সংবাদ শিরোনাম
জগন্নাথপুরে হাওর থেকে এক অঞ্জাতনামা ব্যক্তির অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার  » «   জগন্নাথপুরে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত ১ ব্যক্তি: মোট ১০, সুস্থ ৬, আইসোলেশনে ৪  » «   দোয়ারাবাজারে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১ আহত ১০  » «   সিলেটে দক্ষিণ সুরমায় দু’দল বাস শ্রমিকের মধ্যে দেড় ঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষ  » «   করোন:এক দিনে ৯৩ জন আক্রান্ত সিলেট বিভাগে:মোট ১০৪০ জন  » «   ভূমধ্যসাগরে ট্রলার ডুবিতে নিহত ৩৬: এ মামলার প্রধান আসামি রফিকুল গ্রেফতার  » «   সিলেট থেকে বাস চলাচল শুরু  » «   ছাতকে করোনায় আক্রান্ত হয়ে এক ঔষধ ব্যবসায়ীর মৃত্যু  » «   সুনামগঞ্জে চেয়ারম্যানের অপসারনের দাবীতে অভিযোগ দায়ের  » «   সুনামগঞ্জে র‍্যাব ক্যাম্পের ১৬ জন সদস্যসহ মোট ২১ জন করোনায় আক্রান্ত  » «   জগন্নাথপুরে মানসিক রোগী দীর্ঘ এক বছর পর থানা পুলিশের সহযোগিতায় ফিরে পেল পরিবার  » «   রানীগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের ১৯-২০ বছরের উন্মুক্ত বাজেট পেশ  » «   জগন্নাথপুরে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে আরেক জন  » «   জগন্নাথপুরে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা জরিমানা আদায়  » «   গোয়াইনঘাটে এসএসসিতে পাশের হার ৭৯.২৭ জিপিএ ৪৫ জন  » «  

প্লাস্টিক বর্জ্য জমা দিলেই মিলবে খাবার

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::প্লাস্টিক মুক্ত পৌরএলাকা গড়তে অভিনব সিদ্ধান্ত নিলো ভারতের ছত্তিশগড়ের অম্বিকাপুর মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশন। 
অম্বিকাপুরের প্রধান বাসস্ট্যান্ডে তৈরি হয়েছে গারবেজ ক্যাফে। প্লাস্টিকের তৈরি জিনিসপত্র ক্যাফেতে নিয়ে আসলে খাবার দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পৌরসভা। দেশটির গণমাধ্যম জানিয়েছে, প্লাস্টিক মুক্ত এলাকা গড়তে তাদের এই পদক্ষেপ।
এই গারবেজ ক্যাফেতে ১ কিলোগ্রাম প্লাস্টিকের তৈরি জিনিস দিলেই মিলবে বিনামূল্যে ভরপেট খাবার। হাফ কিলোগ্রাম প্লাস্টিকের জিনিস এনে দিলে পাওয়া যাবে ব্রেকফাস্ট।
মূলত দরিদ্র মানুষ ও কাগজ কুড়ানিদের জন্যই এই ব্যবস্থা। কর্পোরেশন এর পক্ষ থেকে এই ক্যাফের জন্য ধার্য করা হয়েছে পাঁচ লক্ষ টাকা।
অম্বিকাপুরের মেয়র অজয় টিরকে জানিয়েছেন, অম্বিকাপুর মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনের কঠিন বর্জ্যের প্রজেক্ট সাফল্যের মুখ দেখেছে। এবার নতুন কিছু করতে চেয়েছিলাম। প্লাস্টিক মুক্ত করতে নয়া নিয়ম, এলাকা থেকে এক কিলোগ্রাম প্লাস্টিক দ্রব্য জমা দিলে মহিলা বা পুরুষকে বিনামূল্যে খাবার দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়ছে।
তিনি জানান, শুধু ময়লা কুড়ানি দরিদ্র মানুষ নয় গৃহস্থরা চাইলেও একই পদ্ধতিতে গারবেজ ক্যাফে থেকে খাবার নিতে পারবেন৷
তিনি আরও জানান, বিভিন্ন জায়গা বাড়ি বাড়ি গিয়ে প্লাস্টিকের জিনিসপত্র সংগ্রহ করার কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। আমরা প্লাস্টিকের বর্জ্য দিয়ে ফের নতুন কিছু করার ভাবছি। সেই প্রকল্পটিও সাফল্য পাবে, সেই আশাই করছি।

অম্বিকাপুরে ইতিমধ্যেই একটা রাস্তা তৈরী করা হয়েছে প্লাস্টিকের টুকরো আর আসফ্যাল্ট এর মিশ্রন ব্যবহার করে। এই রাস্তাটি তৈরী করত প্রায় আট লক্ষ প্লাস্টিকের ব্যাগ ব্যবহার করা হয়। এবং অ্যাসফ্যাল্ট মেশানোর ফলে জল নিকাশী ব্যবস্থার কোনও ক্ষতি হয় নি। এই প্রকল্পটি পরিবেশ সচেতনতার অন্তর্ভূক্ত।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.