সংবাদ শিরোনাম
সাঁতার না জানায় হবিগঞ্জ পুলিশলাইনের পুকুরে মিলল কনস্টেবলের লাশ  » «   কেরানীগঞ্জে ত্রিমুখী সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৪-আহত ৩  » «   সিলেটের মেয়ে ঢাকায় এসে অসহায় হয়ে কান্নাকাটি করছে:খোঁজ মিলছেনা পরিবারের  » «   বাংলাদেশ-পাকিস্তানের গোপন চুক্তি ফাঁস করলেন শোয়েব!  » «   সমুদ্রসৈকতে মালয়েশিয়াগামী ২৩ রোহিঙ্গা উদ্ধার  » «   নগরীর চৌহাট্টায় অবৈধ হকার উচ্ছেদের অভিযানে মেয়র  » «   আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত যানবাহনের কাগজপত্র জরিমানা ছাড়া করার সুযোগ  » «   বড়লেখায় স্ত্রী, শাশুড়িসহ দুই প্রতিবেশীকে কুপিয়ে হত্যা:পরিদর্শন করলেন ডিআইজি কামরুল আহসান  » «   র‌্যাবের খাঁচায় বন্দী সিলেট জেলা যুবদলের সদস্য সচিব মকসুদ  » «   ছাতকের ভাতগাও ইউনিয়ন যুবলীগের কমিটি গঠন  » «   দুই দশক আগে সিপিবির সমাবেশে বোমা হামলা : ১০ আসামির মৃত্যুদণ্ড  » «   এসএসসি পরীক্ষার সংশোধিত রুটিন প্রকাশ  » «   টিলাগড় থেকে ইয়াবাসহ ছাত্রলীগ কর্মীসহ আটক ২  » «   ইজতেমার আখেরি মোনাজাতে আত্মশুদ্ধি ও গুনাহ মাফের ফরিয়াদ  » «   ভারতের মাঠে স্টিভ স্মিথের অনবদ্য সেঞ্চুরি  » «  

এক মৃতদেহের দাবিদার ৭ স্ত্রী

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::৪০ বছরের এক যুবক আত্মহত্যা করার পর মৃতদেহের দাবি নিয়ে একে একে থানায় হাজির সাত নারী। প্রত্যেকেরই দাবি, তিনি নাকি ওই ব্যক্তির স্ত্রী।
রোববার (২৯ সেপ্টেম্বর) বিষপানে আত্মহত্যা করেন পবন কুমার নামে এই ব্যক্তি। ভারতের হরিদ্বারের রবিদাস বস্তির বাসিন্দা পবন পেশায় গাড়িচালক।
রাতে তাকে জ্ঞানহীন অবস্থায় দেখে সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে নিয়ে যান তার স্ত্রী। কিন্তু চিকিত্‍সা চলাকালীন হাসপাতালেই মৃত্যু হয় তার।
প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জানতে পারে যে প্রচণ্ড আর্থিক সমস্যায় ভুগছিলেন পবন কুমার। সেই কারণেই পবন কুমার আত্মহত্যা করেন বলে প্রাথমিক তদন্তে মনে করা হচ্ছে।
কিন্তু নাটকের তখনও বাকি ছিল। একের পর এক সাতজন নারী থানায় এসে নিজেকে পবন কুমারের স্ত্রী বলে দাবি করেন। তাদের প্রত্যেকেরই দাবি পবনের আরো স্ত্রী আছে, তা তারা জানতেন না।
কে তার আসল স্ত্রী, তা জানতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.