সংবাদ শিরোনাম
ট্রাম্প সমর্থকদের অস্ত্র নিয়ে রাজ্যপরিষদগুলোর কাছে বিক্ষোভ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা সাড়ে ৯ কোটি ছাড়াল  » «   অবসর নিয়েই কোচের দায়িত্বে ওয়েন রুনি  » «   ভারতের ভ্যাকসিন আসছে, অন্যদের সঙ্গেও কথা হয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী  » «   বাসচাপায় প্রাণ গেল মোটরসাইকেল আরোহী দম্পতির  » «   নজমুল হক এর মৃত্যুতে বঙ্গবন্ধু গবেষণা সংসদ সিলেটের শোক প্রকাশ  » «   সুনামগঞ্জের বাগলী স্থল শুল্ক ষ্টেশনে মানববন্ধন  » «   জগন্নাথপুর পৌরসভায় কাউন্সিলর বিজয়ী হলে যারা  » «   জগন্নাথপুরে তিনটি কেন্দ্রে ইভিএম জটিলতায় ভোটাররা ভোট দিতে পারেনি:অভিযোগ আওয়ামী লীগ প্রার্থীর  » «   ওসমানীনগরে সাদ উল্যা মেমরিয়াল ট্রাস্টের শীতবস্ত্র বিতরণ  » «   যুক্তরাজ্যে করোনায় ওসমানীনগরের প্রবাসী দুই ভাইসহ ৩জনের মৃত্যু  » «   আগামী ১৯ জানুয়ারি বিশ্বনাথে আসবেন এনায়েতুল্লাহ আব্বাসী  » «   গ্যাস লাইনে স্থাপনা,ঝুঁকিতে ২০ হাজার মানুষ:৭টি দাগের ওপর গড়ে তোলা হয়েছে বালুচর নয়াবাজার  » «   স্ত্রীর পরকীয়ায় স্বামীর সহযোগিতা  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ২৩ জনের মৃত্যু  » «  

প্রেমিকের অপবাদে প্রেমিকার আত্মহত্যা

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::নাটোরের বাগাতিপাড়ায় ফেসবুক মেসেঞ্জারে দ্বাদশ শ্রেণির প্রেমিক রোকনের অপবাদ সইতে না পেরে একাদশ শ্রেণির প্রেমিকা সোনালি গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। পুলিশ সোনালির মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে। রোকন ও সোনালি বাগাতিপাড়ার লোকমানপুর কলেজের শিক্ষার্থী। এ ঘটনার পর থেকে রোকন ও তার পরিবারের লোকজন গা ঢাকা দিয়েছে । পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, বাগাতিপাড়া উপজেলার পাকা ইউনিয়নের মালিগাছা সাজিপাড়া গ্রামের বাসিন্দা সুমনের মেয়ে জাকিয়া সুলতানা সোনালি লোকমানপুর কলেজের একাদশ শ্রেণির প্রথম বর্ষের ছাত্রী। সে কলেজে ভর্তি হওয়ার পর থেকেই নানাভাবে সোনালিকে বিরক্ত ও প্রেমের প্রস্তাব দিত রোকন। কলেজে ছাত্রীদের উত্ত্যক্ত করায় কলেজে রোকন ও তার বন্ধুদের বিরুদ্ধে একাধিক বিচারও হয় বলে নিশ্চিত করেছেন কলেজের কয়েকজন শিক্ষক। একপর্যায়ে রোকনের সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি হয় সোনালির।

কিন্তু নানা কারণেই সোনালিকে সন্দেহ করতো রোকন। এই নিয়ে মাঝে মধ্যেই তাদের মধ্যে মনোমালিন্য ও ঝগড়া হতো। গত রাতে এসব বিষয়ে রোকনের সঙ্গে ফেসবুক মেসেঞ্জারে সোনালিকে নানা ধরনের গালিগালাজ করে। একপর্যায়ে তার বাবাকে তুলে গালি দিলে তাতে সোনালি রোকনকে তার বাবাকে গালি না দিতে অনুরোধ করে। এরপরও নানা ধরনের চরিত্রহীন বলে অপবাদ দেয় রোকন। সোনালি মেসেজ দেয় আমাকে খারাপ মেয়ে বলো না আমি খারাপ না বোকা আমাকে দিও না আমি মরে যাব। এনিয়ে একপর্যায়ে আত্মহত্যার হুমকিও দেয় সোনালি। তারপরও কোনো তোয়াক্কা করেনি রোকন। অন্য ছেলেদের সঙ্গে জড়িয়ে নানা খারাপ কথা লিখে। এ সময় এ নিয়ে কথা চলাকালে মেসেঞ্জার ও আইডি বন্ধ করে দেয় রোকন। এই ক্ষোভেই গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ঘরের তীরের সঙ্গে ঝুলে আত্মহত্যা করে সোনালি। পরে সকালে সোনালির পরিবারের লোকজন সোনালির মরদেহ ঝুলতে দেখে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করে। এদিকে রাতে কথোপকথনের প্রমাণ ও মেসেঞ্জার আলাপন পুলিশের হাতে আসলে বিষয়টি নিয়ে কানাঘুষা চলতে থাকে। এরপর পুলিশ পাশের গ্রাম মারিয়ায় রোকনের বাড়িতে হানা দিয়ে বাড়িতে গিয়ে কাউকেই পায়নি। রোকন বাগাতিপাড়ার মারিয়া গ্রামের শিমুলের ছেলে। এ ব্যাপারে নাটোর সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল হাসনাত বলেন, বিষয়টি গুরুত্বসহকারে দেখা হচ্ছে। ধারণা করা হচ্ছে প্রেমিক-প্রেমিকার মনোমালিন্যের কারণে আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। মোবাইলের কিছু আলামত জব্দ করা হয়েছে। তদন্ত চলছে মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.