সংবাদ শিরোনাম
এম. এ. হকের মৃত্যুতে সিলেট মহানগর যুবলীগের শোক  » «   এম. এ. হকের মৃত্যুতে সিলেট জেলা ও মহানগর যুবদলের শোক  » «   এম. এ. হকের মৃত্যুতে সিলেট মহানগর বিএনপির শোক  » «   এম এ হকের মৃত্যুতে মিজান চৌধুরীর শোক  » «   মারা গেলেন সিলেট মহানগর বিএনপি’র সাবেক সভাপতি এম এ হক  » «   সমালোচনার মুখে ফেয়ার এন্ড লাভলীর নাম পরিবর্তন করা হলো  » «   ফিরলো কফি হাউসের সেই আড্ডা  » «   করোনা:বাসা ভাড়া না দেওয়াতে ১৩৮ শিক্ষার্থীর সার্টিফিকেট, ল্যাপটপ, ট্রাঙ্ক ডাস্টবিনে  » «   বুড়িগঙ্গায় লঞ্চ ডুবির ১৩ ঘণ্টাপর জীবিত উদ্ধার হওয়া সুমনের ঘটনা সাজানো নাটক:দাবী ভ্রাম্যমাণ হকারদের  » «   বাজেট প্রত্যাখ্যান বিএনপি’র  » «   তিন দিন ধরে ঘুরছেন ক্যানসার আক্রান্ত রোগী  » «   বাংলাদেশে করোনায় তেমন ক্ষতি করতে পারেনি-পরিকল্পনামন্ত্রী  » «   বিছনাকান্দি সীমান্তে ভারতীয় খাশিয়ার গুলিতে নিহত ১  » «   জগন্নাথপুরে আরো ২ মহিলা সহ ৫জন করোনায় আক্রান্ত: মোট আক্রান্ত ৮৯  » «   জগন্নাথপুর-সিলেট বিকল্প সংযোগ সড়ক ভেঙে ৩দিন ধরে সরাসরি যান চলাচল বন্ধ  » «  

ওসমানীনগরের কাদিপুরে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর নিহতের ঘটনায় স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::সিলেটের ওসমানীনগরের কাদিপুরে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর লাশ উদ্ধারের ঘটনায় নিহতের স্বামী সজ্জাদ মিয়াকে আসামি করে ওসমানীনগর থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৯ অক্টোবর) রাতে নিহতের ভাই হাফিজুর রহমান বাদি হয়ে আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগ এনে ভগ্নীপতি সজ্জাদ মিয়ার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-২৮।

মামলা দায়ের পর পুলিশ হেফাজতে থাকা নিহত মায়া বেগমের স্বামী সজ্জাদ মিয়াকে ঐ মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে বুধবার (৩০ অক্টোবর) বেলা ২টার দিকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়।

এদিকে ময়না তদন্ত শেষে গত মঙ্গলবার রাতে নামাজে জানাজা শেষে গৃহবধূ মায়া বেগমের লাশ তার পিতার বাড়ি জগন্নাথপুর উপজেলার জয়দা গ্রামস্থ পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

ওসমানীনগর থানার ওসি মোহাম্মদ রাশেদ মোবারক সজ্জাদ মিয়ার বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আসামিকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। নিহতের ময়না তদন্তের রিপোর্ট আসার পর পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার তাজপুর ইউপির কাদিপুর গ্রামের নজির মিয়ার ছেলে সজ্জাদ মিয়ার স্ত্রী (৯ মাসের অন্তঃসত্ত্বা) মায়া বেগমের মৃত দেহ তার স্বামীর বাড়ি থেকে ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহতের স্বামীর বাড়ির লোকজন ঘটনাটি আত্মহত্যা বললেও নিহত মায়া বেগমের পরিবার ঘটনাটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড বলে দাবি করেন। ঘটনার পর পর পুলিশ নিহত মায়া বেগমের স্বামী সজ্জাদ মিয়া ও শ^শুর নজির মিয়াকে পুলিশ হেফাজতে নিয়ে যায়। রাতে নিহতের শ^শুর নজির মিয়াকে পুলিশ ছেড়ে দিলেও মায়া বেগমের ভাইয়ের দায়ের করা আত্মহত্যার প্ররোচনার মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে বুধবার স্বামী সজ্জাদ মিয়াকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.