সংবাদ শিরোনাম
সিলেটে পেঁয়াজ কিনতে গিয়ে ধাক্কাধা‌ক্কি:পু‌লিশের মিস ফায়ারে গুলিবিদ্ধ ১  » «   বাহুবলে ৩০০ বস্তা সরকারি চাল জব্দ-আটক ১  » «   মা ও নিজের নিরাপত্তা চেয়ে এরিক এরশাদের জিডি  » «   লিবিয়ার রাজধানী ত্রিপোলিতে বিস্কুট ফ্যাক্টরিতে বিমান হামলা, ৫ বাংলাদেশি নিহত  » «   চীনের উইঘুর মুসলিম নির্যাতনের তথ্য ফাঁস  » «   এবার সিলেটে পেঁয়াজ,চালের পর বাজারে ঝড় উঠেছে লবনের দাম  » «   দেশে মেগা প্রজেক্টের নামে মেগা দুর্নীতি চলছে: ফখরুল  » «   ওসমানীনগরে সড়ক পারাপারের সময় গাড়ির চাপায় এক শিশু নিহত  » «   পপুলার ইনস্যুরেন্সের এক বিমা কর্মীকে পালাক্রমে ধর্ষণ-থানায় মামলা  » «   সিলেট নগরীর তিনটি স্থানে ৪৫ টাকায় পেঁয়াজ বিক্রি শুরু  » «   ফেসবুকে স্ট্যাটাসে জ্বলে পুড়ে ছাই আন্তর্জাতিক মানব পাচারকারী উজ্জল  » «   ওসমানীনগরে পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে শিক্ষার্থীদের সামনে প্রকাশ্যে ধূমপান  » «   প্রধানমন্ত্রীকে মির্জা ফখরুলের চিঠি  » «   স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নির্মল, সাধারণ সম্পাদক বাবু  » «   নিখোঁজ ক্রিকেটার গৌতম গাম্ভীর!  » «  

ছাত্রীর শ্লীলতাহানির অভিযোগে মামলা, শিক্ষক গ্রেফতার

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::লালমনিরহাটের আদিতমারীতে ৪র্থ শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রীর শরীরের বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেয়ার অপরাধে এক শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত ওই শিক্ষকের নাম নাসির উদ্দিন ওরফে চান মিয়া (৪৫)। সে উপজেলার ভেলাবাড়ী ইউনিয়নের পুরাতন ভেলাবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক। একই এলাকার শালমারা এলাকার মৃত বাবর আলীর ছেলে।

সোমবার দুপুরে বিদ্যালয় চলাকালীন সময়ে সহকারী শিক্ষক নাসির উদ্দিনকে পুলিশ আটক করে। এর আগে রবিবার রাতে ওই ছাত্রীর নানা আব্দুর রহমান বাদী হয়ে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে থানায় একটি নামলা দায়ের করেন। এ মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

জানা গেছে, পুরাতন ভেলাবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নাসির উদ্দিন ওরফে চান মিয়া ক্লাস চলাকালীন সময়ে ছাত্রীদের শরীরে হাত দিতেন। তিনি ওই বিদ্যালয়ের ইংরেজি ও গণিত বিষয়ে ক্লাস নিতেন। ক্লাস চলাকালীন সময়ে সুযোগ বুঝে গত ১৭ অক্টোবর ওই ছাত্রীর শরীরের স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেন তিনি। এরপর বিদ্যালয় ছুটির পর ওই ছাত্রী বাড়িতে গিয়ে বিষয়টি তার নানা আব্দুর রহমানকে জানান। এরপর তিনি বিষয়টি প্রধান শিক্ষক সুভাষ চন্দ্র রায়কে অবগত করেন। তবে প্রধান শিক্ষক বিষয়টি এড়িয়ে যাওয়ায় তিনি রবিবার রাতে নারী শিশু নির্যাতন আইনে ওই সহকারী শিক্ষকের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেন। এ মামলায় পুলিশ তাকে গ্রেফতার করেন। তবে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুভাষ চন্দ্র রায় এ বিষয়ে কোন কথা বলতে রাজি হননি।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার (চলতি দায়িত্ব) এনএম শরীফুল ইসলাম খন্দকার বলেন, বিষয়টি শুনেছি। মামলার কাগজ পেলে শুধু সাময়িক বহিষ্কার নয়, তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সুপারিশ করা হবে।

আদিতমারী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি তদন্ত) সাইফুল ইসলাম বলেন, ছাত্রীর শরীরের বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্থানে ওই শিক্ষক হাত দিতেন। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর নানার করা মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.