সংবাদ শিরোনাম
ভারত থেকে পিয়াজ আসছে দাম কমতির দিকে  » «   তাহিরপুর সীমান্তে ভারতীয় গোলকাঠ উদ্বার  » «   সিলেটে ৩ জন চিকিৎসকসহ নতুন করে ১৩ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত  » «   জেলা তথ্য অফিসের উপ পরিচালক মিলি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত  » «   খাদিমনগর ইউনিয়নে চুরি হওয়া গরুসহ দুই চোর আটক  » «   মেয়র আরিফের রোগমুক্তি কামনায় মহানগর  ব্যবসায়ী ঐক্য কল্যাণ পরিষদের দোয়া  » «   আল্লামা শফীর জানাজা সম্পন্ন, লাখো মানুষের ঢল  » «   মৃত ইডেন মহিলা কলেজের শিক্ষিকাকে বদলি  » «   সাবেক মেয়র কামরানের ছোট ভাই বখতিয়ার আহমদ কানিছ আর নেই  » «   যে কেউ পাবে না আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র  » «   ইউএনও ওয়াহিদা ও তার স্বামীকে বদলি  » «   দক্ষিণ সুরমায় নারীকে মারধরের অভিযোগে ট্রাভেলস ব্যবসায়ী গ্রেফতার  » «   দৌড়বিদ-সাইক্লিস্ট ও সাঁতারুদের পদচারণায় মুখরিত ওসমানীনগর  » «   মহানগর পুলিশের অভিযানে গণধর্ষণ মামলার দুই আসামি গ্রেপ্তার  » «   সিলেটে বঞ্চিত আওয়ামী লীগের উদ্যোগে প্রতিবাদ মিছিল  » «  

ভারতে নাগরিকত্ব বিল বাতিলের দাবি ৬ শতাধিক বিশিষ্ট ব্যক্তির

সিলেটপোস্ট ডেস্ক::ভারতের নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল (সিএবি) প্রত্যাহার করতে ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন দেশটির লেখক, সাংবাদিক, চলচ্চিত্রকার, মানবাধিকার কর্মীসহ ছয় শতাধিক বিশিষ্ট ব্যক্তি। বিতর্কিত ঐ বিলে মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ বাংলাদেশ, আফগানিস্তান ও পাকিস্তান থেকে নিপীড়নের মুখে ভারতে পালিয়ে যাওয়া হিন্দু, বৌদ্ধ, শিখ, জৈন, পারসি ও খ্রিস্টানদের নাগরিকত্ব দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। মুসলিম শরণার্থীদের উপেক্ষার প্রশ্ন তুলে বিলটিকে ‘বিভাজক, বৈষম্যমূলক ও অসাংবিধানিক’ আখ্যা দিয়েছেন বিশিষ্ট ব্যক্তিরা।

খোলা চিঠিতে বিশিষ্টজনেরা বলেছেন, ‘দেশ জুড়ে এনআরসির পাশাপাশি এই বিলও মানুষের জন্য অবর্ণনীয় ভোগান্তি বয়ে আনবে। এটা ভারতের গণতান্ত্রিক বৈশিষ্ট্যের জন্য ভয়াবহ ও অপূরণীয় ক্ষতির কারণ হবে। এজন্য আমরা এই বিল প্রত্যাহারের আহ্বান জানাচ্ছি। আমরা সরকারকে সংবিধানের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা না করতে বলছি।’ বুকার পুরস্কারজয়ী অরুন্ধতী রায় ছাড়াও চিঠিতে স্বাক্ষর করা ব্যক্তিদের মধ্যে রয়েছেন লেখক নয়নতারা সাহগল, অশোক বাজপেয়ি, পল জাকারিয়া, অমিতাভ ঘোষ, শশী দেশপান্ডে, চলচ্চিত্র নির্মাতা অপর্ণা সেন, নন্দিতা দাস ও ইতিহাসবিদ রোমিলা থাপার। খবর এনডিটিভি ও দ্য হিন্দুর।

এদিকে ভারতের ‘মুসলিমবিরোধী’নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের (সিএবি) তীব্র সমালোচনা করে অহিংস অসহযোগ আন্দোলনের ডাক দিয়েছেন দেশটির কয়েকজন সাবেক আমলা (আইএএস)। মানবাধিকারকর্মী ও সাবেক আইএএস কর্মকর্তা হর্ষ মন্দার বলেছেন, এনআরসির জন্য কোনো নথি জমা দেব না। নথিবিহীন মুসলিমদের যে শাস্তি দেওয়া হবে, নিজের জন্য আমি সেই শাস্তির দাবি তুলব। একই সঙ্গে নাগরিকত্ব প্রত্যাহারের মতো শাস্তি চাইব।একই রকমের ঘোষণা দিয়েছেন সদ্য আইএএসের চাকরি ছেড়ে দেওয়া শশীকান্ত সেন্থিলও। তিনি এনআরসি হলে কোনো নথি জমা না দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। জানিয়েছেন, ‘আমি নাগরিক নই বলে ঘোষণা দিয়ে ডিটেনশন সেন্টারে যাব।’

লোকসভার পর রাজ্যসভাতেও নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল (সিএবি) পাস হয়েছে। সোমবার মধ্যরাতে ৩১১-৮০ ভোটে ভারতের লোকসভার অনুমোদন পায় ‘দ্য সিটিজেনশিপ (অ্যামেন্ডমেন্ট) বিল, ২০১৯’ শীর্ষক বিতর্কিত বিল। বুধবার এটি রাজ্যসভায় উত্থাপন করা হয়। বুধবার রাতে বিলের পক্ষে ১২৫টি ও বিপক্ষে ১০৫টি ভোট পড়ে। এ বার রাষ্ট্রপতি সই করলেই এই বিল আইনে পরিণত হবে।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.