সংবাদ শিরোনাম
সিলেটে বন্যা:নগরীর উপশহরসহ অনেক এলাকা বাসাবাড়ি পানিতে নিমজ্জিত  » «   সূচকে আরো দুই ধাপ পেছালো বাংলাদেশি পাসপোর্টের মান  » «   সিলেটে ঘণ্টায় ৪৫-৬০ কিলোমিটার বেগে অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝড়ো হাওয়া বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে  » «   ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীকে মিথ্যাবাদী বললেন রাহুল গান্ধী  » «   অবশেষে মাস্ক পরলেন ট্রাম্প  » «   অবৈধ ভারতীয় বিড়ি নিয়ে সমঝোতা বিড়িসহ ইউপি সদস্য আটক  » «   সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে এক শিশুর মৃত্যু  » «   সুনামগঞ্জের তাহিরপুরের শনির হাওর থেকে এক নিখোঁজ শ্রমিকের লাশ উদ্ধার  » «   জগন্নাথপুরে আরো ২জন মহিলা করোনায় পজেটিভ, মোট আক্রান্ত ৯৮: সুস্থ ৮৩  » «   জগন্নাথপুর ২য় দফা বন্যা,পানিবন্দী হাজার হাজার মানুষ  » «   সিলেটে ট্যাঙ্ক লরি শ্রমিক নেতা খুন  » «   সিলেটে বন্যা:দ্বিতীয় দফায় পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন অর্ধলক্ষাধিক মানুষ  » «   সুনামগঞ্জে সুরমা নদীর পানি বিপদ সীমার ৫৪ সেঃ মিটার ও ছাতকে ১৬৬ সেন্টিঃ উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে  » «   ইতালিফেরত ১৪৭ জন হজক্যাম্পে কোয়ারেন্টিনে  » «   করোনা নিয়ে বাংলাদেশ থেকে আসা ব্যক্তি জ্বর-কাশি নিয়ে ইতালি ঘুরে বেড়ান!  » «  

আবারও রণক্ষেত্র হংকংয়ের রাজপথ

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::আবারও রণক্ষেত্র হংকংয়ের রাজপথ। বিক্ষোভকারীদের ওপর চীনপন্থী সন্ত্রাসীদের হামলার প্রতিবাদে শনিবার হংকংয়ের রাস্তায় নামেন ১০ হাজারের বেশি মানুষ। এ-সময় তাদের ছত্রভঙ্গ করতে টিয়ারগ্যাস ছোড়ে পুলিশ। এতে আহত হন অনেকে। তবে দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার হুশিয়ারি
শনিবার কয়েক হাজার বিক্ষোভকারী পুলিশের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ইউয়েন লং শহরের মিছিল করে। গত সপ্তাহের বিক্ষোভে মুখোশধারীর হামলার প্রতিবাদে এ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। তবে এবারের বিক্ষোভেও টিয়ারগ্যাস নিক্ষেপ করে পুলিশ। যাতে আহত হন অনেকে।
বিক্ষোভকারীদের দাবি, সরকারবিরোধী আন্দোলনে গত রোববার মুখোশধারী একদল যুবক আন্দোলনকারীদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। হামলাকারীদের বিচার দাবি করেন তারা। চীনপন্থী ‘ভাড়াটে সন্ত্রাসীরা’ এ হামলার সঙ্গে জড়িত বলে অভিযোগ তাদের। সেসময় আটকও করা হয় বেশ কয়েকজনকে।
একজন বলেন, ‘গত সপ্তাহে সেভাবে বিক্ষোভকারীদের দমন করা হয়েছে তার প্রতিবাদ জানাতে আমরা এখানে এসেছি। আমি মনে করি এটা আমার দায়িত্ব। আমাদের প্রতিবাদ করার অধিকার রয়েছে। নিজে থেকেই আমরা রাস্তায় নেমেছি।’
যদিও পুলিশের দাবি, কয়েকজন বিক্ষোভকারীর হাতে লোহার রড ছিল। তারা সড়কের বেষ্টনী তুলে ফেলে। ভাঙচুর চালায় পুলিশের গাড়িতে। এতে করে পুলিশ সদস্যদের জীবন হুমকিতে পড়ে। তাই বিক্ষোভকারীদের প্রতিহত করা হয়েছে।
অপরাধী প্রত্যর্পণ বিলকে কেন্দ্র করে গত ৯ জুন থেকে চীনবিরোধী এ আন্দোলনের সূত্রপাত। পরে বিলটি স্থগিত করা হয়েছে তবে বিক্ষোভ ক্রমেই চীনপন্থী শাসক ক্যারি লামের বিরুদ্ধে রূপ নিয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.