সংবাদ শিরোনাম
সুনামগঞ্জের প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আলাদা একটা দৃষ্টি আছে -পানি মন্ত্রনালয়ের সচিব   » «   জগন্নাথপুরে পুলিশ সদস্য সহ আরোও তিনজন করোনায় আক্রান্ত: মোট আক্রান্ত ১১৯  » «   জগন্নাথপুরে দুর্ধর্ষ চুরি নগদ ৬লক্ষ টাকা সহ ৪ভরি সোনা নিয়ে গেছে চোরেরা  » «   জগন্নাথপুরে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে কাপড়ের দোকানে ঢুকে পড়ল ট্রলি  » «   গোলাপগঞ্জে গাঁজাসহ এক তরুণীকে আটক  » «   নিয়মিত অনলাইন স্বাস্থ্য বুলেটিন আজ শেষ দিন:আগামী কাল থেকে বন্ধ  » «   এক অপরাধীর পরিবর্তে টাকার বিনিময়ে কারাগারে আরেক আসামী  » «   জগন্নাথপুরে সাজাপ্রাপ্ত আসামীসহ গ্রেফতার-৬  » «   ওসমানীনগরের বেগমপুর-জগন্নাথপুর সড়ক মরণ ফাঁদ:জনদুর্ভোগ চরমে  » «   কাতারে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত কুলাউড়ার যুবকের মৃত্যু  » «   দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর আবারও সিলেট-লন্ডন রুটে সরাসরি বিমান চালু  » «   সিলেটে এমসি কলেজের ছাত্রীর আত্মহত্যা  » «   দীর্ঘ অপেক্ষার পর এবার আয়তনে দ্বিগুন হচ্ছে সিলেট সিটি কর্পোরেশন  » «   সিনহার সহযোগী সাহেদুলের মুক্তি  » «   সাংবাদিক শামীম তালুকদার সড়ক দূর্ঘটনায় গুরুতর আহত  » «  

৫০ কেজি ওজন কমিয়েছেন সারা!

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::সারা আলি খানের ভক্তের সংখ্যা গুনে শেষ করা যাবে না। এখনও পর্যন্ত দুটি ছবিতে অভিনয় করে দর্শকদের মুগ্ধ করেছেন তিনি। তবে তার সৌন্দর্যেও যে ভক্তরা মুগ্ধ তা আলাদা করে বলতে লাগে না। কিন্তু এক সময়ে এই সারাই একাধিক বার বিভিন্ন রকমের তির্যক মন্তব্যের শিকার হয়েছেন। তখন তার ওজন ছিল ৯৬  কেজি। সেই সময়ে সারা পিসিওএস (পলিসিস্টিক ওভারিয়ান সিনড্রোম) রোগে ভুগছিলেন। কিন্তু এখন তার ওজন ৪৬ কেজি। বিষয়টি অবাক করার মতো হলেও সত্যি।

৫০ কেজি ওজন কমাতে অনেক কাঠখড় পোড়াতে হয়েছে সারাকে। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের কাছে সারা জানিয়েছিলেন, তিনি পলিসিস্টিক ওভারিয়ান সিনড্রোমে ভুগছিলেন। হরমোন জনিত এই রোগের জন্যই মাত্রাতিরিক্ত ওজন বেড়ে যায় সারার। পিসিওএস-এর ফলে ওজন কমাতেও অনেক পরিশ্রম করতে হয়েছে সারাকে। সেই দুঃসময় কাটিয়ে সারা এখন সুস্থ। পিসিওএস-এ এই মুহূর্তে বহু নারী আক্রান্ত। এর অন্যতম উপসর্গ হল মাত্রাতিরিক্ত ওজন বেড়ে যাওয়া। ওজন বাড়লে পিসিওএস আরো বেশি করে শরীরে জাঁকিয়ে বসে। তাই এই রোগে আক্রান্তদের ডায়েটের ওপর গুরুত্ব দিতে হয়। সারাও ওয়ার্কআউটের পাশাপাশি ডায়েটেও অনেক নিয়ম মেনে চলেছেন।  সারা বলেন, মোটা ছিলাম বলে অনেক কথা শুনতে হয়েছে সে সময়। এটা জীবনের একটি বাজে অভিজ্ঞতা ছিলো। ৫০ কেজি ওজন কমিয়ে ছবিতে কাজ করতে পারবো সেটা ভাবিনি। তবে চেষ্টা ও পরিশ্রমের ফলে সম্ভব হয়েছে এটা। আমার নিজের কাছেই অবাক লাগে বিষয়টি ভাবলে। তবে এখন সবাই আমার রূপ, শারীরিক সৌন্দর্যের প্রশংসা করেন। তবে শরীর নিয়ে কারোই মন্তব্য করা ঠিক নয়। এটা মন ভেঙে দেয়। যেমনটা ভেঙে ছিলো আমার।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.