার পরীক্ষার্থীর খাতার উত্তর হুবুহু, একই। এমনকী, সকলের ভুলগুলোতেও অকাট্য মিল। তাও আবার বোর্ড পরীক্ষায়। খাতা দেখতে গিয়ে স্তব্ধ হয়ে গেছেন শিক্ষকরা। তাও আবার একই বিষয়ে নয়, একাধিক বিষয়ে গণহারে নকল করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের গুজরাটে। এ খবর দিয়েছে আনন্দবাজার পত্রিকা।
খবরে বলা হয়, দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষার খাতা দেখা চলছিল।

গণহারে নকল করার এই ঘটনা সামনে আসতেই নড়েচড়ে বসেছেন বোর্ড কর্মকর্তারা। তারা জানিয়েছেন, রাজ্যে দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষায় এত বড় নকলের ঘটনা আগে কখনো ঘটেনি। অ্যাকাউন্টিং, অর্থনীতি, ইংরাজি সাহিত্য এবং রাশিবিজ্ঞানে এই নকলের হার সবচেয়ে বেশি বলে জানিয়েছে বোর্ড।

এদিকে, এ ঘটনায় রাজ্যজুড়ে তোলপাড় চলছে। নকল করা ওইসব শিক্ষার্থীদের ফল ২০২০ সাল অবধি আটকে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বোর্ড। যেসব পরীক্ষাকেন্দ্রে এই নকলের ঘটনা ঘটেছে, সেগুলোর ওপর নজর রাখা হচ্ছে। জানা গেছে, জুনাগড় ও গির-সোমনাথ জেলাতে সবচেয়ে বেশি হয়েছে নকল। অনেকে সন্দেহ করছেন এই নকলের সঙ্গে পরীক্ষার্থী ছাড়া কেন্দ্রের দায়িত্বরত কর্মকর্তারাও জড়িত ছিলেন।

পরীক্ষায় নকলের ইতিহাস ভারতের জন্য নতুন নয়। তবে এত বিস্তৃত পরিসরে নকলের ঘটনা আগে কখনো প্রকাশ পায়নি। এ যেন নকলের জগতেও নতুন মাত্রা।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.