সংবাদ শিরোনাম
নাটকীয়তা, ৪ ঘণ্টা পর মুক্ত নুর  » «   ওসমানীনগরের তাজপুরে ইসলামী ব্যাংকের ক্যাশ রিসাইক্লিং মেশিনের উদ্বোধন  » «   ভিপি নুরুল হক নূরকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ  » «   ভেজাল ওষুধ বিক্রয় প্রতিরোধে জাফলংয়ে পল্লী চিকিৎসকদের মত বিনিময় সভা  » «   ‘সরকারের কোটি টাকার রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে হাউজিং প্রকল্প তৈরী’:সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ   » «   ৬১ হাজার ৪’শ ১৭ শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ খাওয়ানোর লক্ষ্যমাত্রা সিসিকের  » «   প্রেমের টানে সংসার ছাড়লেন হ্যাপী, বিয়ের দাবীতে প্রেমিকের বাড়িতে অনশন  » «   সুনামগঞ্জ অনলাইন প্রেসক্লাবের নেতৃবৃন্দকে সংবর্ধনা দিলো সায়েম সুপার মার্কেট কর্তৃপক্ষ  » «   ছাতকে চাঁদা না পেয়ে স্থাপনা নিমার্নে বাঁধা জেলা প্রশাসক বরাবর পাল্টা অভিযোগ দায়ের  » «   দোয়ারাবাজারে বিভ্রান্তিকর তথ্য পরিবেশনের প্রতিবাদে সাংবাদিক সম্মেলন  » «   শায়েস্তাগঞ্জে অবৈধ লেনদেন: ওসি-এসআই প্রত্যাহার  » «   নদীতে টিম বাস, ৬ ফুটবলারের অকাল মৃত্যু  » «   মিশরে সরকারবিরোধী বিক্ষোভ  » «   লাদাখের আকাশে উড়লো রাফালে যুদ্ধ বিমান, ভারত জানাল মহড়া  » «   সুনামগঞ্জে সন্ত্রাসী মোশারফের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন  » «  

ওসমানীনগরে স্বামীর বসতঘর থেকে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর লাশ উদ্ধার

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::ওসমানীনগরে মায়া বেগম (২৫) নামের নয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার তাজপুর ইউপির কাদিপুর গ্রামের গৃহবধূর স্বামীর বসতঘর থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত মায়া বেগম উপজেলার কাদিপুর গ্রামের সজ্জাদ মিয়ার (৩৫) স্ত্রী ও জগন্নাথপুর উপজেলার জয়দা গ্রামের আনা মিয়ার মেয়ে। পুলিশ গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহত মায়া বেগমের স্বামী উপজেলার তাজপুর ইউপির কাদিপুর গ্রামের সজ্জাদ মিয়া ও তার বাবা নজির মিয়াকে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে। পুলিশ ও গৃহবধূর পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সকালে মায়া বেগমের স্বামীর বাড়ি থেকে ফোনে নিহতের পিতা ও মামার বাড়িতে জানানো হয় দ্রুত কাদিপুর মায়ার শ্বশুর বাড়িতে আসার জন্য। খবর পেয়ে মায়া বেগমের স্বজনরা মেয়ের বাড়িতে গিয়ে মায়া বেগমের নিথর দেহ মাটিতে নিলডাউন অবস্থায় ঘরের ফ্যানের সাথে গলায় ফাঁস দেয়া দেখতে পান। বিষয়টি তাৎক্ষণিকভাবে মায়া বেগমের পিতার পরিবার ওসমানীনগর থানা পুলিশকে জানালে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে গৃহবধূ মায়া বেগমের লাশ উদ্ধার করে।

নিহত মায়া বেগমের মামা উপজেলার দয়ামীর ইউপির চক মন্ডলকাপন গ্রামের কালাম মিয়া অভিযোগ করে বলেন, আমার ভাগ্নিকে যৌতুকের জন্য তার স্বামী সজ্জাদ মিয়া সহ শ্বশুর বাড়ির লোকজন হত্যা করে ফ্যানের সাথে ঝুলিয়ে রেখেছে। মায়ার লাশ নামাজরত অবস্থার মত গলায় রশি লাগানো গিয়ে দেখেছি আমরা। আমার ভাগ্নীর ৫ বছরের এক কন্যা সন্তান রয়েছে এবং সে ৯ মাসের অন্তঃসত্ত্বা। যৌতুকের জন্য মায়ার শ্বশুর বাড়ির লোকজন তাকে নির্যাতন করত। গত কয়েক দিন পূর্বে তার স্বামীকে আমরা ৪টি গরু দিয়েছি। আমার ভাগ্নিকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে আমরা থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছি। গৃহবধূ মায়া বেগমের লাশ উদ্ধার ও সুরতহালকারী এসআই শফিকুল ইসলাম বলেন, নিহতের মৃতদেহ মাটিরভরে নিলডাউন ও ফ্যানের সাথে ঝুলানো অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। ঘটনাটি হত্যা না আত্মহত্যা তা ব্যাপক তদন্ত ছাড়া বলা সম্ভব নয়। জিজ্ঞাসাবদের জন্য নিহতের স্বামী ও শ্বশুরকে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে। ১১ওসমানীনগর থানার ওসি রাশেদ মোবারক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, খবর পেয়ে আমরা অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেছি। জিজ্ঞাসাবদের জন্য নিহতের স্বামী সজ্জাদ মিয়া ও শ্বশুর নজির মিয়াকে পুলিশ হেফাজতে আনা হয়েছে। গৃহবধূর পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দেয়া হলে মামলা নেয়া সহ প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.