সংবাদ শিরোনাম
দিরাইয়ে গ্রামবাসীর হামলায় এক শিক্ষিকা ও ছাত্রসহ ৭জন গুরুতর আহত  » «   সিলেটের টুকের বাজারে শবে বরাতের রাতে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা  » «   তিনি অসহায়দের মুখে দু’মুঠো খাবার তুলে দিতে চেয়েছেন  » «   জাফলংয়ে উদ্ধারকৃত মর্টার শেল ধ্বংস করলো সেনাবাহিনী  » «   যুক্তরাষ্ট্রে দ্বিতীয় দিনের মতো প্রায় ২ হাজার জনের মৃত্যু  » «   স্পেনে করোনায় মৃত্যু ১৫ হাজার ছাড়ালো  » «   দেশে করোনায় মৃত্যু বেড়ে ২১, নতুন আক্রান্ত ১১২  » «   করোনা আপডেট:সিলেট নগরীর বিভিন্ন প্রবেশপথে পুলিশে চেকপোস্ট বসিয়ে গাড়ি তল্লাশি  » «   এমপি সুলতান মনসুরের ফোঁনালাপের রেকর্ড ভাইরাল, পক্ষে-বিপক্ষে সমালোচনা-ফোন আলাপকারী ব্যক্তি লাপাত্তা    » «   সিলেটে করোনা পরিক্ষা:৯৪ জনের কারো শরীরেই করোনা ভাইরাস নেই  » «   ঘরবন্দী মানুষের মাঝে জাফলং আওয়ামী লীগের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ  » «   দোয়ারাবাজারে বক্তারপুর গ্রামে সর্দি কাশিতে এক যুবকের মৃত্যু,৩০০টি বাড়ি লকডাউন  » «   ৬৮ লাখে বিক্রি হলো বাটলারের সেই জার্সি  » «   সিঙ্গাপুরে একদিনে ৪৭ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত  » «   মধু ও কালোজিরায় করোনা থেকে যেভাবে সুস্থ হলাম: গভর্নর  » «  

মাশরাফি-সাকিব দুজনই খেলবেন রংপুরে’

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::বিপিএলের অষ্টম আসরের জন্য আইকন খেলোয়াড় সাকিব আল হাসানকে দলে ভিড়িয়েছিল রংপুর রাইডার্স। কিন্তু রংপুরের গুছিয়ে উঠা সংসারে বাধ সাধে বিসিবির সিদ্ধান্ত। দেশের ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা জানিয়ে দেয়, নতুন করে কাউকে দলে নিতে পারবে না কোনো ফ্রাঞ্চাইজি। কারণ, ফ্রাঞ্চাইজিগুলোর সাথে বিসিবির চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে। নতুন আসরের জন্য সব দলকেই চুক্তি নবায়ন করতে হবে। এছাড়া খেলোয়াড়দের রিটেনশন বা দলে ভেড়ানোর নিয়ম কানুনেও আসবে পরিবর্তন।
বিসিবির এই সিদ্ধান্তের পর তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখায় রংপুর রাইডার্স। এমনকি তারা বিপিএল থেকে সরে যাওয়ার প্রচ্ছন্ন হুমকি পর্যন্ত দিয়ে বসে। তবে এখন বেশ নমনীয় ফ্রাঞ্চাইজিটি। আগামী আসরে সাকিবের সঙ্গে মাশরাফী বিন মুর্তজাও তাদের দলেই খেলবেন বলে জানালেন রাইডার্স সিইও ইশতিয়াক সাদেক।
মঙ্গলবার (২০ আগস্ট) বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সঙ্গে দেখা করে পরের আসরের ইস্যু নিয়ে কথা বলতে মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে এসে সাংবাদিকদের একথা জানান তিনি। এদিন নতুন করে আরও চার আসরের জন্য বিপিএলে তাদের দলের থাকা নিশ্চিত করে যান ইশতিয়াক।
এদিকে ফ্রাঞ্চাইজিগুলোর আলোচনার পর বিসিবির পক্ষ থেকে জানানো হয়, আসন্ন বিপিএলে বাইলজ নির্ধারণে ফ্রাঞ্চাইজিগুলোর পরামর্শ বিবেচনায় নেয়া হবে। তাদের সঙ্গে চুক্তি নবায়নের পর নিয়মে কিছু পরিবর্তন আনবে বিপিএল কর্তৃপক্ষ। নিয়ম কেমন হওয়া উচিত তা নিয়েও কিছু পরামর্শ দিয়ে গেছে রংপুর রাইডার্স।
ইশতিয়াক বলেন, ‘আমার মনে হয় এখানে সাকিব কোনো বড় ইস্যু না। যেহেতু ফ্র্যাঞ্চাইজি পেমেন্ট শেষ হয়ে গিয়েছিল, সে কারণে তারা জানতে চাইল আমরা কী পরবর্তী চার বছরের জন্য রাজী কিনা। নিঃসন্দেহে বসুন্ধরা গ্রুপ রংপুর রাইডার্স হিসেবে থাকতে চায়। এরপরও উনারা কিছু নতুন নিয়ম কানুন বদল করবে।  নতুন নিয়ম কানুন কীভাবে করতে চায় কীভাবে করলে ভাল হবে জানতে চাইল। আমরা মোটামুটি সব ব্যাপারেই একমতই হয়েছি। আমরা কিছু পরামর্শ দিয়েছি বলেছি লিখিতভাবে জানিয়ে দিব।’
সেই পরামর্শের মধ্য স্থানীয় একজন সরাসরি সাইনিংয়ের সুযোগ চেয়েছে তারা। আর সেটা যদি নিয়মে রাখা হয় তাহলে সাকিবকে পেতে সমস্যা হবে না রংপুরের।
‘আমাদের সাজেশন ছিল যেহেতু একটা দল দুই বছর ধরে একভাবে খেলে আসছে, পরবর্তী চার বছর খেলার জন্য দলের একটা কোড দরকার। দলের কিছু খেলোয়াড় রিটেইন করার ব্যাপার আছে। সে রিটেনশন চেয়েছি আমরা। গত বছরের নিয়ম অনুসারে কিছু ফ্রেস সাইনিং ছিল বোর্ড সেটা নিতে চাচ্ছে। আইকন খেলোয়াড় বলে কিছু নাকি থাকবে না। একজন স্থানীয় খেলোয়াড়ের সরাসরি সাইনিং,  যেটা আমরা বাধ্যতামূলকভাবে চেয়েছি। বোর্ড বলছে বিদেশি সরাসরি সাইনিং দুই-তিনজন করবে। আমরা বললাম যেহেতু বিদেশি করবে কেন স্থানীয় লোকাল সাইনিং নয়।’
রংপুর রাইডার্স অবশ্য এর আগে সাকিবকে আইকন হিসেবেই দলে নিয়েছিল। কিন্তু শোনা যাচ্ছে, এখন থেকে আইকন প্রথাই উঠিয়ে দিতে যাচ্ছে বিসিবি। স্থানীয় ক্রিকেটারদের সরাসরি সাইনিং করানো যাবে কিনা সে বিষয়েও ধোঁয়াশা থেকে যাচ্ছে। সাকিবকে যদি তারা দলে পায় তাহলেও মাশরাফীকেও রাখবে কিনা, বা রাখতে পারবে কিনা তাও স্পষ্ট নয়। কিন্তু ইশতিয়াক নিশ্চিত অনেকটা নিশ্চিত, আগামী আসরের তাদের দলে সাকিব এবং মাশরাফি দুজনেই খেলবেন। ‘মাশরাফি তো আমাদের ঘরের ছেলে। আমি যতটুকু জানি মাশরাফি যদি অবসর নেয় তাহলে সে আইকন থাকবে না। আমাদের চিন্তা ছিল আমাদের রিটেনশনে মাশরাফীও পড়ে যায়। মাশরাফি সাকিব দুজনেই রংপুরে খেলবে।’
আন্তর্জাতিক টি-২০ থেকে অনেক আগেই অবসর নিয়েছেন মাশরাফি। বিপিএলে নিয়ম থাকলেও আর আইকন থাকার ইচ্ছে তার নেই বলেই জানান ইশতিয়াক।
‘মাশরাফি গত বছর থেকেই আইকন না থাকতে চেয়েছিল কারণ সে টি-টুয়েন্টিতে নেই। বিপিএল যেহেতু টি-টুয়েন্টি এথিক্যালি বা লজিক্যালি মাশরাফীকে আইকন রাখা যায় না। আইকন হবে নতুন কেউ, খুব প্রমিসিং। বোর্ড বলছে আমরা নিজেরাও জানি আমাদের দেশে সাতজন প্রপার আইকন খুঁজে বের করাই মুশকিল। সে হিসেবে মাশরাফীরও ইচ্ছা নাই আইকন থাকার।’
এখন রংপুরের যে ভাবনা তা মোটামুটি এমন- মাশরাফি আইকন না থাকলে তাকে রিটেইন করে রাখবে। আর স্থানীয় সরাসরি সাইনিং এর নিয়মে সাকিবকে দলে ভেড়াবে।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.