সংবাদ শিরোনাম
জগন্নাথপুরে বন্যায় পানিতে তলিয়ে গেছে রাস্তা: পানির স্রোতে রাস্তা ভেঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন  » «   গোয়াইনঘাটে করোনায় আরও এক ব্যক্তির মৃত্যু  » «   গোয়াইনঘাটে অসহায় ও বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থদের পাশে দাঁড়ালেন জেলা প্রশাসক  » «   সাবরিনার গ্রেফতারে তাদের স্বপ্নদোষ শুরু হয়েছে:ফেসবুকে মিলি সুলতানা  » «   থানায় যেভাবে রাত কাটে সাবরিনার’তার সিম জালিয়াতি’কললিস্টে ভিআইপিদের নম্বর  » «   বাংলাদেশে করোনায় ১২ এবং উপসর্গ নিয়ে ৯ সাংবাদিকের মৃত্যু, দায়ী সুরক্ষা সরঞ্জামের অভাব  » «   কমলগঞ্জে শাহেদের অবস্থান নিয়ে গুঞ্জন  » «   ওসমানীনগরে চেয়ারম্যান রবের মৃত্যু: উমরপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের শোক  » «   রশি দিয়ে বেঁধে নেয়ার হুমকি দেওয়া ওসামীনগরের ওসির বদলি  » «   দিরাইয়ে প্রথম করোনায় একজনের মৃত্যু  » «   সুনামগঞ্জে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ ৬৫০টি পরিবারের মাঝে খিচুরী বিতরণ  » «   উন্নয়ন কাজ পরিদর্শনকালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে চেয়ারম্যানের মৃত্যু  » «   সুনামগঞ্জে সুরমা নদীর পানি বিপদ সীমার ৩১ সেঃ মিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে  » «   কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ওরফে পাথর শামীম রাতারাতি আঙুল ফুলে কলাগাছ:একাধিক মামলা  » «   শিক্ষকের যৌন লালসার শিকার ছাত্রীরা..এমন একটি ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল  » «  

সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দীদের সাথে নতুন নিয়মেই চলছে সাক্ষাৎ

নিজস্ব প্রতিবেদক::সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দীদের সাথে সাক্ষাতের নতুন নিয়মেই চলছে বন্দীদের সাথে সাক্ষাত।অতীতে যে সকল নিয়ম ছিলো তা,পরিবর্তন করে নতুন নিয়ম কার্যকর করা হয়েছে আর সেই নিয়মেই চলছে বন্দীদের সাথে আত্নীয় স্বজনের সাক্ষাৎ। তবে যে কেউ আত্নীয় স্বজন বলে সাক্ষাৎ করতে পারবেন না।কারন বন্দীর সাথে সাক্ষাৎ করতে হলে ডকুমেন্টস সহ প্রমান করতে হবে যে সাক্ষাৎকারীর আত্নীয়।কোন বন্দীর মা,বাবা,ভাই, বোন,দাদা,দাদী,সহ যত আত্নীয় স্বজন আছেন,তা ন্যাশনাল আইডি কার্ড সাথে নিয়ে যেতে হবে।ন্যাশনাল আইডি কার্ডের সাথে যদি বন্দীর সাথে সাক্ষাৎকারীর আত্নীয় স্বজন বলে প্রমান করতে পারেন তাহলেই সেই ব্যক্তি দেখা করতে পারবেন বন্দীদের সাথে । অন্যতায় বাহিরের কোন লোক বন্দু, বান্দব,আত্নীয় স্বজন, ছোট ভাই, বড় ভাই, এসব কথা বলে সাক্ষাৎ করা যাবে না।তাছাড়া বন্দীর আত্নীয় স্বজন ও বন্দীর সাথে প্রতি সপ্তাহে এক দিন সাক্ষাৎ করতে পারবেন। এক সপ্তাহের এক দিন আগে চাহিলেও দেখা করতে পারবেন না।এই নিয়মেই বর্তমানে সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দীদের সাথে সাক্ষাৎ করতেছেন বন্দীদের আত্নীয় স্বজন। এই বিষয়ে সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার আবু সায়েমের, সাথে সিলেট পোস্ট টুয়েন্টিফোর ডটকম এর প্রতিবেদক সরাসরি সাক্ষাৎ করে জানতে চাইলে সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার,আবু সায়েম জানান, এই নিয়মেই বন্দীদের সাথে বন্দীদের আত্নীয় স্বজনদের দেখা সাক্ষাৎ করা চলছে ।আগের নিয়ম পরিবর্তন করে নতুন নিয়ম করা হয়েছে শুধু মাত্র বন্দীদের কে কঠোর নিরাপত্তা দেওয়ার জন্য। কারন যে কেউ বন্দীদের সাথে দেখা সাক্ষাৎ করে বন্দীদের কে বিভিন্ন কুপরামর্শ দিয়ে যায়।পরবর্তীতে বন্দীরা জেল খানার ভেতরে বিভিন্ন অনিয়ম সহ নানা ধরনের খারাপ কাজের সহিত লিপ্ত হওয়ার চেষ্টা করে।এমন কি টাকা পয়সা দিয়েও বাহিরের লোকের মাধ্যমে নেশা,জাতীয় মাদকদ্রব্য জেল খানার ভেতর ডুকানোর কৌশল অবলম্বন করে।অতীতে আমাদের কর্তৃপক্ষ অনেক বার এধরণের কাজে বাহিরের লোককে হাতে নাতে পেয়ে ধরে ফেলে।বিদায় বন্দীদের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারে এই নিয়ম করা হয়েছে।এখন থেকে এই নিয়মেই বন্দীদের সাথে সাক্ষাৎ করা চলবে এবং ন্যাশনাল আইডি কার্ড অবশ্যই সাথে নিয়ে যেথে হবে বন্দীর সাথে সাক্ষাৎকারীরা।তাছাড়া আরো জানান কোন নগদ টাকা জেল খানার ভেতরে চলবে না।আত্নীয় স্বজন যদি বন্দীকে টাকা পয়সা দিতে হয় তাহলে পিসিতে টাকা দিতে পারবেন ঐ টাকা দিয়ে বন্দী জেল খানার ভেতরে কেন্টিন ও দোকান রয়েছে ক্যান্টিন ও দোকান থেকে নিজের প্রয়োজনীয় যে কোন কিছু কিনতে পারবেন বলে জানান সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার,আবু,সায়েম।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.