সংবাদ শিরোনাম
ভোলাগঞ্জের খাগাইল নামক স্থানে ট্রাক-অটোরিকশা সংঘর্ষে নিহত ২  » «   নিজের মামলায় ফেসে কারাগারে শামীমা স্বাদীন  » «   টাকার ভাগ-বাঁটোয়ারা নিয়ে রাব্বানীর ফোনালাপ ফাঁস  » «   পুলিশকে জনবান্ধব হিসেবে গড়ে তুলতে হবে: প্রধানমন্ত্রী  » «   দ্রুত উইকেট পতনে কঠিন চাপে বাংলাদেশ  » «   ছাত্রলীগকে কলঙ্কমুক্ত করতে কাজ করবে জয়-লেখক  » «   মন্ত্রিত্ব গেলে আবার সাংবাদিকতায় আসব: ওবায়দুল কাদের  » «   ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জয়-সা. সম্পাদক লেখক  » «   ছাত্রলীগ থেকে সরিয়ে দেয়া হলো শোভন-রাব্বানীকে  » «   ছাত্রদলের নেতারা নিজেরাই মামলা করে সম্মেলন বন্ধ করেছে  » «   শোভন-রাব্বানীর ভাগ্য নির্ধারণ আজ  » «   সংবাদপত্রকর্মীদের জন্য নবম ওয়েজবোর্ড ঘোষণা  » «   আদালতে ফয়সালা করেই ছাত্রদলের কাউন্সিল : দুদু  » «   জনগণের আস্থা, বিশ্বাস ধরে রাখার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর  » «   স্বামীকে তালাক দিয়ে প্রেমিকের বাড়িতে তরুণীর অনশন  » «  

ডিআরসি’তে ট্রেন দুর্ঘটনায় অন্তত ৫০ জন নিহত

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::ডেমোক্র্যাটিক রিপাবলিক অব কঙ্গোতে (ডিআরসি) এক ট্রেন দুর্ঘটনায় অন্তত ৫০ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরো ২৩ জন। বৃহস্পতিবার দেশটির দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশ তাঙ্গানিকার মায়িবারিদি শহরে একটি মালবাহী ট্রেন লাইনচ্যুত হলে এই হতাহতের ঘটনা ঘটে। দেশটির মানবাধিকার বিষয়ক মন্ত্রী স্টিভ মবিকায়ি এক টুইটে একথা জানিয়েছেন। এ খবর দিয়েছে আল জাজিরা ও ফ্রান্স টুয়েন্টি ফোর।
খবরে বলা হয়, প্রাথমিকভাবে মবিয়াকি ৫০ জন নিহতের খবর জানালেও পরবর্তীতে সে সংখ্যা কমিয়ে বিবৃতি দেন তাঙ্গানিকার গভর্নর জোরি কাবিলা। তিনি জানান, দুর্ঘটনায় ১০ জনের প্রাণহানী হয়েছে ও আহত হয়েছেন ৩০ জন। ট্রেনের ৩টি ক্যারেজ লাইনচ্যুত হয়েছে। কিন্তু প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, হতাহতের সংখ্যা শতাধিক ছাড়াতে পারে।
ডিআরসি’র জাতীয় রেল প্রতিষ্ঠান এসএনসিসি’র কেন্দ্রীয় প্রধান ভিক্টর উম্বা জানান, ট্রেনটি নিয়ুনজু শহর থেকে নিয়েম্বা শহরে যাচ্ছিল। তিনি বলেন, যারা মারা গেছেন তারা নিজ থেকে ট্রেনটিতে ওঠে পড়েছিল। ট্রেনটিতে যাত্রী বহন করা হয় না। তাই কতজন মারা গেছেন সে বিষয়ে কোনো সঠিক সংখ্যা দেয়া কঠিন। তবে মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে। অনেকেই এখনো ট্রেনের নিচে চাপা পড়ে আছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।
ডিআরসি’র ট্রেন লাইনগুলোর অবস্থা জরাজীর্ণ। নিরাপত্তাজনিত সমস্যার কারণে বহু আগ থেকেই বিশেষজ্ঞরা ট্রেন লাইনগুলো মেরামতের আহ্বান জানিয়ে আসছেন। এছাড়া ট্রেনের ইঞ্জিনগুলোও উন্নত নয়। বহু ট্রেনের ইঞ্জিন সে ষাটের দশক থেকে চলে আসছে। এসব কারণে দেশটিতে ট্রেন দুর্ঘটনার সংখ্যা অপেক্ষাকৃত বেশি। তাছাড়া টিকিট কাটার প্রয়োজন হয় না বলে মালগাড়িতে অবৈধভাবে যাত্রা করেন বহু মানুষ। যার ফলে মালগাড়ি দুর্ঘটনার শিকার হলেও বহু প্রাণহানি হয়ে থাকে। চলতি বছরের মার্চ মাসে অপর এক মালবাহী ট্রেন দুর্ঘটনায় প্রাণ হারান ২৪ জন। এর আগে গত বছরের নভেম্বর অপর এক মালবাহী ট্রেন দুর্ঘটনায় প্রাণ হারান ১০ জন।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.