সংবাদ শিরোনাম
“মুজিব বর্ষ” উদযাপন উপলক্ষে বিয়ানীবাজার কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের গাছের চারা রোপন  » «   প্রকৌশলীর উপর হামলাকারী সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবীতে মিছিল সমাবেশ  » «   জেলা পরিষদের অর্থায়নে গোয়াইনঘাটে রাস্তা নির্মাণের উদ্বোধন   » «   মুজিব বর্ষ উপলক্ষে গোয়াইনঘাটে বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন  » «   দিরাইয়ে বণ্যায় ক্ষতিগ্রস্ত শতাধিক পরিবারের মাঝে মানবিক সহায়তা চাল ও ডাল বিতরণ   » «   সিসিক মেয়রের সাথে মহানগর ব্যবসায়ী ঐক্য কল্যাণ পরিষদের মতবিনিময়  » «   জাপানে নদীতে পরিণত হয়েছে রাস্তা, নিহত বেড়ে ৪৪  » «   কিংবদন্তি সংগীতশিল্পী এন্ড্রু কিশোর আর নেই  » «   জগন্নাথপুরে আরো ১জন স্বাস্থ্যকর্মী সহ ২জন করোনায় আক্রান্ত, মোট আক্রান্ত ৯৫: সুস্থ ৬৮  » «   পিয়নের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ৩০ কোটি টাকা  » «   জাফলংয়ে টাস্কফোর্সের অভিযানে ১লক্ষ ৯০হাজার টাকা জরিমানা   » «   দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরো ৪৪ জনের মৃত্যু:নতুন সনাক্ত ৩২০১  » «   প্রবাসীদের জন্য ফি ছারা ইকামা ও ভিসার মেয়াদ বাড়িয়েছে সৌদি সরকার  » «   সিলেটে করোনাভাইরাসে কেড়ে নিল এক নার্সের প্রাণ  » «   তাহিরপুরের চাদাঁবাজ কাশেম ও ফয়সল গংদের গ্রেফতারের দাবীতে শ্রমিকদের মানববন্ধন   » «  

দাম কমছে পেঁয়াজের

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::অবশেষে পাইকারি বাজারে কমতে শুরু করেছে পেঁয়াজের ঝাঁঝ। সপ্তাহের ব্যবধানে কেজিতে ২-৩ টাকা কমেছে এই নিত্যপণ্যের দাম। তবে বাড়তি দামেই বিক্রি হচ্ছে আদা ও রসুন। পাইকাররা বলছেন, ভারত থেকে পর্যাপ্ত পেঁয়াজ দেশে আসছে। সরবরাহ বাড়তে থাকায় আগামী সপ্তাহে দাম আরও কমার কথা বলছেন তারা। তবে, কোরবানির আগে উর্ধ্বমুখী মসলার বাজারে কোনো পরিবর্তন আসার সম্ভাবনা নেই বলে জানিয়েছেন মুদিপণ্যের ব্যবসায়ীরা।
চলতি মাসের শুরুতে হঠাৎ করেই অস্থির হয়ে ওঠে পেঁয়াজের বাজার। বন্যা, বৃষ্টি আর সরবরাহ কমের অজুহাতে পাইকারিতে ২০-২২ টাকা কেজির দেশি পেঁয়াজের দর উঠে যায় ৪০-৪২ টাকা। দাম বাড়ে আমদানি করা পেঁয়াজেরও। পরিস্থিতি সামাল দিতে নজরদারির পাশাপাশি আমদানিকারকদের সঙ্গে বৈঠকে বসে সরকার।
মোহাম্মদপুর পাইকারি কৃষি মার্কেটের গিয়ে দেখা গেল, আড়তগুলোতে পেঁয়াজ-আদা-রসুনের মজুদ বেড়েছে। পাইকাররা বলছেন, গেল সপ্তাহের চেয়ে দেশি-আমদানি সব ধরনের প্রতিকেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ২৬-৩৪ টাকার মধ্যে। তবে, অপরিবর্তিত রসুন ও আদার দর।
মসলার বাজারে সবচেয়ে বেশি বাড়ছে এলাচ ও দারুচিনির দাম। এলাচের দাম উঠেছে ২৭০০ টাকা কেজি। দারুচিনি প্রতিকেজি বিক্রি হচ্ছে ৪০০-৪১৫ টাকায়। অপরিবর্তিত রয়েছে মসুর, মুগ, খেসারি’সহ সবধরনের ডালের দাম। স্থিতিশীল ভোজ্যতেলের বাজার।
বাড়া-কমা নেই চালের বাজারে। মিনিকেট মানভেদে প্রতিকেজি বিক্রি হচ্ছে ৪০-৪২ টাকায়; ব্রি-আটাশ ৩০-৩২ টাকা আর গুটিস্বর্ণা বিক্রি হচ্ছে ২৬-২৭ টাকা কেজি দরে।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.