সংবাদ শিরোনাম
জগন্নাথপুরে করোনা আক্রান্ত সংখ্যা সেঞ্চুরী হল এর মধ্যে সুস্থ ৯৩জন   » «   জগন্নাথপুরে ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার  » «   সাহেদ,মাসুদ ১০ তরিকুলের ৭ দিনের রিমান্ড  » «   গণপরিবহন বন্ধ নয়, বন্ধ থাকবে যেকোনো ধরনের পণ্যবাহী যানবাহন  » «   বাসাবাড়িতে নতুন গ্যাস সংযোগ দেবে না সরকার  » «   ওসমানীনগর থানার ওসি তদন্ত মাঈন উদ্দিনও বদলি  » «   জগন্নাথপুরে করোনায় আরো ১জন সহ মোট আক্রান্ত ৯৯ এর মধ্যে ৯২ জন সুস্থ্য  » «   কুলাউড়া রেলওয়ের কান্ড:লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে সংঘবদ্ধ চক্র-সরকার হারাচ্ছে বিপুল অংকের রাজস্ব   » «   সংযুক্ত আরব আমিরাতের উচ্চাভিলাষী মঙ্গল অভিযানের নেতৃত্বে যে নারী  » «   শাহেদ যেমন তার সরকার তেমন: রিজভী  » «   সিপিএলের প্রস্তাব ফিরিয়ে দিলেন তামিম-রিয়াদ-মোস্তাফিজ  » «   ‘প্রতারকরা কেউ বাদ যাবে না’  » «   জাল টাকায় ঋণ শোধ করতো শাহেদ  » «   করোনায় ২৪ ঘণ্টায় প্রাণ গেলো ৩৩ জনের, শনাক্ত ৩৫৩৩ জন  » «   স্প্রে না করায় বাংলাদেশ বিমান-কে সাড়ে ৪ লাখ রিয়াল জরিমানা সৌদি আরবের  » «  

গর্ভাবস্থায় শোয়ার নিয়ম

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::সন্তানধারণের সম্পূর্ণ সময়টাই একজন নারীর জন্য খুবই স্পর্শকাতর এক সময়। এসময় পেট ধীরে বড় হতে থাকে একারণে ঘুমের সময় অনেকসময় নিঃশ্বাস নিতেও কষ্ট হয়। গর্ভাবস্থায় শোয়ার ব্যাপারে কোন সমস্যা হয়ে থাকলে অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ নেয়া উচিত। তবে কিছু সাধারণ বিষয় গর্ভাবস্থায় শোয়ার ক্ষেত্রে মাথায় রাখা যেতে পারে।  
চিৎ বা উবু হয়ে শোবেন না
গাইনিকোলজিস্টের মতে, একজন গর্ভবতী নারী যখন চিৎ হয়ে শুয়ে থাকেন, তখন তার মেরুদণ্ড ও কোমরের হাড়ে অত্যন্ত চাপ পড়ে, যা শরীরের পক্ষে ক্ষতিকর।
গর্ভাবস্থায় একজন নারীর শরীরে রিলাক্সিন হরমোন ক্ষরিত হয়, যা বিভিন্ন হাড়ের সংযোগস্থলের টেনডনকে আলগা করে দেয়। ফলে এই সময় তাদের হাড় যথেষ্ট দুর্বল হয়ে পড়ে। পেটের আকার বৃদ্ধি পাওয়ার কারণেই এই দুর্বল হাড়গুলোতে অত্যধিক চাপ পড়ে। এতে ঘুমের ব্যাঘাত ঘটেই, যন্ত্রণা বাড়লে ঘুমও আসে না সহজে।
পাশ ফিরে শোওয়ার অভ্যাস করুন
চিকিৎসকরা গর্ভাবস্থায় পরামর্শ দেন পাশ‌ ফিরে শুয়ে থাকতে। একে বলে sleep on side বা সংক্ষেপে SOS। পাশ ফিরে শুয়ে থাকলে আপনার কোমর ও পিঠের হাড়ে কোনোরকম চাপ পড়বে না। হৃৎপিণ্ডের রক্তসঞ্চালনে তাই কোনো সমস্যার সৃষ্টি হয় না। পাশ ফিরে শোওয়ার আরেকটি ভালো দিক হলো নিঃশ্বাসের সমস্যা না হওয়া।
চিকিৎসকরা বলেন, বাম দিকে ফিরে শুয়ে থাকা সব থেকে ভালো এবং এতেই সবচেয়ে আরামে ঘুমানো সম্ভব‌। কারণ আমাদের লিভার থাকে ডানদিকে, বামদিক ফিরে শুলে লিভারের ওপর চাপ পড়ে না, এতে খাদ্যনালীর সিস্টেম যেমন ঠিকঠাক কাজ করে, তেমনই ঘুমের ক্ষেত্রেও এনে দেয় আরাম।
এদিক-ওদিক ফেরার ব্যাপারে সাবধান
গর্ভাবস্থায় ঘুমের অসুবিধার কারণে অনেকেই এদিক ওদিক ফিরে নিজের সবচেয়ে কমফোর্ট জোনকে খুঁজে নেওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু এতে অহেতুক চাপ পড়ে হাড় ও হাড়ের জয়েন্টে। অনেকেই ঘুমের মধ্যে এদিক ওদিক ফিরতে বা ‍শুয়ে থাকার ভঙ্গি বদল করতেই অভ্যস্ত। এমনটা করলে নিজের অজান্তেই রক্তসঞ্চালনে সমস্যা তৈরি হতে পারে, নিঃশ্বাসের সমস্যায় ঘুমেও ব্যাঘাত ঘটতে পারে, এমনকি বাড়তে পারে কোমর ও পিঠের যন্ত্রণা।
তাই চিকিৎসকরা বলেন, যেদিক ফিরেই শুয়ে থাকেন, পিঠের দিকে যেন একটি বালিশ রাখা থাকে। এটি থাকলে সহজে শোওয়ার ভঙ্গি বদলানো অসম্ভব। অনেক নারীরাই বলছেন পাশ ফিরে শুয়ে পা ভাঁজ করে দুপায়ের ফাঁকে একটি বালিশ রাখলে ভালো ঘুম হয়। এ ছাড়া পাশ ফিরে শুয়ে পেটের নিচে একটি বালিশ নিয়ে শুয়ে থাকতেও অনেক আরামবোধ করেন।
এই কৌশলগুলো শুয়ে থাকার সময় চেষ্টা করে দেখতে পারেন। তবে সবার আগে এক্ষেত্রেও কিন্তু চিকিৎসকের পরামর্শই নেওয়া উচিত। তাই সেদিক থেকে কোনো ফাঁক না থাকাই ভালো।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.