সংবাদ শিরোনাম
সিলেট চেম্বার নির্বাচন: বিজয়ী হলেন যারা  » «   বিভাগীয় মহাসমাবেশকে ঘিরে সিলেট বিএনপিতে ব্যাপক তোড়জোড় চলছে  » «   ভোলাগঞ্জ সাদাপাথর বেড়াতে গিয়ে লাশ হলেন আরেকজন  » «   দক্ষিন সুরমায় গাঁজাসহ মহিলা মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   সুরমা মার্কেট থেকে কিশোর নিখোঁজ  » «   জৈন্তাপুরে পুলিশের পৃথক অভিযানে আটক ৪  » «   বিশ্বনাথে প্রতিপক্ষের হামলায় এক বৃদ্ধ আহত  » «   কোম্পানীগঞ্জের কলাবাড়ি এলাকা থেকে মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   বিশ্বনাথে মোবাইল গার্ডেনে চুরির ঘটনায় সিলেট থেকে এক নারী গ্রেপ্তার  » «   জালালপুরে বাকপ্রতিবন্ধি নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে ইউপি সদস্য গ্রেপ্তার  » «   যুবলীগ নেতা জি কে শামীম ১০ দিনের রিমান্ডে  » «   ‘তথ্য-প্রমাণ পেলে সম্রাটের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা’  » «   কুষ্টিয়ায় চাঁদাবাজির অভিযোগে দুই যুবলীগ নেতা গ্রেপ্তার  » «   মা হলেন নুসরাত হত্যার আসামি কারাবন্দি মনি  » «   কিশোরগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় কটিয়াদী উপজেলার যুবদল সভাপতি নিহত  » «  

সাক্ষী থেকে আসামি হওয়া মিন্নি জামিনে মুক্তি

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় প্রধান সাক্ষী থেকে আসামি হওয়া রিফাতের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি গতকাল বিকাল ৫টার দিকে বরগুনা জেলা কারাগার থেকে জামিনে মুক্তি পেয়েছেন। এ সময় মিন্নির বাবা মোজাম্মেল হোসেন কিশোর, মিন্নির ছোট ভাই আবদুল মুহিত কাফি ও মিন্নির পক্ষের আইনজীবী কারাফটকে উপস্থিত ছিলেন।
গতকাল দুপুরে উচ্চ আদালত থেকে মিন্নির জামিন মঞ্জুরের আদেশ বরগুনার জ্যেষ্ঠ বিচারিক আদালতে পৌঁছায়। এরপর মিন্নির পক্ষে মিস কেস দাখিল করেন তার আইনজীবী মাহবুবুল বারি আসলাম। পরে বিকাল সাড়ে তিনটায় আদালতের বিচারক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম গাজী মিন্নির বাবার জিম্মায় জামিন নামায় বেলবন্ড দেন।
বিকাল চারটা নাগাদ বেলবন্ড বরগুনা জেলা কারাগারে পৌঁছায়। কারাগারের প্রক্রিয়া শেষে বিকাল ৫টার দিকে মিন্নিকে কারামুক্ত করে বাবা মোজাম্মেল হোসেনের জিম্মায় দেয়া হয়।
জেলগেটে থাকা একটি এম্বুলেন্সে করে মিন্নিকে বাড়িতে নেয়া হয়। সে সময় মিন্নির বাড়িতে স্বজনদের উপচে পড়া ভিড় ছিল।
এ সময় মিন্নির বাবা মোজাম্মেল হোসেন কিশোর বলেন, আমি আজ খুব খুশি, খুব আনন্দিত।
মিন্নির ছোট ভাই মো. কাফী বলেন, অনেকদিন পর আমার বোনকে কাছে পেয়ে খুব আনন্দ লাগছে।
মিন্নির আইনজীবী মাহবুবুল বারী আসলাম বলেন, মিন্নির পক্ষে দীর্ঘদিন আইনি লড়াই করে তাকে জামিনে মুক্ত করতে পেরে ভালো লাগছে।
গত ২৬শে জুন বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে প্রকাশ্যে মিন্নির স্বামী রিফাত শরীফকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এ সময় মিন্নি তার স্বামীকে বাঁচাতে চেষ্টা করছেন এমন একটি ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়।

পরে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গত ১৬ই জুলাই মিন্নিকে আটক করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ওই হত্যাকাণ্ডে মিন্নির জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়ায় ওইদিন রাতেই তাকে রিফাত হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার দেখায় পুলিশ। পরদিন আদালতে হাজির করে রিমান্ড চাইলে আদালত পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। রিমান্ডের দ্বিতীয় দিনেই মিন্নিকে আদালতে নিয়ে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়।
এদিকে, রিফাত হত্যার পরদিন তার বাবা আবদুল হালিম শরীফ বরগুনা থানায় ১২ জনকে আসামি করে একটি মামলা করেন। এ ছাড়া সন্দেহভাজন অজ্ঞাতনামা আরো চার-পাঁচ জনকে আসামি করা হয়। মামলার প্রধান আসামি সাব্বির আহম্মেদ ওরফে নয়ন বন্ড গত ২রা জুলাই পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়। এখন পর্যন্ত মামলার এজাহারভুক্ত ৬ আসামিসহ ১৪ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তাদের মধ্যে মিন্নিসহ মোট ১০ জন আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.