সংবাদ শিরোনাম
বাঁচা মরা তো আল্লাহর হাতে:আমার স্ত্রীর অবস্থা খুবই খারাপ-মানবতার ফেরিওয়ালা মাকসুদুল  » «   এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল আজ  » «   কোমা থেকে জাগলেন করোনায় আক্রান্ত ব্রিটিশ পাইলট  » «   করোনা প্রতিরোধে জনপ্রতিনিধিদের আরও সম্পৃক্তির আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর  » «   লিবিয়ায় নিহতদের মরদেহ বাংলাদেশে আনা যাবে না  » «   জগন্নাথপুরে জিয়াউর রহমানের শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে বিভিন্ন মসজিদে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল  » «   সুনামগঞ্জে পূর্ব শত্রুতার জেরে প্রতিপক্ষের হামলা আহত ২-থানায় অভিযোগ  » «   জগন্নাথপুরে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন এক নারী চিকিৎসক  » «   দক্ষিণ সুনামগঞ্জে করোনার নমুনা সংগ্রহের বুথ স্থাপন  » «   সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে ট্রলি চাপায় এক শিশুর মৃত্যু  » «   এবার ছেলের বাবা হলেন আশরাফুল  » «   মেসিকে কাটিয়ে সবচেয়ে বেশি আয় ফেদেরারের  » «   কৃষ্ণাঙ্গ হত্যার জেরে যুক্তরাষ্ট্রে তুলকালাম  » «   কৃষ্ণাঙ্গ হত্যা: অভিযুক্ত সেই পুলিশ কর্মকর্তাকে ডিভোর্স দিচ্ছেন স্ত্রী  » «   ছেলেকে হত্যার পর মায়ের আত্মহত্যা  » «  

গোলাপগঞ্জের বেপরোয়া আয়লাফ মাদক বিক্রি করে আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ

গোলাপগঞ্জ প্রতিনিধিঃসিলেটের গোলাপগঞ্জ থানার রণকেলী উত্তর গ্রামের মৃতঃ আদাই মিয়ার ছেলে আয়লাফ আহমদ( ৪০) থানা অনুমান মাত্র তিন থেকে চার মিনিটির পথ আয়লাফের বাড়ীর ঠিকানা।

বিভিন্ন সময়ে মাদক নিয়ে গ্রেপ্তার হওয়া আয়লাফ

আবারো বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। মাদক বিক্রি করে রিতিমত আঙ্গুল ফুলে কলাগাছে পরিনত হয়েছে।

প্রসাশনের নাকের ডগায় থেকে আড়াল থেকে নিয়ন্ত্রণ করছে গোলাপগঞ্জের মাদক সমরাজ্য,মাদক সম্রাট আয়লাফ আহমদ।

সে প্রায় ২০ বছর থেকে মাদক ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে।  এবং তাহার বিরুদ্ধে সিলেট জেলার বিভিন্ন থানায় একাধিক মাদক মামলা রয়েছে ।অতীতে বিয়ানী বাজার থানার একটি মাদক মামলায় সিলেটের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ১ ম আদালত আয়লাফ আহমদ কে দোষী সাইব্যস্হ করে ১০ বছরের সশ্রম কারাদন্ড প্রদান করে।ঐ মামলায় বছর খানেক জেল খাটার পর মহামান্য হাইকোর্টে থেকে আপিলে জামিনে বেরিয়ে এসে পুনরায় মাদক ব্যবসায় বেপরোয়া হয়ে উঠে।বিগত ২১/০২/২০১৯ ইং তারিখে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মোগলা বাজার থানাধীন এলাকায় বাইপাসে RAB ৯ আয়লাফ আহমদ কে ২৩০ পিছ ইয়াবা ৭ বোতল ভারতীয় ফেনসিডিল সহ হাতে নাতে গ্রেফতার করে। মোগলা বাজার থানার মামলা নং (৪) তারিখ ০৯/০২/২০১৯ যাহা মোগলা বাজার জি,আর,মামলা নং ২১/২০১৯ ইং ধারা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন ২০১৮ ইং এর ৩৬ (১) টেবিল ১০ (ক) এই মামলায় কয়েক মাস জেল খাটার পর জামিনে বেরিয়ে এসে পুনরায় মাদক ব্যবসায় নিজেকে সক্রিয় করে তুলে।পরবর্তীতে বিগত ১০/০৫/২০১৯ইং তারিখে গোলাপগঞ্জ থানা পুলিশ আয়লাফ আহমদ এর নিজ বসত ঘর হইতে ১০ পিছ ইয়াবা সহ তাকে গ্রেফতার করে।যাহা গোলাপগঞ্জ থানার মামলা নং (০৬) তারিখ ১০/০৫/২০১৯ ইং গোলাপগঞ্জ জি,আর,মামলা নং ৭৫/২০১৯ ইং ধারা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন ২০১৮ ইং এর ৩৬ (১) টেবিল ১০ (ক) এই মামলায় ও মাস দুই এক জেল খাটার পর জামিনে বেরিয়ে এসে পুনরায় বেপরোয়া হয়ে উঠে মাদক ব্যবসায়।কিন্ত ব্যবসার কৌশল পরিবর্তন করে সে অন্তরালে থেকে পুরো গোলাপগঞ্জের মাদক সমরাজ্য তার নিয়ন্ত্রে নিয়ে সে হয়ে উঠেছে মাদক সম্রাট আয়লাফ।গোপনে থেকে মাদক ব্যবসার গডফার হয়ে ও প্রশাসনের গ্রেফতার এড়াতে কৌশলে সে প্রকাশ্যে কাহারো সামনে আসে না।সেজন্য সে প্রসাশনের ধরা ছোয়ার বাহিরে রয়েছে।কিন্ত এমন হারে গোলাপগঞ্জের প্রতিটি এলাকায় ইয়াবা নামক মাদক ছড়িয়ে দিয়েছে এতে করে যুব সমাজ ধ্বংসের দিকে চলে যাচ্ছে। আর যুব সমাজের লোক নেশার টাকা যোগাড় করার জন্য নিজেদের কে বিভিন্ন অপরাধের সাথে জড়িয়ে যাচ্ছে ।এতে করে এলাকায় চুরি ছিনতাই দিন দিন বৃদ্দি পেয়েছে। তাই গোলাপগঞ্জ বাসীর দাবী যত দ্রুত সম্ভব আয়লাফ আহমদকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় নিয়ে আসার জন্য আকুল আবেদন জানিয়েছেন ।এই বিষয়ে গোলাপগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মিজানুর রহমানের সাথে আলাপ করলে তিনি বলেন তাহার বিরুদ্ধে একাধিক মাদক মামলা আছে সে পেশাদার একজন মাদক ব্যবসায়ী তাহাকে গ্রেফতারের জন্য অভিযান নিয়মিত অব্যাহত আছে।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.