সংবাদ শিরোনাম
সুনামগঞ্জে বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার ছবি ভাংচুর, বাড়িঘরে হামলা,লুটপাঠ নারীসহ আহত ৪  » «   গোলাপগঞ্জে কুখ্যাত ডাকাত ফয়জুল হক গ্রেফতার  » «   সুনামগঞ্জের তিন পৌরসভা নিবার্চন সকাল ৮ টা থেকে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে  » «   দ্বিতীয় ধাপে ৬০ পৌরসভায় ভোটগ্রহণ শুরু  » «   গোলাপগঞ্জে ট্রাক-মোটরসাইকেল মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ২  » «   ২০০ দুস্থ ও অসহায় মানুষের মাঝে কম্বল বিতরন করল অনুসন্ধান কল্যান সোসাইটি সিলেট  » «   দক্ষিণ সুনামগঞ্জের দু’পক্ষের সংঘর্ষে ১ জেলে নিহত,আহত ২০ আটক ৯  » «   নবীগঞ্জে আপন ভাইকে গরুর রশি দিয়ে বেধে অমানবিক নির্যাতন,ভিডিও ভাইরাল  » «   সিলেটের জৈন্তা ১৭ পরগনার শীর্ষ মুরব্বীদের এক বৈঠক অনুষ্টিত  » «   উদ্বেগ-উৎকন্ঠায় ইভিএমে ভোট, পৌরসভা নির্বাচনে শেষ প্রচারনায় উত্তাল জগন্নাথপুর  » «   জাফলংয়ে ব্যারিস্টার সুমন ও গোয়াইনঘাট দলের মধ্যে প্রীতি ফুটবল ম্যাচ আগামি কাল  » «   ছাতক পৌরবাসীর ‘মুক্তির জন্য’ ধানের শীষে ভোট চাইলেন ন্যান্সি  » «   গোলাপগঞ্জে টিলা কাটতে গিয়ে মাটি চাপায় শ্রমিকের মৃত্যু  » «   যে ৬ কাজে হালাল রিজিকের দরজা খোলে  » «   রিকশা চলাচলের দাবিতে বৃহত্তর জিন্দাবাজার সহ সর্বস্তরের ব্যবসায়ীদের মানববন্ধন আজ  » «  

যৌন সম্পর্কের দায়ে যুবক-যুবতীকে মধ্যযুগীয় কায়দায় শাস্তি

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::ইন্দোনেশিয়ার বান্‌দা আচেহ প্রদেশে প্রেমে পড়েছিলেন এক যুবক (১৯) ও এক যুবতী (২২)। সেই প্রেম গাঢ় হতে হতে এমন এক পর্যায়ে যায় যে, তারা যৌন সম্পর্ক স্থাপন করেন। এ বিষয়টি গোপন থাকেনি। এই অভিযোগে, তাদের উভয়কেই একটি স্টেডিয়ামে মঞ্চ স্থাপন করে সেখানে প্রকাশ্যে ১০০ ঘা করে বেত্রাঘাত করা হয়েছে। বিপুল সংখ্যক মানুষের সামনে তাদের বেত্রাঘাত করা হয়। সে সময় ব্যথায় আর্তনাদ করছিলেন ওই যুবতী। তিনি বারবার করুণা ভিক্ষা চাইছিলেন। যুবকটি ছিল সাদা শার্ট পরা।

তাকে এতটাই জোরে বেত্রাঘাত করা হয় যে, তাতে তার ত্বক ফেটে রক্তে রঞ্জিত হয় শার্ট। এখানেই শেষ নয়। তাকে এ অপরাধের জন্য ৫ বছর জেল খাটতে হবে। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার। এ খবর দিয়েছে বৃটেনের একটি ট্যাবলয়েড পত্রিকার অনলাইন সংস্করণ।
খবরে বলা হয়েছে, যখন বেত্রাঘাত করা হচ্ছিল তখন ২২ বছর বয়সী ওই যুবতী ব্যথায় বার বার মূর্ছা যাচ্ছিলেন। তারপরও তাকে প্রহার করতে থাকেন মুখোশ পরা দণ্ডদাতারা। তিনি করুণা ভিক্ষা চাইলেও শরিয়া কঠোর আইনের অধীনে তার শাস্তি পূর্ণ করা হয়। বান্‌দা আচেহ প্রদেশের লোকসেমাউয়েতে একটি স্টেডিয়ামে এই শাস্তি কার্যকর করা হয়। ব্যবহার করা হয় তেল দিয়ে পাকানো বেতের লাঠি। উল্লেখ্য, বিয়ের আগে এমন যৌন সম্পর্ক স্থাপন ইসলামিক আইনে কঠোর শাস্তিযোগ্য অপরাধ ওই অঞ্চলে। একই রকম শাস্তির বিধান রয়েছে জুয়া ও মদ পানের ক্ষেত্রেও।
ওদিকে মানবাধিকার বিষয়ক গ্রুপগুলো প্রকাশ্যে এভাবে বেত্রাঘাতকে বর্বর শাস্তি বলে অভিহিত করেছে। তারা ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট জোকো উইডোডোর কাছে এমন শাস্তি বন্ধের আহ্বান জানিয়েছে। কিন্তু আচেহ প্রদেশে বসবাস প্রায় ৫০ লাখ মুসলিমের। তারা ধর্মের ভিত্তিতে এমন শাস্তিকে সমর্থন করেন। মার্চে সন্তান ও পরিবারের সামনে প্রকাশ্যে ৫ দম্পতিকে একইভাবে বেত্রাঘাত করা হয়েছে। বিবাহবহির্ভূত যৌন সম্পর্ক স্থাপনের অভিযোগে গত বছর নভেম্বরে বেত্রাঘাত করা হয়েছে এক নারীকে। তা দেখে উৎসুক জনতা উল্লাস করেছিল। আরেকজন নারীর ক্ষেত্রে একই ঘটনা ঘটেছিল।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.