সংবাদ শিরোনাম
বিএনপি-জামায়াতের ঘাড়ে সওয়ার ড. কামালরা জনবিচ্ছিন্ন  » «   ‘গরু কচুরিপানা খেতে পারলে আমরা কেন পারবো না’  » «   কুলাউড়ায় ঘুষ ও গ্রেপ্তার বাণিজ্য’র অভিযোগে এসআই দিদার উল্ল্যাহ প্রত্যাহার  » «   বালাগঞ্জে ব্যাটারি চালিত আটোরিকশার ধাক্কায় দুই এসএসসি পরীক্ষার্থী আহত  » «   জালালাবাদ থানার কুড়িরগাঁও থেকে মদ জব্দ করেছে পুলিশ:বিক্রেতারা পলাতক  » «   ইন্টারনেট দুনিয়ায় ঝড় তুলেছেন অভিনেত্রী ও ‘টপ শেফ’ পদ্মলক্ষ্মী  » «   সাবেক মন্ত্রী রহমত আলী আর নেই  » «   এমএজি ওসমানীর জন্ম ও মৃত্যু বার্ষিকী রাষ্ট্রীয়ভাবে পালনের দাবি  » «   তসলিমা নাসরিনকে কড়া জবাব দিলেন খাতিজা রহমান  » «   সিলেট কারাগার পরির্দশন করলেন সাবেক অর্থমন্ত্রী মুহিত  » «   নগরীর রায়নগর এলাকা হতে ২ ছিনতাইকারী আটক  » «   সারা দেশে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১৩  » «   সিলেটে জেলে সেজে ডাকাত ধরলো পুলিশ  » «   জাতীয় দিবসে ইংরেজির পাশে বাংলা তারিখ ব্যবহারে রুল  » «   জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বাংলাদেশ টেস্ট দল ঘোষণা  » «  

প্লাস্টিক বর্জ্য জমা দিলেই মিলবে খাবার

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::প্লাস্টিক মুক্ত পৌরএলাকা গড়তে অভিনব সিদ্ধান্ত নিলো ভারতের ছত্তিশগড়ের অম্বিকাপুর মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশন। 
অম্বিকাপুরের প্রধান বাসস্ট্যান্ডে তৈরি হয়েছে গারবেজ ক্যাফে। প্লাস্টিকের তৈরি জিনিসপত্র ক্যাফেতে নিয়ে আসলে খাবার দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পৌরসভা। দেশটির গণমাধ্যম জানিয়েছে, প্লাস্টিক মুক্ত এলাকা গড়তে তাদের এই পদক্ষেপ।
এই গারবেজ ক্যাফেতে ১ কিলোগ্রাম প্লাস্টিকের তৈরি জিনিস দিলেই মিলবে বিনামূল্যে ভরপেট খাবার। হাফ কিলোগ্রাম প্লাস্টিকের জিনিস এনে দিলে পাওয়া যাবে ব্রেকফাস্ট।
মূলত দরিদ্র মানুষ ও কাগজ কুড়ানিদের জন্যই এই ব্যবস্থা। কর্পোরেশন এর পক্ষ থেকে এই ক্যাফের জন্য ধার্য করা হয়েছে পাঁচ লক্ষ টাকা।
অম্বিকাপুরের মেয়র অজয় টিরকে জানিয়েছেন, অম্বিকাপুর মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনের কঠিন বর্জ্যের প্রজেক্ট সাফল্যের মুখ দেখেছে। এবার নতুন কিছু করতে চেয়েছিলাম। প্লাস্টিক মুক্ত করতে নয়া নিয়ম, এলাকা থেকে এক কিলোগ্রাম প্লাস্টিক দ্রব্য জমা দিলে মহিলা বা পুরুষকে বিনামূল্যে খাবার দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়ছে।
তিনি জানান, শুধু ময়লা কুড়ানি দরিদ্র মানুষ নয় গৃহস্থরা চাইলেও একই পদ্ধতিতে গারবেজ ক্যাফে থেকে খাবার নিতে পারবেন৷
তিনি আরও জানান, বিভিন্ন জায়গা বাড়ি বাড়ি গিয়ে প্লাস্টিকের জিনিসপত্র সংগ্রহ করার কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। আমরা প্লাস্টিকের বর্জ্য দিয়ে ফের নতুন কিছু করার ভাবছি। সেই প্রকল্পটিও সাফল্য পাবে, সেই আশাই করছি।

অম্বিকাপুরে ইতিমধ্যেই একটা রাস্তা তৈরী করা হয়েছে প্লাস্টিকের টুকরো আর আসফ্যাল্ট এর মিশ্রন ব্যবহার করে। এই রাস্তাটি তৈরী করত প্রায় আট লক্ষ প্লাস্টিকের ব্যাগ ব্যবহার করা হয়। এবং অ্যাসফ্যাল্ট মেশানোর ফলে জল নিকাশী ব্যবস্থার কোনও ক্ষতি হয় নি। এই প্রকল্পটি পরিবেশ সচেতনতার অন্তর্ভূক্ত।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.