সংবাদ শিরোনাম
বিশ্বনাথে দেয়াল নির্মাণকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষে প্রবাসীসহ আহত ১১  » «   নগরীর মহাজনপট্টিতে ডিবির অভিযানে ইয়াবাসহ আটক ১  » «   মাছ ধরার জেরে মামা-ভাগ্নের ঝগড়ায় প্রাণ গেলো অনিকের  » «   হবিগঞ্জের বাহুবলে দুই অটোরিক্সার মুখোমুখি সংঘর্ষে নারী নিহত  » «   বিশ্ববাসীকে জেগে উঠার আহ্বান ইমরানের  » «   সৌদি আরবে চালু তাৎক্ষণিক লেবার ভিসা সার্ভিস  » «   যাত্রা শুরু হলো ড্রিমলাইনার উড়োজাহাজ গাঙচিলের  » «   মাধবপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১  » «   ‘একজন রোহিঙ্গাও ফেরত যেতে রাজি হয়নি’  » «   মোদির বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রে বিক্ষোভ করবে পিটিআই  » «   বিএনপিকে ধ্বংসের চক্রান্ত করছে সরকার: রিজভী  » «   ‘২১শে আগস্ট হত্যাকাণ্ডের মাস্টারমাইন্ড তারেক রহমান’  » «   ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুন  » «   প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ দিয়ে ঢাকা ছাড়লেন জয়শঙ্কর  » «   ট্রেনের বগিতে ছাত্রীর লাশ ! ধর্ষণের পর হত্যা  » «  

মুম্বইয়ে শতবর্ষী ভবনধসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৩

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::মুম্বইয়ে প্রায় ১০০ বছর পুরনো একটি বহুতল ভবন ধসে পড়ার ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৩ জনে পৌঁছেছে। নিহতদের মধ্যে একাধিক শিশুও রয়েছে। ধ্বংসস্তুপের নিচে চাপা পড়ে আছেন অনেকে। মৃতের সংখ্যা আরো বাড়বে বলে আশঙ্কা করছেন কর্মকর্তারা। এ খবর দিয়েছে টাইমস অব ইন্ডিয়া।
খবরে বলা হয়, মঙ্গলবার মুম্বইয়ের দক্ষিণাঞ্চলের ডোংরি এলাকার তান্ডেল রোডে ভেঙে পড়ে শতবর্ষী ভবনটি। আগ থেকেই এর অবস্থা জরাজীর্ণ ছিল। সাম্প্রতিক মৌসুমি বৃষ্টিতে এর ভিত্তি আরো দুর্বল হয়ে পড়লে এটি ধসে পড়ে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় কর্মকর্তারা। ভবনটিতে ১০-১৫টি পরিবার বাস করতো বলে জানা গেছে।

বিবিসি জানিয়েছে, ভারতে ভবন ধসে পড়ার ঘটনা প্রায়ই ঘটে থাকে। বিশেষ করে বর্ষাকালে এ ধরনের ঘটনা তুলনামূলকভাবে বেশি ঘটে থাকে। নি¤œমানের নির্মাণকাজ ও মেরামতের অভাবে এমনটা হয়ে থাকে। চলতি মাসে ইতোমধ্যে দেয়াল ও ভবন ধসে প্রাণ হারিয়েছেন কয়েক ডজন মানুষ। মাসের শুরুর দিকে একটি দেয়াল ধসের ঘটনায় মারা যান ২৯ জন।
স্থানীয়রা অভিযোগ করেছেন, জরাজীর্ণ বাড়িটির মেরামতের জন্য বহু বছর ধরে প্রশাসনের কাছে দাবি জানানো হলেও কোনো ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। এলাকাটিতে এমন আরো জীর্ণ বাড়ি রয়েছে।

স্থানীয়দের অভিযোগ স্বীকার করে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফডণবীস বলেন, বাড়িটি ১০০ বছরের পুরনো। কিন্তু জীর্ণ বাড়ির তালিকায় সেটির নাম ছিল না। এক নির্মাণ সংস্থাকে মেরামতের দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.