সংবাদ শিরোনাম
বিশপের দশক সেরা ওয়ানডে একাদশে একমাত্র অলরাউন্ডার সাকিব  » «   মুক্তির শর্তের বিষয়ে আইনজীবীদের সঙ্গেও পরামর্শ  » «   রবিবার থেকে ব্যাংক চলবে সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা  » «   অভ্যন্তরীণ তিন রুটে ১ জুন থেকে ফ্লাইট চালু  » «   সৌদি আরবে সিলেটর জকিগন্জের এক ব্যবসায়ীর মৃত্যু  » «   নিজ হাতে গড়া দল থেকে বহিষ্কার মাহাথির  » «   লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশিকে গুলি করে হত্যা  » «   শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালে এক বৃদ্ধের মৃত্যু  » «   কুলাউড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় এক মোটরসাইকেল আরোহী নিহত  » «   করোনা:বিশ্বনাথে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে আহত ৪০  » «   বিশ্বনাথে নিজ কর্মস্থলে আসার সময় মাদ্রাসার শিক্ষকের মৃত্যু  » «   নগরীর পাঠানটুলা থেকে এক অজ্ঞাত মহিলার লাশ উদ্ধার  » «   সুনামগঞ্জে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় মহিলা সদস্যর শ্লীলতাহানির চেষ্টা, অভিযোগ দায়ের  » «   করোনা: দেশে একদিনে শনাক্ত ছাড়ালো ২ হাজার, মৃত্যু ১৫  » «   মায়ের দুধে করোনা সংক্রমণ হয় না  » «  

দখল হয়ে যাচ্ছে উপশহর সৈয়দানিবাগের ব্রিটিশ আমলে খননকৃত দীঘিটি

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::দখল হয়ে যাচ্ছে সিলেট নগরীর উপশহর সৈয়দানিবাগের ব্রিটিশ আমলে খননকৃত দীঘিটি। স্থানীয় প্রভাবশালী মহল ঐতিহ্যবাহী এই দীঘিটি রাতের আঁধারে ভরাট করছে। পাশাপাশি কেটে ফেলা হয়েছে দীঘিরপারের অর্ধশতাধিক ছোটবড় গাছপালা। এমনিতেই নগরীর বেশিরভাগ দীঘি ভরাট করে স্থাপনা নির্মান করা হয়েছে। এ দীঘিটিও অবৈধভাবে ভরাট করার কারণে লঙ্ঘিত হচ্ছে জলাধার সংরক্ষণ আইন।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, দীঘিটির বেশ কিছু অংশ মাটি দিয়ে ভরাট করে ফেলা হয়েছে। এছাড়া দীঘিরপারের গাছগুলো কেটে স্তুপীকৃত করে রাখা হয়েছে। দীঘিরপারে কয়েকজনের সাথে আলাপকালে তারা জানান, আমরা দীর্ঘদিন ধরে দেখে আসছি এই দীঘিটি সৈয়দানিবাগ, তেররতনসহ আশপাশ এলাকার মানুষের পানির চাহিদা মেটাত। অনেকে এই পানি বাড়িতে নিয়ে পরিষ্কার করে খাওয়া ও রান্নার কাজে ব্যবহার করতেন। কিন্তু নলকূপ, গবীল নলকূপ ও সিটি করপোরেশনের পানি সহজলভ্য হওয়ার কারণে এখন এলাকার শিশুরা মাঝেমধ্যে গোসল করে। এছাড়া দীঘির চারিদিক থেকেই বিভিন্ন ময়লা-আবর্জনা ফেলে পরিবেশ নষ্ট করা হচ্ছে। এতে করে পানিতে কিছুটা দূর্গন্ধও ছড়াচ্ছে। তারা আরো বলেন, কাছাকাছি কোথাও কোন দীঘি নেই।

সম্প্রতি একটি প্রভাবশালী মহল দীঘিটি কৌশলে ভরাট করতে শুরু করেছে। এর অংশ হিসেবে তারা দীঘিরপারের গাছপালা কেটে ফেলেছে। এছাড়া রাতের আঁধার নামলেই ট্রাকভর্তি মাটি এনে দীঘিতে ফেলে ভরাট করা হচ্ছে।

সূত্র জানায়, ব্রিটিশ আমলে খনন করা এ দীঘিটি সাদীপুর দ্বিতীয়খন্ড মৌজার জেএল ৯৮ এ পড়েছে। হিন্দু আলী পুকুর সর্বসাধারণের ব্যবহারের জন্য বলে রেকর্ড রয়েছে। কিন্তু স্থানীয় প্রভাবশালীরা তা না মেনে দীঘিটি দখলে মরিয়া হয়ে ওঠেছে।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, দীঘিরপারের গাছপালা কাটা ও দীঘি ভরাটে । একটি চক্র স্থানীয়ভাবে প্রভাবশালী হওয়ার কারণে কেউ তাদের বিরুদ্ধে মুখ খুলতে সাহস পাচ্ছেন না। গত এক সপ্তাহ ধরে দ্রুতগতিতে চলছে দীঘিভরাট ও গাছপালা নিধন। এ ব্যাপারে পরিবেশ অধিদফতর কিংবা প্রশাসন কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করে নি।

এ ব্যাপারে সিলেট সিটি করপোরেশনের ২৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সোহেল আহমদ রিপন বলেন, সৈয়দানিবাগের দীঘিটা তাদের ব্যক্তি মালিকানাধীন। এটা কোন সরকারী দীঘি নয়। যদি সরকারী দীঘি হতো তাহলে আমি ব্যবস্থা নিতাম।

পরিবেশ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা সানাওয়ার হোসেন সাথে মটোফনো যোগাযোগ করার চেষ্টা করা তিনি কল রিসিভ করেননি।

শাহপরান (রহ.) থানার ওসি আবদুল কাইয়ুম চৌধুরী বলেন, এ বিষয়ে তিনি কোন কিছু জানেন না। বা কেউ কোন ধরনের অভিযোগও করেনি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নিবো।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.