সংবাদ শিরোনাম
বঙ্গবীর ওসমানী মৃত্যুাবার্ষিকীতে কর্মসূচী ঘোষণা  » «   ছইল মিয়ার সহধর্মিনী এর প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ইছালে ছাওয়াব মাহফিল  » «   জগন্নাথপুরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্নহত্যা  » «   বিয়ের চার মাস না যেতেই সম্পর্কে ফাটল, স্বামী রোহানের প্রেমিকাকে নেহার হুমকি  » «   কারাগারে আসামির নারীসঙ্গ: জানা গেল কে কত টাকা ঘুষ পান  » «   গোয়াইনঘাটে ভারতীয় মদসহ আটক-১  » «   সুনামগঞ্জের জলমহালে জেলেকে জবাই করে হত্যার বিচার চেয়ে বর্মণ কল্যাণ পরিষদের মানববন্ধন  » «   বৃটেন থেকে আসছে করোনা আক্রান্ত রোগী  » «   মার্কিন পররাষ্ট্রনীতি ধীরে চলো নীতিতে বাইডেন  » «   প্রধানমন্ত্রী আগে ভ্যাকসিন নিলে মানুষ সাহস পাবে  » «   ভ্যাকসিন প্রথম নিচ্ছেন কুর্মিটোলার নার্স  » «   কুলাউড়ায় জমির দলিল সহ ১১০ পরিবারের কাছে ঘরের চাবি হস্থান্তর  » «   কুলাউড়ার ব্রাহ্মনবাজারে প্রধান শিক্ষক নিয়োগ পরিক্ষায় তন্ত্রমন্ত্র, নিয়োগ বাতিল-স্কুলের নাইট গার্ড আটক  » «   কুলাউড়ায় পুলিশের সহযোগীতায় বৃদ্ধা মহিলাকে ঘর উপহার  » «   ওসমানীনগরের জমির আহমদ ছিলেন ‘আলোর ফেরিওয়ালা’   » «  

পাঁচ কারণে খারাপ ছেলেদের প্রতি মেয়েদের আকর্ষণ

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::কলেজের সবচেয়ে বখাটে ছেলেটিও এই পর্যন্ত তিন তিনটা প্রেম করে ফেলল। আর আমি এত ভালো ছাত্র হয়েও একটি প্রেমও হলো না এখন পর্যন্ত। তাহলে কি মেয়েদের কাছে খারাপ ছেলেদের দাম বেশি? ভালো ছেলেদের কি কোনো দামই নেই? এই প্রশ্নগুলো কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের অনেক ছেলেদের মনেই ঘরপাক খায়।

খারাপ ছেলেদের প্রতি মেয়েদের এত আকর্ষণ কেন? স্বাভাবিকভাবেই এই প্রশ্নটা মনে জাগতে পারে যখন কেউ দেখে যে, খারাপ ছেলেরা খুব সহজেই মেয়েদের পটিয়ে ফেলছে। আর মেয়েরাও খারাপ ছেলেদের প্রতি তীব্র আকর্ষণ বোধ করছে। কিন্তু এর কারণ কি? ভালো ছেলেদের বদলে খারাপ ছেলেদের প্রতি এমন আকর্ষণ কি অস্বাভাবিক নয়? জেনে নিন কারণগুলো।

চ্যালেঞ্জ নেওয়া : মেয়েরা চ্যালেঞ্জ নিতে পছন্দ করে। আর একটা খারাপ ছেলের সঙ্গে সম্পর্ক করাকে তারা একটা চ্যালেঞ্জ হিসেবে নেয়। চ্যালেঞ্জটা হলো একটা খারাপ ছেলেকে ধীরে ধীরে ভালো করে তোলা। কিন্তু এই কঠিন চ্যালেঞ্জে বেশির ভাগ মেয়েকেই হেরে যেতে হয়। কারণ খুব কম ক্ষেত্রেই একটা খারাপ ছেলে ভালো পথে ফিরে আসতে পারে। সবচেয়ে মজার ব্যাপার হলো- একটা ছেলেকে খারাপ পথ থেকে ভালো পথে ফিরিয়ে আনার পর সেই মেয়েটিই ওই ছেলের প্রতি আগ্রহ হারিয়ে ফেলে এবং সম্পর্ক ভেঙে ফেলে। কারণ যেসব স্বভাবের কারণে মেয়েটির কাছে ওই ছেলেটিকে ভালো লেগেছিল, সেই স্বভাবগুলো আর ছেলেটির মধ্যে খুঁজে পায় না। ফলে ছেলেটির প্রতি মেয়েটির আগ্রহ কমে যায়।

আত্মবিশ্বাস : মেয়েরা আত্দবিশ্বাসী ছেলেদের পছন্দ করে। আর খারাপ ছেলেদের মধ্যে আত্দবিশ্বাসের কোনো কমতি থাকে না। কোনো কোনো ক্ষেত্রে তারা অতিরিক্ত আত্দবিশ্বাসী হয় অথবা আত্মবিশ্বাসী না হলেও অভিনয় করে। তাই স্বাভাবিকভাবেই মেয়েরাই এ ধরনের ছেলেদের প্রতি বেশি আকর্ষণবোধ করে এবং এই আকর্ষণের কারণে মেয়েরা একটা ভুল সম্পর্কের দিকে এগিয়ে যায়।

পৌরুষ : খারাপ ছেলে বললে আপনার চোখে সবার আগে কী ভেসে ওঠে? কালো সানগ্লাস, মোটরসাইকেল, মুখে সিগারেট আর ট্যাটু? এই বৈশিষ্ট্যগুলোর জন্যই বেশির ভাগ নারীর কাছে খারাপ ছেলেদের বেশি পুরুষত্বের অধিকারী মনে হয়। ফলে এ ধরনের ছেলেদের তারা সাহসী ভাবে এবং তাদের সংস্পর্শে মেয়েরা নিজেদের বেশি নিরাপদ মনে করে। যদিও প্রকৃতপক্ষে খারাপ ছেলেদের সংস্পর্শ কখনোই নিরাপদ হতে পারে না।

রহস্য মেয়েদের কাছে খারাপ ছেলেদের রহস্যময় লাগে। একটা খারাপ ছেলে কি করছে, তার জীবনযাত্রা কেমন, কোথায় যাচ্ছে এসব নিয়ে বেশিরভাগ মেয়েই বেশ উৎসাহী থাকে। আর এই রহস্য উদঘাটনের নেশার বশেই ভুল পথে পা বাড়ায় মেয়েরা।

কথাবার্তা : বেশির ভাগ খারাপ ছেলেই মেয়েদের পটিয়ে অভ্যস্ত। কীভাবে মেয়েদের সঙ্গে কথা বলতে এগিয়ে যেতে হবে, কীভাবে প্রেমের প্রস্তাব দিতে হবে কিংবা প্রশংসা করতে হবে এগুলো তারা বেশ ভালো করেই জানে। এসব ক্ষেত্রে তাদের কোনো জড়তা কাজ করে না। ফলে তারা সহজেই মেয়েদের পটিয়ে ফেলার ক্ষমতা অর্জন করে। ভালো ছেলেরা একটু লাজুক প্রকৃতির হয়। ফলে একটা মেয়ের সঙ্গে নিজে থেকে এগিয়ে গিয়ে পরিচিত হতে কিংবা সখ্য গড়ে তুলতে বেশ সময় লেগে যায় তাদের। আর এই সুযোগের ব্যবহার করে খারাপ ছেলেরা। ফলে তারা বেশ সহজেই মেয়েদের পটিয়ে ফেলতে পারে।

 


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.